Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : শনিবার, ১৭ অক্টোবর, ২০১৫ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৭ অক্টোবর, ২০১৫ ০১:৪৭

আলো ঝলমল দাশিয়ারছড়া

সাবেক সব ছিটমহলেও আলো ছড়িয়ে পডক

নিজস্ব প্রতিবেদক

আলো ঝলমল দাশিয়ারছড়া

সদ্য বিলুপ্ত সাবেক ছিটমহলের বাসিন্দাদের জাতীয় মূল স্রোতের অন্তর্ভুক্ত করে তাদের উন্নয়নের ধারায় আনার ব্যাপারে সরকারের অঙ্গীকার বাস্তবায়ন শুরু হয়েছে জোরেশোরে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কুড়িগ্রামে সাবেক ছিটমহল দাশিয়ারছড়া সফর করে ছিটমহলবাসীর আলোর পথে যাত্রার গতিকে বেগবান করে দিয়েছেন। দাশিয়ারছড়ার নতুন নামকরণ হয়েছে মুজিব-ইন্দিরা দাশিয়ারছড়া ইউনিয়ন। এ নামকরণের মাধ্যমে ছিটমহলবাসীর মানবিক অধিকার নিশ্চিত করার জন্য ৪১ বছর আগে সম্পাদিত চুক্তির হোতা বাংলাদেশের জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব এবং ভারতের মহীয়সী নেত্রী সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধীর প্রতি শ্রদ্ধা জানানো হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী ছিটমহলবাসীর আলোর পথে যাত্রাকে স্পষ্ট করতে দাশিয়ারছড়ার ৭০০ পরিবারের মধ্যে বিদ্যুৎ সংযোগ প্রদান করেছেন বৈদ্যুতিক সংযোগ সুইচে চাপ দিয়ে। এ উপলক্ষে আয়োজিত এক সমাবেশে স্থানীয় পাঁচটি পরিবারের মধ্যে তাৎক্ষণিক বিদ্যুৎ সুবিধাপ্রাপ্তি নিশ্চিত করতে সোলার প্যানেলও বিতরণ করেন। প্রধানমন্ত্রী দাশিয়ারছড়াবাসীকে উদ্দেশ করে বলেছেনÑ সাবেক ছিটমহলবাসীর উন্নয়নে যা যা করার দরকার সবকিছুই সরকার করবে। সাবেক ছিটমহলগুলোর হাজার হাজার অধিবাসী ৬৮ বছর যাবৎ জিম্মি অবস্থায় মানবেতর জীবনযাপন করেছেন। খাতাপত্রে তারা দেশবিশেষের নাগরিক হলেও তাদের কোনো নাগরিক অধিকার ছিল না। বাদবাকি দুনিয়া থেকেও তারা ছিলেন বিচ্ছিন্ন। ১৯৪৭ সালের পর থেকে ছিটমহলবাসী পরিচয়টিই ছিল অপমানের আর লাঞ্ছনার। ভারত ও বাংলাদেশের ছিটমহল বিনিময়ের মাধ্যমে ছিটমহলবাসী শুধু নতুন নাগরিক পরিচয় ফিরে পাননি, পেয়েছেন মানবিক অধিকারেরও নিশ্চয়তা। ৬৮ বছর ধরে উন্নয়নের ধারা থেকে  পিছিয়ে থাকা সাবেক ছিটমহলগুলোর উন্নয়নে বাড়তি পদক্ষেপ সরকারের কর্তব্য বলে বিবেচিত হওয়া উচিত। আশার কথা, সরকার যে এ ব্যাপারে সচেতন তার প্রমাণ রাখা হয়েছে প্রধানমন্ত্রীর দাশিয়ারছড়া সফরকালে ওই এলাকার সব বাড়িতে বিদ্যুৎ সংযোগদানের বৈপ্লবিক পদক্ষেপে। আমরা সরকারের এ উদ্যোগকে অভিনন্দন জানাই এবং আশা করতে চাই শুধু দাশিয়ারছড়া নয়, অন্য সব ছিটমহলের ক্ষেত্রেও একই ধরনের পদক্ষেপ নেওয়া হবে। তাদের শিক্ষা, স্বাস্থ্য, বাসস্থানসহ সব মৌলিক অধিকার নিশ্চিত করতেও নেওয়া হবে নানামুখী উদ্যোগ।


আপনার মন্তব্য