শিরোনাম
প্রকাশ : শনিবার, ১ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ০০:০০ টা
আপলোড : ৩১ জানুয়ারি, ২০২০ ২২:৫২

ভালোবাসা দিবসে একঝাঁক নাটকে তারা...

আলী আফতাব

ভালোবাসা দিবসে একঝাঁক নাটকে তারা...

উৎসবের দিনগুলোতে পরিচালক ও অভিনেতা-অভিনেত্রীদের ব্যস্ততার কমতি থাকে না। বছরের দুই ঈদের পর সবচেয়ে বেশি নাটক নির্মাণ হয় ভালোবাসা দিবসে। তেমনি আগামী ভালোবাসা দিবসকে সামনে রেখে টেলিভিশনের পাশাপাশি বিভিন্ন প্লাটফর্মের জন্য নাটক নির্মাণ করছেন পরিচালকরা। পাশাপাশি শুটিংয়ের এক স্পট থেকে আরেক স্পটে দৌড়াচ্ছেন ছোট পর্দার তারকারা। একেক পরিচালকের হাতে একেক ধরনের ভালোবাসার গল্প। সে সব নাটকের শুটিংয়ে কেউ ঢাকায়, কেউ দেশের বাইরে ব্যস্ত। এবারের ভালোবাসা দিবসে এখন পর্যন্ত অভিনয়ের দিক থেকে এগিয়ে মেহ্জাবীন। মেহ্জাবীন জানালেন, এখন যে কাজগুলো করছেন, সেগুলোর সবই ভালোবাসা দিবসকে কেন্দ্র করে। তিনি বলেন, ‘ভালোবাসার গল্পের মধ্যে ডুবে আছি। তাই অন্য কোনো বিষয় নিয়ে ভাবতেও পারছি না। এভাবে হয়তো চলবে আরও কয়েকটা দিন।’

এ বছর ভালোবাসা দিবসে ১৫টির মতো নাটকে দেখা যাবে মেহ্জাবীনকে। কোনো নাটকে তাঁর সহশিল্পী অপূর্ব নয়তো নিশো, কোনোটিতে তৌসিফ মাহবুব। আবার কোনোটিতে ইরফান সাজ্জাদ। মেহ্জাবীন জানান, ভালোবাসা দিবসের নাটকের শুটিং শেষ হলেই শুরু করবেন বাংলা নববর্ষ ও ঈদুল ফিতরের নাটক।

গত বছরের ভালোবাসা দিবসে নির্মিত কয়েকটি নাটক এ বছর ভালোবাসা দিবসে প্রচার হতে পারে বলে জানালেন তানজিন তিশা। সব মিলিয়ে ১২টি নাটকে দেখা যেতে পারে তাঁকে। এ অভিনয়শিল্পী বলেন, ‘দর্শক আমাকে যে ধরনের গল্পের নাটকে দেখতে পছন্দ করেন, আমি তেমন কয়েকটি গল্পে অভিনয় করেছি।’ গতকাল শুটিং স্পট থেকে অপূর্ব জানান, ভালোবাসা দিবসে তাঁকে দেখা যাবে দুটি নাটকে। একটিতে তাঁর সঙ্গে থাকবেন মম, অন্যটিতে মেহ্জাবীন। সাম্প্রতিক সময়ে অভিনয়ে তরুণদের মধ্যে এগিয়ে আছেন তাসনিয়া ফারিন। নতুন প্রজন্মের এ অভিনয়শিল্পীকে দেখা যাবে ১০টি নাটকে। ফারিন জানান, সেই নাটকগুলো রোমান্টিক, সিরিয়াস ও ট্র্যাজেডি ঘরানার। একই ধরনের প্রেমের গল্পে অভিনয় করেননি তিনি। তিনি বলেন, ‘আমার অভিনীত নাটকগুলোতে সহশিল্পী নির্বাচিত হয়েছে সুষমভাবে। অর্থাৎ মোশাররফ করিম, জোভান, ফারহানের সঙ্গে দুটি করে নাটকে অভিনয় করেছি।’

এ ছাড়া বর্তমান সময়ে ছোটপর্দার আরও একটি জনপ্রিয় মুখ সারিকা সাবাহ। ধারাবাহিক নাটক ‘ফ্যামিলি ক্রাইসিস’ নাটকের ঝুমুর চরিত্রে অভিনয় করে এরই মধ্যে সবার নজরে এসেছেন। এখন এ অভিনেত্রীর ব্যস্ততা ভালোবাসা দিবসের নাটককে কেন্দ্র করে। এরই মধ্যে ভালোবাসা দিবসের পাঁচটি নাটকে অভিনয় করেছেন তিনি। তার মধ্যে আলক হাসানের ‘জয় অব লাভ’ ‘মফিজ’ ও ‘ক্রাইসিস’। কাজল আরেফিন অমির ‘হঠাৎ দেখা’। এ ছাড়া ভিকি জাহিদের ‘অ্যাকটিং’ ও প্রাণের ভালোবাসা গল্পে অভিনয় করতে দেখা যাবে তাকে।

নাটক ও টেলিছবি এখন শুধু টেলিভিশনে নয়, দেখা যাবে ইউটিউবসহ অন্য ওয়েব প্লাটফর্মেও। ডিজিটাল এসব প্লাটফর্ম জনপ্রিয় হয়ে ওঠার কারণে ভালোবাসা দিবসের মতো বিশেষ দিনগুলোর জন্য নাটক তৈরি বেড়ে গেছে। টেলিভিশনের বাইরে সিডি চয়েজ, সিএমভি, বঙ্গবিডি, ধ্রুব টিভি, লাইভ টেক, সিনেমাওয়ালা, গানের ডালিসহ অনেক ইউটিউব চ্যানেলে দেখা ুৃযাবে ভালোবাসা দিবসের নাটক।


আপনার মন্তব্য