বুধবার, ২৮ জুলাই, ২০২১ ০০:০০ টা

অ্যাথলেটদের উদ্দেশে ড. ইউনূস যা বললেন

নিজস্ব প্রতিবেদক

অ্যাথলেটদের উদ্দেশে ড. ইউনূস যা বললেন

টোকিও অলিম্পিকের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে শান্তিতে নোবেলজয়ী প্রফেসর মুহাম্মদ ইউনূসের ভাষণের সময় জাপানের ৪৭ শতাংশ দর্শক টেলিভিশন দেখছিলেন। ইয়াহু নিউজ জাপান-এ প্রকাশিত তোশিবার একটি রিপোর্টের বরাত দিয়ে ইউনূস সেন্টার এ তথ্য জানিয়েছে। গতকাল পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়, পৃথিবীর সব দেশের পরিস্থিতি  জাপানের মতো হয়ে থাকলে এ কথা বলা যায় যে, এ সময় বিশ্বের ৩২০ কোটি লোক প্রফেসর ইউনূসের বক্তৃতা শুনছিলেন। নোবেল লরিয়েট প্রফেসর মুহাম্মদ ইউনূস অলিম্পিক লরেল গ্রহণোত্তর বক্তৃতায় সব অ্যাথলেটদের তিন শূন্যের পৃথিবী গড়ার আহ্বান জানান। তাঁর তিন শূন্যের ব্যাখ্যায় তিনি জানান যে এই তিন শূন্য হবে : শূন্য নীট কার্বন নিঃসরণ, শূন্য সম্পদ কেন্দ্রীভূতকরণ যার মাধমে দারিদ্র্য চিরতরে দূর করা সম্ভব হবে, এবং শূন্য বেকারত্ব- প্রতিটি মানুষকে তার উদ্যোক্তা হওয়ার শক্তিকে বিকশিত করার মাধ্যমে।

তাঁর বক্তৃতার পর যখন বিভিন্ন দেশের খেলোয়াড়দের প্রতিনিধি দল তাঁদের পরিচিতির জন্য মাঠে আসতে আরম্ভ করেন তখন দর্শক রেটিং দ্রুত হ্রাস পায়। এই খেলোয়াড় পরিচিতি অনুষ্ঠানে পৃথিবীর দুই শতাধিক দেশের খেলোয়াড়রা অংশগ্রহণ করেন।

ইয়াহু নিউজ জাপান-এর প্রতিবেদনে বলা হয়েছে টোকিও অলিম্পিকের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের দর্শক রেটিং রিও অলিম্পিকের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের চেয়ে তিন গুণ বেশি হয়েছে।

সারা জাপানে ক্রমাগতভাবে টিভি দর্শক সংখ্যা নিরূপণের জন্য তোশিবার অনুষ্ঠানটি ৩ লাখ ৪০ হাজার টেলিভিশনের স্যাম্পল সাইজের ভিত্তিতে তৈরি করা হয়েছে। এই অনুষ্ঠান প্রতি সেকেন্ডের জন্য দর্শক রেটিং নির্ধারণ করে দেয়। এর পর্যবেক্ষণ অনুযায়ী উদ্বোধনী অনুষ্ঠান সম্প্রচার শুরু হলে প্রথম ১০ মিনিটে ১০ শতাংশ টেলিভিশনে এই অনুষ্ঠান দেখা শুরু হয়। এরপর ক্রমাগতভাবে এর সংখ্যা বাড়তে থাকে। দর্শক সংখ্যা বাড়তে বাড়তে নোবেল লরিয়েট প্রফেসর ইউনূসের বক্তৃতার সময় এই সংখ্যা সর্বোচ্চ সংখ্যায় পৌঁছে। এ সময় ৪৭ শতাংশ টেলিভিশনে জাপানি দর্শকরা এই অনুষ্ঠান দেখছিলেন।