৬ অক্টোবর, ২০২২ ১৯:৩৯

জয়পুরহাটে ৫ নারী চোর আটক, জেল-জরিমানা

জয়পুরহাট প্রতিনিধি:

জয়পুরহাটে ৫ নারী চোর আটক, জেল-জরিমানা

প্রতীকী ছবি

জয়পুরহাটের আক্কেলপুর রেল স্টেশন এলাকায় পাঁচ নারী চোর চক্রের সদস্যকে আটক করে রেলস্টেশন কর্তৃপক্ষ। বৃহস্পতিবার দুপুরে ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে আটককৃত পাঁচজন নারীর মধ্যে দুইজনকে ৭ দিনের কারাদন্ড এবং তিনজনকে পৃথক ভাবে মোট দুই হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক আক্কেলপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এস এম হাবিবুল হাসান এ আদেশ দেন। 

কারাদন্ড প্রাপ্ত নারী দুইজন হলেন, ব্রাহ্মনবাড়িয়ার নাসিরনগর উপজেলার ডরমন্ডল গ্রামের ইব্রাহিমের স্ত্রী হামিদা আক্তার (২৪) এবং একই গ্রামের দনু মিয়ার স্ত্রী রিপন আক্তার (৩৫)। আর জড়িমানা প্রাপ্তরা হলেন, একই গ্রামের আলী আসগরের স্ত্রী রোজিনা (৩০), ফারুক হোসেনের স্ত্রী লিজা (১৮) এবং কাজল মিয়ার স্ত্রী মর্জিনা খাতুন (২০)। 
 
আদালত সূত্র জানায়, নারী চোর চক্রের সদস্যরা বৃহস্পতিবার দুপুরে চিলাহটি থেকে ছেড়ে আসা রাজশাহীগামী আন্তঃনগর বরেন্দ্র এক্সপ্রেস ট্রেনে আক্কেলপুর স্টেশনে আসেন। ওই নারী চোর চক্রের সদস্যরা চুরি করার উদ্দেশ্য স্টেশন এলাকায়  অবস্থান করছিলেন। এ সময় স্টেশন মাষ্টার হাসিবুর রহমান সিসিটিভি ক্যামেরায় তাদেরকে দেখছিলেন। একপর্যায়ে তাদের গতিবিধি সন্দেহমূলক হওয়ায় স্টেশনে দায়িত্বরতদের নিয়ে তাদেরকে জিজ্ঞাসাবাদ করেন। তাদের কথাবার্তায় অসংগতি এবং সন্দেহজনক হওয়ায় তিনি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও পুলিশে খবর দেন। 

আক্কেলপুর স্টেশন মাষ্টার হাসিবুর রহমান বলেন, যখন তারা ট্রেন থেকে স্টেশনে নেমেছেন, তখন থেকেই তাদের গতিবিধি সন্দেহজন মনে হচ্ছিল। তাদেরকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হলে অনেক উল্টাপাল্টা কথা বলেছে। সেই কারনে নির্বাহী কর্মকর্তা ও পুলিশকে খবর দেওয়া হয়। 

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট এসএম হাবিবুল হাসান জানান, তারা বিভিন্ন সময় ট্রেন এবং স্টেশনের যাত্রিদের টার্গেট করে নিয়মিত চুরি করত। তারা একটি সংঘবদ্ধ চোর চক্র। জিজ্ঞাসাবাদে অপরাধ বিবেচনায় তাদের মধ্যে দু’জনকে সাত দিনের কারাদন্ড এবং বাঁকিদের জরিমানা করা হয়েছে। 

বিডি প্রতিদিন/এএম

 

সর্বশেষ খবর