শিরোনাম
প্রকাশ : বুধবার, ২৮ এপ্রিল, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ২৭ এপ্রিল, ২০২১ ২৩:২৭

মাস্ক না পরলে বেতের বাড়ি!

নিজস্ব প্রতিবেদক

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে ঘরের বাইরে মাস্ক না পরলে কঠোর আইনি ব্যবস্থার দিকে যাচ্ছে সরকার। একই সঙ্গে পুলিশকে পেটানোর ক্ষমতাও দিতে যাচ্ছে সরকার। আর সেটি আইনি কাঠামোর মধ্যে নিয়ে আসা হচ্ছে। গতকাল বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সরকারের একজন দায়িত্বশীল কর্মকর্তা।

তিনি জানান, বিষয়টি যেকোনো আইনের মধ্যে সংযোজন করে বাস্তবায়ন করা হবে। উদ্দেশ্য করোনা সংক্রমণ রোধ করা।

গত সোমবার মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলামের সভাপতিত্বে সরকারের উচ্চপর্যায়ের  বৈঠকে ‘লকডাউন’ বাড়ানোর সিদ্ধান্তের সময় মাস্ক পরার বিষয়টি নিশ্চিত করতে বিষয়টি আলোচনায় আসে। বৈঠক শেষে সরকারি তথ্য বিবরণীতে বলা হয়, ঘরের বাইরে মাস্ক ব্যবহার না করলে কঠোর আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে। কোনো জরুরি কাজে কেউ ঘরের বাইরে গেলে করোনাভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে তাকে মাস্ক ব্যবহার করার জন্য সরকার বারবার নির্দেশনা দিয়েছে। কিন্তু লক্ষ্য করা যাচ্ছে, অনেকেই এ নিদের্শনা অমান্য করছেন। এক্ষেত্রে বাইরে চলাফেরার সময় মাস্ক ব্যবহার না করলে সরকার কঠোর আইনি ব্যবস্থা নেবে। প্রয়োজনে প্রত্যেককে দুটো মাস্ক ব্যবহার করার জন্য পরামর্শ দিচ্ছে সরকার। সরকারের এক কর্মকর্তা বলেন, মাস্ক না পরলে শাস্তি কী? এর উত্তরে অন্য এক কর্মকর্তা বেতের বাড়ির প্রস্তাব করেন। কিন্তু প্রচলিত আইনে বেতের বাড়ি দেওয়ার সুযোগ নেই। এর পরিপ্রেক্ষিতে আরেকজন আলোচক প্রয়োজনে আইনি সুযোগ তৈরির প্রস্তাব করেন। ওই কর্মকর্তা আরও বলেন, এরই পরিপ্রেক্ষিতে বেতের বাড়ির বিষয়টি কীভাবে আইনি পরিকাঠামোয় আনা হবে, তা ভাবা হচ্ছে। এ নিয়ে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের বৈঠকে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। তিনি বলেন, জরুরি জনস্বার্থ বিষয়ক প্রয়োজনে সরকার বেতের বাড়ি দেওয়ার বিধান আইনে যুক্ত করতে পারে। সংক্রামকব্যাধি নিয়ন্ত্রণ আইন বা অন্য কোনো আইনে তার বৈধতা দেওয়া হবে।