প্রকাশ : সোমবার, ২২ জুলাই, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ২২ জুলাই, ২০১৯ ০০:০১

প্রিয়ার দেশে ফিরতে বাধা নেই

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রিয়ার দেশে ফিরতে বাধা নেই

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, প্রিয়া সাহা কেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের কাছে বাংলাদেশে ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের ওপর নির্যাতনের অভিযোগ করেছেন সেই ব্যাখ্যা না শুনে তড়িঘড়ি কোনো আইনি ব্যবস্থায় না যেতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নির্দেশ দিয়েছেন। তার দেশে ফিরতে বাধা নেই। গতকাল আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে ঢাকা মেট্রোরেল নেটওয়ার্কের সময়বদ্ধ পরিকল্পনার ব্র্যান্ডিং বিষয়ক সেমিনার শেষে তিনি এ কথা বলেন। প্রিয়া সাহা রাষ্ট্রদ্রোহিতার অপরাধ করেছেন মন্তব্য করে গত শনিবার তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার কথা বলেছিলেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। কিন্তু গতকাল সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, দেশের বাইরে গিয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্টের কাছে এ ধরনের বক্তব্য (তিনি) কেন দিয়েছেন, সেটা দেশে ফিরে এলে আমার মনে হয় তারও আত্মপক্ষ সমর্থনের সুযোগ থাকা উচিত। প্রধানমন্ত্রী আমাদের লিডার, গতরাতে তিনি আমাকে মেসেজ পাঠিয়ে জানিয়েছেন, তড়িঘড়ি করে সিদ্ধান্ত নেওয়ার কোনো প্রয়োজন নেই। প্রিয়া সাহা আসলে কী বলেছেন, কী বলতে চেয়েছেন তার একটি পাবলিক স্টেটমেন্ট করা উচিত, তারও আত্মপক্ষ সমর্থনের একটা সুযোগ থাকা উচিত। তার আগে কোনো প্রকার মামলা বা আইনি প্রক্রিয়া শুরু না করতে প্রধানমন্ত্রী নির্দেশ দিয়েছেন। তিনি বলেন, সরকারের অনুমতি ছাড়া রাষ্ট্রদ্রোহিতার মামলা করা যায় না। অভিযোগের বিষয়ে প্রিয়া সাহার বক্তব্য জানার আগে তার বিরুদ্ধে কোনো পদক্ষেপ নেওয়া হবে না। মুক্তিযুদ্ধ বিষয়কমন্ত্রীর আজ (রবিবার) একটা মামলা করার কথা ছিল, তাকে আমি জানিয়েছি এ ধরনের মামলার প্রসিডিং শুরু না করতে এবং আইনমন্ত্রীর সঙ্গেও এ ব্যাপারে কথা হয়েছে। এ ছাড়া প্রিয়া সাহার ব্যক্তিগত বাড়িঘর সম্পদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে প্রধানমন্ত্রীর মেসেজ জানিয়ে দিয়েছি। মার্কিন রাষ্ট্রদূত আমার বক্তব্য শুনেছেন এবং প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য আমি তাকে বলেছি, হি ইজ ভেরি হ্যাপি। আমাদের ভাবনার সঙ্গে পজিটিভলি রেসপন্স করেছেন। বর্তমান প্রেক্ষাপটে প্রিয়া সাহার দেশে ফেরার বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, সে তার দেশে আসবে না কেন। এখানে হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের রানা দাসগুপ্তের সঙ্গে কথা হয়েছে। এই বক্তব্য তার ব্যক্তিগত কমেন্ট, এর সঙ্গে পরিষদের কোনো সম্পর্ক নেই।


আপনার মন্তব্য