১৬ এপ্রিল, ২০২২ ১৪:৪৩

সুস্থ হয়নি উদ্ধার হওয়া সেই অতিথি পাখিটি, চলছে চিকিৎসা

কলাপাড়া (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি

সুস্থ হয়নি উদ্ধার হওয়া সেই অতিথি পাখিটি, চলছে চিকিৎসা

ছবি- বাংলাদেশ প্রতিদিন।

পর্যটন কেন্দ্র কুয়াকাটা সমুদ্র সৈকত থেকে অসুস্থ অবস্থায় একটি অতিথি পাখি উদ্ধার করেছে এক পর্যটনকর্মী। পাখিটির ডান পা ও পাখায় আঘাত ছিল। পাখিটিকে কেউ বলে গাংচিল, আবার কেউ বলে বদর কবুতার। তবে এটি দেখতে ককুতারে মত। 

গত রবিবার (১০ এপ্রিল) লেম্বুরবন সংলগ্ন আন্ধারমানিক নদীর মোহনায় বালুচর থেকে এটিকে উদ্ধার করা হয়। পরে অসুস্থ এই অতিথি পাখিটিকে কুয়াকাটা বন্যপ্রাণি নোঙ্গর খানায় রেখে চিকিৎসা সেবা দেয়া হয়। তবে কি কারণে এটি আহত হয়ে ওই বালুচরে পরে ছিল তা বলতে পারেনি কেউ। স্থানীয়দের ধারনা- জেলের জালে আঘাত পেয়ে পাখিটি আহত হতে পারে। পরে ভাসতে ভাসতে এটি তীরে এসে আশ্রয় নেয়।

পর্যটনকর্মী কে এম বাচ্চু বলেন, স্থানীয়দের সংবাদের ভিক্তিতে অসুস্থ অবস্থায় এই পাখিটিকে উদ্ধার করে কুয়াকাটা বন্যপ্রানী নোঙ্গর খানায় রাখা হয়েছে। সেখানে এটির চিকিৎসা সেবা চলছে। প্রথমত পখিটি হাঁটতে ও উড়তে পারত না। তবে দীর্ঘ ৬ দিনের চিকিৎসায় অনেকটা সুস্থ হয়ে উঠেছে। তবে এখন পর্যন্ত উড়ে যাওয়ার মতো সক্ষম হয়নি।

বন্যপ্রাণি নোঙ্গরখানায় দ্বায়িত্বরত মো.ওয়াদুদ সবুজ বলেন, এ পাখিটিকে যখন এখানে আনা হয়েছে তখন কিছুই খেতে পারতোনা। এখন খেতে পাড়ছে। এটিকে ছোট ছোট মাছ খাওয়ানো হচ্ছে। আশাকরি কিছুদিনের মধ্যেই সুস্থ হয়ে যাবে। 

কুয়াকাটা বন্যপ্রাণি নোঙ্গরখানার স্বত্বাধিকারী রুমান ইমতিয়াজ তুষার বলেন, গত ৫/৬ দিন আগে এই পাখিটিকে অসুস্থ আবস্থায় নিয়ে আসে পর্যটনকর্মী কে এম বাচ্চু। আমরা এটিকে চিকিৎসা সেবা দিয়ে যাচ্ছি। আগের তুলনায় পাখিটি অনেক সুস্থ। পুরোপুরি সুস্থ হলে অবমুক্ত করা হবে। তবে এর আগেও এই নোঙ্গর খানায় পাখিসহ ২০ বন্যপ্রাণি চিকিৎসা সেবা দিয়ে সুস্থ করে অবমুক্ত করা হয়েছে বলে তিনি জানিয়েছেন।


বিডি-প্রতিদিন/আব্দুল্লাহ

এই রকম আরও টপিক

এই বিভাগের আরও খবর

সর্বশেষ খবর