শিরোনাম
প্রকাশ : শনিবার, ২৮ মার্চ, ২০২০ ০০:০০ টা
আপলোড : ২৭ মার্চ, ২০২০ ২৩:২৩

অকারণে সাধারণ মানুষকে হয়রানি নয়

নিজস্ব প্রতিবেদক

অকারণে সাধারণ মানুষকে হয়রানি নয়

তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তির দিনে হাজার হাজার লোকের জমায়েত করে দলটি চরম দায়িত্বহীনতার পরিচয় দিয়েছে। তিনি গতকাল দুপুরে রাজধানীর মিন্টো রোডের সরকারি বাসভবনে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপ করছিলেন। হাছান মাহমুদ বলেন, করোনা মোকাবিলায় দেশের মানুষ যখন ঘরের মধ্যে অবস্থান করছে, তখন আমরা দেখতে পেলাম গত বুধবার খালেদা জিয়া মুক্তিলাভের সময় বঙ্গবন্ধু মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালের সামনে হাজার হাজার মানুষের জমায়েত করেছেন, গুলশানে তাঁর বাড়ির সামনে হাজার হাজার লোকের জমায়েত হয়েছে, পথে হাজার হাজার লোকের জমায়েত হয়েছে। তিনি বলেন, মহান স্বাধীনতা দিবসের সমস্ত অনুষ্ঠান বাতিল করা হয়েছে, সেখানে বিএনপির পক্ষ থেকে এ ধরনের হাজার হাজার লোকের জমায়েত করা চরম দায়িত্বহীনতার পরিচয় ছাড়া অন্য কিছু নয়। তথ্যমন্ত্রী বলেন, পৃথিবী এখন একটি বৈশ্বিক রোগ মোকাবিলা করছে, এই সময়ে আমরা কোনো রাজনৈতিক বাদানুবাদ চাই না। আমরা আশা করব বিএনপিসহ অন্যান্য রাজনৈতিক দল মিলে আমরা ঐক্যবদ্ধভাবে জনগণের পাশে থাকব। ঐক্যবদ্ধ চেষ্টায় নিশ্চয়ই আমরা এ সংকট মোকাবিলা করতে পারব। মানুষ প্রয়োজনে রাস্তায় নামলে পুলিশের হয়রানির শিকার রোধে সরকারের কোনো ভাবনা আছে কিনা- এমন প্রশ্নের জবাবে তথ্যমন্ত্রী বলেন, প্রথমত দেশ তো লকডাউন করা হয়নি। সুতরাং রাস্তায় অহেতুক ঘোরাফেরা না করার জন্য সরকারের পক্ষ থেকে, প্রশাসনের পক্ষ থেকে পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। রাস্তায় যে কেউ প্রয়োজনে যেতেই পারেন। গেলেই তাকে হয়রানির সম্মুখীন হওয়া অত্যান্ত দুঃখজনক, এটি করার জন্য পুলিশকে বলা হয়নি। গতকালও পুলিশ হেডকোয়ার্টার থেকে পুলিশের মাঠ পর্যায়ের সবাইকে বলা হয়েছে, প্রয়োজনে যে কেউ ঘর থেকে বের হতে পারে। কিন্তু অপ্রয়োজনে যদি কেউ বের হয় তবে তাদের বুঝিয়ে ঘরে পাঠিয়ে দেওয়ার জন্য পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

সুতরাং কেউ ঘর থেকে বের হলেই হয়রানি করা ঠিক নয়। এ ব্যাপারে মাঠ প্রশাসনকে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

এক প্রশ্নের জবাবে তথ্যমন্ত্রী বলেন, বিশ্বে স্বাস্থ্য খাতের গবেষণায় সরকারি পর্যায়ে মোট বার্ষিক ব্যয় ২ দশমিক ৩ বিলিয়ন মার্কিন ডলার, যা কয়েকটি যুদ্ধবিমানের মূল্যের সমান।

হাছান মাহমুদ জানান, করোনা মোকাবিলার এই সময়ে সরকার নিম্নবিত্তের মানুষের জন্য ১০ টাকা কেজি দরে চাল বিক্রির সিদ্ধান্ত নিয়েছে। দ্রুত এ কার্যক্রম শুরু হবে।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর