শিরোনাম
শনিবার, ১৩ মে, ২০২৩ ০০:০০ টা

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে পৃথক ঘটনায় গুলিবিদ্ধ হয়ে দুজন নিহত

কক্সবাজার প্রতিনিধি

কক্সবাজারের উখিয়া রোহিঙ্গা ক্যাম্পে পৃথক দুই ঘটনায় দুজন গুলিবিদ্ধ হয়ে নিহত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার মধ্যরাতে ও গতকাল বিকাল ৪টার দিকে পৃথক এ দুই ঘটনা ঘটে। কক্সবাজারে উখিয়ার রোহিঙ্গা আশ্রয় শিবিরে অজ্ঞাতনামা দুষ্কৃতকারীদের হামলায় গুলিবিদ্ধ হয়ে একজন নিহত ও একজন আহত হয়েছেন। নিহত কবির আহমদ (৩৫) উখিয়া উপজেলার কুতুপালং ৭ নম্বর রোহিঙ্গা আশ্রয় শিবিরের জি-ব্লকের বাসিন্দা আবুল হোসেনের ছেলে। গুলিবিদ্ধ নিহতের বন্ধু উখিয়া উপজেলার লম্বাশিয়া ২-ইস্ট নম্বর রোহিঙ্গা আশ্রয় শিবিরের সি-২ ব্লকের বাসিন্দা মোহাম্মদ আমিনের ছেলে মোহাম্মদ রফিক (৩০)। রোহিঙ্গা আশ্রয় শিবিরের নিরাপত্তায় নিয়োজিত ৮ আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়নের (এপিবিএন) অধিনায়ক অতিরিক্ত উপমহাপরিদর্শক (এডিআইজি) ছৈয়দ হারুনুর রশীদ জানান, বৃহস্পতিবার মধ্যরাতে উখিয়া উপজেলার পালংখালী ইউনিয়নের বালুখালী ৯ নম্বর রোহিঙ্গা আশ্রয় শিবিরের এ-১১ ব্লকে এ ঘটনা ঘটেছে। তবে কারা, কী কারণে এ খুনের ঘটনা ঘটিয়েছে তা এখনো নিশ্চিত নয় বলে জানিয়েছে এপিবিএন পুলিশ। স্থানীয়দের বরাতে ছৈয়দ হারুনুর রশীদ বলেন, বৃহস্পতিবার মধ্যরাতে উখিয়া উপজেলার বালুখালী ৯ নম্বর রোহিঙ্গা আশ্রয় শিবিরের এ-১১ ব্লকে অজ্ঞাতনামা ১০-১২ জন দুষ্কৃতকারী কবির আহমদকে হাত পিছমোড়া করে বেঁধে কয়েকটি গুলি ছোড়ে। এ সময় কবির আহমদের সঙ্গে থাকা বন্ধু মোহাম্মদ রফিকও গুলিবিদ্ধ হন। গোলাগুলির খবর শুনে এপিবিএন পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থলে পৌঁছলে দুষ্কৃতকারীরা পালিয়ে যায়। ঘটনাস্থল থেকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় দুই রোহিঙ্গাকে উদ্ধার করে স্থানীয় আইওএম হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক কবির আহমদকে মৃত ঘোষণা করেন। এডিআইজি ছৈয়দ হারুনুর রশীদ বলেন, প্রাথমিকভাবে রোহিঙ্গা আশ্রয় শিবিরে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে এ হত্যাকা ঘটেছে বলে জানা গেছে। ঘটনার প্রকৃত কারণ এখনো নিশ্চিত হওয়া যায়নি। নিহতের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।

অপরদিকে, উখিয়া রোহিঙ্গা ক্যাম্পে আরসা ও আরএসও সন্ত্রাসী গ্রুপের মধ্যকার গোলাগুলিতে এক যুবক নিহত হয়েছেন। গতকাল বিকাল ৪টার দিকে উখিয়ার পালংখালী জামতলী ক্যাম্প-১৫ এর ব্লক জি/৪-তে এ ঘটনা ঘটে। নিহত যুবকের নাম শুক্কুর রহমান (২২)। তিনি উখিয়ার পালংখালী জামতলী ক্যাম্প-১৫ এর ব্লক জি/৪ এর ফয়জুল করিমের ছেলে। তিনি আরএসওর সদস্য বলে প্রচার রয়েছে।

স্থানীয় রোহিঙ্গারা জানান, বিকাল ৪টার দিকে উখিয়ার ১৫ নম্বর ক্যাম্প জামতলী ব্লক ই/৩-তে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে আরসা ও আরএসও সন্ত্রাসীদের মধ্যে গোলাগুলি শুরু হয়। একপর্যায়ে শুক্কুর রহমান গুলিবিদ্ধ হয়ে ঘটনাস্থলেই নিহত হন। ৮ আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়নের (এপিবিএন) সহকারী পুলিশ সুপার ফারুক আহমদ বলেন, জামতলী রোহিঙ্গা ক্যাম্পে গোলাগুলিতে একজন নিহত হয়েছেন বলে শুনেছি। ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে।

সর্বশেষ খবর