শিরোনাম
প্রকাশ : রবিবার, ২৯ নভেম্বর, ২০২০ ০০:০০ টা
আপলোড : ২৯ নভেম্বর, ২০২০ ০১:১৯

চীনের বিজ্ঞানীদের দাবি, করোনার সূচনা বাংলাদেশ-ভারতে

নাকচ বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার

প্রতিদিন ডেস্ক

চীনের বিজ্ঞানীদের একটি অংশ দাবি করছে, বাংলাদেশ ও ভারতে প্রথম মানুষ থেকে মানুষে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঘটেছে। সংক্রমণ ঘটার সম্ভাব্য সময় গত বছর জুলাই থেকে আগস্টের মধ্যে।

করোনাভাইরাসের জিন বিশ্লেষণের তথ্য ব্যবহারের দাবি করে চীনের তিন বিজ্ঞানী বলছেন, চীনের উহানে প্রথম সংক্রমণ ঘটেনি। প্রভাবশালী জনস্বাস্থ্য ও চিকিৎসা সাময়িকী ল্যানসেটের প্রাক-প্রকাশনা অনলাইন প্ল্যাটফর্মে এ বিষয়ে প্রবন্ধ প্রকাশ করা হয়েছে। এ প্রবন্ধ উদ্ধৃত করে গত শুক্রবার ব্রিটিশ সংবাদপত্র দ্য সান বলেছে, উহানের দোষ এখন বাংলাদেশ বা ভারতের ওপর চাপানোর চেষ্টা হচ্ছে। চীনের বিজ্ঞানীরা উল্লেখ করেছেন, সবচেয়ে কম রূপান্তর ঘটেছে, এমন স্ট্রেইন বা ধরনই করোনাভাইরাসের প্রথম জিন বা তারাই আদি ভাইরাস। কম রূপান্তর ঘটেছে, এমন করোনাভাইরাসের জিন পাওয়া গেছে বাংলাদেশ, যুক্তরাষ্ট্র, গ্রিস, অস্ট্রেলিয়া, ভারত, ইতালি, চেক প্রজাতন্ত্র ও রাশিয়ায়। এর মধ্যে সবচেয়ে কম রূপান্তর ঘটেছে ভারতে ও বাংলাদেশে। এ দুটি দেশের ভাইরাসের রূপান্তরের ক্ষমতাও কম। চীনের বিজ্ঞানীরা অবশ্য বলেছেন, এখন পর্যন্ত করোনাভাইরাসের ব্যাপারে অনেক রহস্য আছে। প্রকৃতিতে কোন প্রাণী এ ভাইরাস বহন করে, তা না জানা গেলে এর উৎপত্তি সম্পর্কে নিশ্চিত হওয়া যাবে না। এদিকে চীনের বিজ্ঞানীদের এ দাবিকে পুরোপুরি অনুমাননির্ভর বলে জানিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। গত শুক্রবার সংস্থাটির নির্বাহী পরিচালক মাইক রায়ান এক ভার্চুয়াল ব্রিফিংয়ে বলেন, ‘চীন থেকে করোনাভাইরাসের উৎপত্তি হয়নি, এমন কথা বলা আমাদের জন্য একেবারে অনুমাননির্ভর হবে।’


আপনার মন্তব্য