Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ২২ জুলাই, ২০১৯ ২৩:৫৫

প্রিয়া সাহাকে নিয়ে বাড়ছে ধূম্রজাল

হিন্দু-বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদ থেকে বহিষ্কার, সুমনের বিরুদ্ধে ডিজিটাল আইনে মামলা

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রিয়া সাহাকে নিয়ে বাড়ছে ধূম্রজাল

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের কাছে নালিশ জানিয়ে বিতর্কিত প্রিয়া সাহাকে নিয়ে ধূম্রজাল এখনো কাটছে না। কী উদ্দেশ্যে  দেশের বিরুদ্ধে তিনি এ ধরনের নালিশ দিয়ে জটিলতা তৈরি করলেন তা এখনো পরিষ্কার নয়। এই কাজে তাকে কেউ ব্যবহার করেছে, না তিনি নিজেই উদ্দেশ্যপ্রণোদিত হয়ে এ ধরনের উসকানিমূলক বক্তব্য দিয়েছেন তা নিয়ে চলছে জল্পনা। সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্ট করা প্রিয়া সাহার এহেন কর্মকা কে হালকাভাবে দেখার সুযোগ নেই বলে মনে করছেন আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী-সংশ্লিষ্টরা। তাদের মতে, প্রিয়া সাহার বক্তব্য  দেশের বিভিন্ন সম্প্রদায়ের মধ্যে সন্দেহ-অবিশ্বাস বাড়িয়ে তুলেছে। তাই দেশে ফিরলে তাকে জিজ্ঞাসাবাদের কোনো বিকল্প নেই। অবশ্য দেশে ফিরলে প্রিয়া সাহাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

এদিকে, হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদ থেকে প্রিয়া সাহাকে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছে। গতকাল পরিষদের প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, তাদের স্থায়ী কমিটির এক জরুরি সভায় সংগঠনের অন্যতম সাংগঠনিক সম্পাদক প্রিয়া সাহা (প্রিয়া বালা বিশ্বাস)-কে পরিষদের শৃঙ্খলাবিরোধী কাজের জন্য সাময়িক বহিষ্কার করে সাংগঠনিক দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে। এ সিদ্ধান্ত অনতিবিলম্বে কার্যকর হবে। ঐক্য পরিষদের কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত এই সভায় সভাপতিত্ব করেন ঐক্য পরিষদের সভাপতিম লীর সদস্য ও প্রতিষ্ঠাতা সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক ড. নিমচন্দ্র ভৌমিক। আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের গতকাল সচিবালয়ে বলেছেন, মার্কিন  প্রেসিডেন্টের কাছে এ ধরনের বক্তব্যের লক্ষ্য আমাদের দেশকে  ছোট করা। এটা একটা কাল্পনিক বক্তব্য, উদ্দেশ্যপ্রণোদিত বক্তব্য। আমরা রয়েসয়ে অগ্রসর হচ্ছি, মশা মারতে আমরা কামান দাগাতে চাই না। প্রিয়া সাহার এসব বক্তব্য দেওয়ার পেছনে ‘অন্য কারও হাত’ আছে কিনা সরকার তা খতিয়ে দেখছে জানিয়ে কাদের বলেন,  তিনি যখন দেশে ফিরবেন, তখন তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে যে তিনি কী উদ্দেশ্যে বলেছেন, কেন বলেছেন, কী ইনফরমেশনের ভিত্তিতে বলেছেন- সেটা তাকে অবশ্যই ব্যাখ্যা করতে হবে। তিনি বলেন, বাংলাদেশ থেকে তিন কোটি ৭০ লাখ মাইনরিটি মানুষ- এ ধরনের উদ্ভট-কাল্পনিক বক্তব্য উনি কেন দিলেন, কেমন করে দিলেন? প্রিয়ার এ বক্তব্যে সারা দেশে ‘বিভ্রান্তি’ তৈরি হয়েছে উল্লেখ করে কাদের বলেন, প্রিয়া সামান্য ব্যক্তি হলেও তো উড়িয়ে দেওয়া যায় না। উনি এনজিও সংগঠনের  নেতৃত্ব দেন, আবার হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের অ্যাপেক্স বডির অর্গানাইজিং সেক্রেটারি। কাজেই এটাকে আমরা তো তুচ্ছ জ্ঞান করতে পারি না। কারও প্ররোচনায় করেছেন কিনা, পেছনে  কোনো রাজনৈতিক মতলব আছে কিনা, উসকানি আছে কিনা, বিষয়টা আমাদের জানতে হবে। আমরা বিষয়টার গভীরে যাচ্ছি, সবকিছু জেনেশুনে আমরা সিদ্ধান্ত নিতে চাই।

বিচার দাবি হিন্দু-বৌদ্ধ ও খ্রিস্টান ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টের : প্রিয়া সাহার বিচার দাবি করেছে হিন্দু বৌদ্ধ ও খ্রিস্টান ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্ট। গতকাল জাতীয় প্রেস ক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে কল্যাণ ট্রাস্টের ভাইস চেয়ারম্যান সুব্রত পাল এ বিচার দাবি করেন। সুব্রত পাল বলেন, ‘মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের কাছে প্রিয়া সাহার অভিযোগ বাস্তবসম্মত নয়। ৩ কোটি ৭০ লাখ হিন্দু, বৌদ্ধ ও খ্রিস্টান ধর্মাবলম্বী মানুষ নিখোঁজ হয়েছে, এ তথ্য বানোয়াট, অসত্য ও উদ্দেশ্যপ্রণোদিত। দেশের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে অন্য দেশের কাছে বিচার চাওয়া গ্রহণযোগ্য হতে পারে না। আমরা সম্মিলিতভাবে প্রিয়া সাহার বক্তব্যের তীব্র প্রতিবাদ ও নিন্দা জ্ঞাপন করছি।’  সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন বৌদ্ধ ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টের ভাইস চেয়ারম্যান সুপ্ত ভূষণ বড়ুয়া, খ্রিস্টান ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টের ট্রাস্টি ও সচিব নির্মল রোজারিও প্রমুখ।

ব্যারিস্টার সুমনের বিরুদ্ধে মামলা : প্রিয়া সাহার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহ মামলা আরজি করা ব্যারিস্টার সৈয়দ সায়েদুল হক সুমনের বিরুদ্ধে হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের কটূক্তি ও ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত হানার অভিযোগে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা করা হয়েছে। গতকাল বাংলাদেশ সাইবার ট্রাইব্যুনালের বিচারক আস-শামস জগলুল হোসেনের আদালতে গৌতম কুমার নামে ভাসানটেকের এক সমাজসেবক এ মামলাটি করেন। আদালত বাদীর জবানবন্দি গ্রহণ শেষে ভাসানটেক থানার পুলিশের পরিদর্শককে ৩০ কার্যদিবসের মধ্যে তদন্ত করে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দেন। মামলার আরজিতে বলা হয়, সোশ্যাল মিডিয়ায় ব্যারিস্টার সুমনের অশ্লীল অবমাননাকর ও অরুচিপূর্ণ বক্তব্যের ফলে রাষ্ট্র ও হিন্দু সমাজের ভাবমূর্তি ক্ষুণœ হয় এবং ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত করে। কিন্তু এ ব্যাপারে ব্যারিস্টার সুমন আগে থেকেই বলে আসছেন তার নামে চালানো ওই ফেসবুক আইডিটি ভুয়া। তিনি গত ২০ জুলাই তার ভেরিফায়েড ফেসবুকে লেখেন, ‘আমার নাম ব্যবহার করে একটি ফেক পেজ হিন্দু সম্প্রদায়ের বিরুদ্ধে বিষোদগার করছে। আমি এ বিষয়টি পুলিশকে জানিয়েছি। আপনারা সচেতন থাকবেন।

কুমিল্লায় প্রিয়া সাহার বিরুদ্ধে ছাত্রলীগ নেতার মামলা : কুমিল্লা প্রতিনিধি জানান, ট্রাম্পের কাছে ‘বাংলাদেশি সংখ্যালঘুরা নিপীড়নের শিকার হচ্ছে- এমন দেশদ্রোহী মন্তব্য করার অভিযোগে প্রিয়া সাহার বিরুদ্ধে কুমিল্লার আদালতে রাষ্ট্রদ্রোহের একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। সোমবার কুমিল্লার সিনিয়র জুড়িশিয়াল ম্যাজেস্ট্রেট ১নং আমলি আদালতের বিচারক সোহেল রানার আদালতে মামলাটি দায়ের করেন কুমিল্লা মহানগর ছাত্রলীগ নেতা ও মহানগর ১১নং ওয়ার্ড ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মো. মোস্তফা কামাল। বাদী পক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট শরীফুল ইসলাম জানান, মামলার বিষয়ে আদালত এখনো কোনো আদেশ দেননি।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর