Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : শুক্রবার, ৩ অক্টোবর, ২০১৪ ০০:০০ টা
আপলোড : ৩ অক্টোবর, ২০১৪ ০০:০০

খুশির ঈদ

শিউল মনজুর

খুশির ঈদ

১.আব্বুর এক ডাকে ইবতিসাম ওঠে বসে। তারপর খাট থেকে নেমে ব্রাশে পেস্ট লাগিয়ে নিজেই ব্রাশ করে। আম্মু শাহিদা আক্তার টের পেয়ে কিচেন থেকে ছুটে এলেন। ঈদের খুশিতে তার ছেলে ভোরে ওঠে নিজেই পেস্ট লাগিয়ে ব্রাশ করছে, এই দৃশ্য দেখে এক অনাবিল আনন্দে তার মন ভরে ওঠে। যদিও রাতে ছেলেটি দেরিতে ঘুমিয়েছে। সঙ্গে ইবতিসামের ছোট ভাই ইয়ামিনও দেরিতে ঘুমিয়েছে। ইয়ামিন এখনো ঘুমাচ্ছে। অবশ্য ঈদগাহে যাওয়ার বয়স এখনো ইয়ামিনের হয়নি। তাই তাকে আর ডাকা হচ্ছে না। গতকাল কোরবানির জন্য কেনা ছাগল নিয়ে দুই ভাই অনেক রাত পর্যন্ত আনন্দে মেতেছিল। তিনি ছেলেকে জিজ্ঞাসা করেন, আজ এত তাড়াতাড়ি উঠলে কেন বাবা?

আজ তো ঈদ।

কয়দিন আগেও তো একটি ঈদ করলে?

ওই ঈদ তো রোজার ঈদ ছিল। এই ঈদ তো কোরবানির ঈদ। এই ঈদে কোরবানি দিতে হয়। এই ঈদটাও অনেক খুশির ঈদ।

এখন তুমি কী করবে বাবা?

ফ্রেশ হব। ওজু করব। তারপর নতুন জামাকাপড় পরে আব্বুর সঙ্গে ঈদগাহ যাব।

ঈদগাহ গিয়ে কী করতে হয়?

তাও বুঝি জান না।

আমি কী ঈদগাহ গিয়েছি কখনো। আমি কী করে জানব?

ঈদগাহে গিয়ে নামাজ পড়তে হয়। নামাজের পর খুৎবা হবে, সেটি খুব মনোযোগ দিয়ে শুনতে হয়।

আর কী করতে হয়?

সবার জন্য দোয়া করতে হয়। তারপর কোলাকুলি করতে হয়।

কোলাকুলি করতে তোমার ভালো লাগে?

আমার খুব মজা লাগে।

বাড়ি ফিরে কী করবে?

ছাগল কোরবানি দেব।

কোরবানি করলে কী হয় বাবা?

মহান আল্লাহপাক অনেক খুশি হন।

তাহলে তো তুমি অনেক কিছু জান।

আম্মু, হুজুর বলেছেন, যে পশু তুমি জবাই করবে সেই পশুর যতগুলো পশম আছে ততগুলো নেকি তুমি পাবে।

২.ইবতিসামের আব্বু রোকন সাহেব পাজামা-পাঞ্জাবি পরতে পরতে ছেলে ও ছেলের মায়ের কথা মনোযোগ দিয়ে শুনছিলেন। ছেলের কথা শুনতে তার ভালোই লাগছিল এবং তিনি উপলব্ধি করলেন আসলে দুনিয়ার মোহে আমরা সবাই অন্ধ হয়ে গেছি। মৃত্যুর পরই তো একজন মুসলমানের প্রকৃত জিন্দেগির সূচনা হয়। তখনকার জন্য আমরা কী সঞ্চয় করছি? আখেরাতের দিন প্রতিটি মুসলমানকে তার হিসাব আল্লাহকে দিতে হবে। তখন আমরা মহান আল্লাহ পাকের কাছে মুখ দেখাব কিভাবে? এই দুনিয়ায় আমরা আল্লাহর দেওয়া বিধান না মেনে নিজেদের ইচ্ছামতো জীবন চালাচ্ছি!

মহান আল্লাহ আমাদের জীবন গঠনের জন্য মহাগ্রন্থ পবিত্র কোরআন শরিফ উপহার দিয়েছেন। কোরআনের বিধি-বিধান অনুযায়ী আমাদের চলতে হবে। এমন সময় ইবতিসামের আম্মু তাড়া দিলেন। ঈদগাহে যাওয়ার সময় হয়ে গেছে। তারপর তারা সবাই মিলে ঈদগাহে রওনা হলেন। মানুষের সুন্দর জীবন গঠনের জন্য ধর্মীয় বিধিনিষেধ মেনে চলা উচিত।

 

 


আপনার মন্তব্য

Works on any devices

সম্পাদক : নঈম নিজাম

ইস্ট ওয়েস্ট মিডিয়া গ্রুপ লিমিটেডের পক্ষে ময়নাল হোসেন চৌধুরী কর্তৃক প্লট নং-৩৭১/এ, ব্লক-ডি, বসুন্ধরা আবাসিক এলাকা, বারিধারা, ঢাকা থেকে প্রকাশিত এবং প্লট নং-সি/৫২, ব্লক-কে, বসুন্ধরা, খিলক্ষেত, বাড্ডা, ঢাকা-১২২৯ থেকে মুদ্রিত।
ফোন : পিএবিএক্স-০৯৬১২১২০০০০, ৮৪৩২৩৬১-৩, ফ্যাক্স : বার্তা-৮৪৩২৩৬৪, ফ্যাক্স : বিজ্ঞাপন-৮৪৩২৩৬৫।

E-mail : [email protected] ,  [email protected]

Copyright © 2015-2019 bd-pratidin.com