শিরোনাম
প্রকাশ : বুধবার, ২৭ ডিসেম্বর, ২০১৭ ০০:০০ টা
আপলোড : ২৭ ডিসেম্বর, ২০১৭ ০০:১০

ধ্রুপদী সংগীত আসরের দ্বিতীয় দিন

পান্থ আফজাল

ধ্রুপদী সংগীত আসরের দ্বিতীয় দিন
Google News

গতকাল থেকে ধানমন্ডির আবাহনী মাঠে ষষ্ঠবারের মতো বসেছে ধ্রুপদী সংগীতের সবচেয়ে বড় আসর ‘বেঙ্গল উচ্চাঙ্গ সংগীত উত্সব-২০১৭’। উত্সবের আয়োজনে রয়েছে বেঙ্গল ফাউন্ডেশন। আজ বিশ্বের বৃহত্তম উচ্চাঙ্গ সংগীত আসরের দ্বিতীয় দিন। আজকের আসর শুরু হবে একই সময়ে। কথক নৃত্য দিয়ে শুরু হবে আজকের উত্সব। অদিতি মঙ্গলদাস ড্যান্স কোম্পানি কথক পরিবেশনায় অংশ নেবে। তবলা দিয়ে আসর মাতাবে বেঙ্গল পরম্পরা সংগীতালয়। প্রতি বছরের মতো মঞ্চে সন্তরের ঝংকারে আবিষ্ট করবেন পণ্ডিত শিবকুমার শর্মা। এরপর একে একে খেয়াল পরিবেশন করবেন পণ্ডিত উলহাস কশলকর, সেতারে ওস্তাদ শাহিদ পারভেজ খান, ধ্রুপদে অভিজিত কুণ্ডু এবং বেঙ্গল পরম্পরা সংগীতালয়ের শিক্ষার্থীরা। সুরের মায়াডোরে আবেশ ছড়াবে পণ্ডিত রনু মজুমদারের বাঁশি। দ্বিতীয় দিনের আসরের পরিসমাপ্তি টানতে মঞ্চে সরোদ পরিবেশনা নিয়ে আসবেন পণ্ডিত দেবজ্যোতি বোস। এই উত্সবের প্রথম দিনের আয়োজনে ছিল সেতার, সরোদ, খেয়াল, ধ্রুপদ ও নৃত্য পরিবেশনা। উত্সবের উদ্বোধনী শুরু হয় পাশ্চাত্যের ধ্রুপদী ধারার সংগীতের মাধ্যমে আর উত্সবের সমাপ্তি ঘটবে পণ্ডিত হরিপ্রসাদ চৌরাসিয়ার বাঁশির সুরে। উদ্বোধনী মঞ্চে সংগীত পরিবেশন করেন উপমহাদেশের বরেণ্য শিল্পীরা। উত্সবে নৃত্য পরিবেশন করেন বাংলাদেশের পাঁচজন প্রতিভাবান নবীন নৃত্যশিল্পী সুইটি দাশ, অমিত চৌধুরী, স্নাতা শাহরিন, সুদেষ্ণা স্বয়ংপ্রভা তাথৈ ও মেহরাজ হক। উদ্বোধনী সন্ধ্যায় কাজাখস্তানের ৫৮ সদস্যের আস্তানা সিম্ফনি ফিলহারমনিক অর্কেস্ট্রার সঙ্গে যুগল পরিবেশনায় অংশ নেন গ্র্যামি মনোনীত প্রখ্যাত বেহালাশিল্পী পদ্মভূষণ এল সুব্রাহ্মণ্যন। গত পাঁচ বছর ধরে নিয়মিত শাস্ত্রীয় সংগীতের এই অনুষ্ঠানটি রাজধানীর আর্মি স্টেডিয়ামে হয়ে এলেও এ বছর ভেন্যু না পেয়ে পরে অনুষ্ঠিত হচ্ছে আবাহনী মাঠে।