২০ জুন, ২০২৪ ১৮:৫৩

ইউপি চেয়ারম্যানকে মারধরের মামলায় প্রধান অভিযুক্ত কারাগারে

নাটোর প্রতিনিধি

ইউপি চেয়ারম্যানকে মারধরের মামলায় প্রধান অভিযুক্ত কারাগারে

ফাইল ছবি

নাটোরের বড়াইগ্রামের মাঝগাঁও ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল্লাহ আল আজাদ দুলালকে মারপিট ও কার্যালয় ভাঙচুরের মামলায় প্রধান অভিযুক্ত আতিকুর রহমান মাস্টারকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

বৃহস্পতিবার দুপুরে তাকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়। আতিকুর রহমান উপজেলার তিরাইল গ্রামের বাসিন্দা মৃত বজলুর রহমানের ছেলে ও জোয়াড়ী উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক।

মামলার বাদীপক্ষের আইনজীবী মোখলেসুর রহমান মিলন বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, দুপুরে আতিকুর রহমানসহ আসামি আনোয়ার হোসেন ও রাকিব হোসেন আদালতে আত্মসমর্পণ করেন। পরে বড়াইগ্রাম আমলী আদালতের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মোছা. আশরাফুন্নাহার রিটা শুনানি শেষে অপর দুইজনকে জামিন দিলেও আতিকুর রহমানের জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। বর্তমানে এ মামলার ৯ জন আসামির মধ্যে ছয়জন কারাগারে রয়েছে এবং তিনজন জামিনে রয়েছে।

মাঝগাঁও ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল্লাহ আল আজাদ দুলাল বলেন, গত ১৩ জুন ১৫-২০ জন ব্যক্তি মাঝগাঁও ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ে তার কাছে গিয়ে ভিজিএফ কার্ডের ৫০ ভাগ দাবি করে। কিন্তু তিনি তা দিতে অস্বীকার করলে দুর্বৃত্তরা তাকে এলোপাতাড়ি মারপিট ও তার কার্যালয় ভাঙচুর করে।

বড়াইগ্রাম সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শরীফ আল রাজীব জানান, এ ঘটনায় চেয়ারম্যান বাদী হয়ে ৯ জনের নামে থানায় মামলা করেন। এরপর ছয়জন আসামিকে পুলিশ গ্রেফতার করেছে। বাকি তিনজন নিজ থেকে আদালতে আত্মসমর্পণ করেছেন।

বিডি প্রতিদিন/এমআই

সর্বশেষ খবর