শিরোনাম
প্রকাশ : শুক্রবার, ১৪ জুন, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৩ জুন, ২০১৯ ২১:৫৫

নিরাপদ থাকুক ঠোঁট

নিরাপদ থাকুক ঠোঁট
মডেল : ইসরাত বৃষ্টি
রোজ রোজ লিপস্টিক ব্যবহার করছেন ঠিকই। কিন্তু তা আপনার ঠোঁটের জন্য কতটা নিরাপদ ভেবে দেখেছেন কখনো। প্রয়োজন এখনই সচেতন হওয়া।

 

ঠোঁটকে আকর্ষণীয় ও মোহময়ী করে তুলতে আমরা যে প্রসাধনটি ব্যবহার করি, সেটি হলো লিপস্টিক। তবে লিপস্টিক ঠোঁটের সৌন্দর্য বাড়িয়ে তুললেও, অনেক ক্ষেত্রে এর কিছু পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া থাকে যা খুবই ভয়াবহ। সামান্য মাত্রায় লিপস্টিক ব্যবহার করলেও দীর্ঘদিনের ব্যবহারে এ লিপস্টিক থেকেই ঠোঁটের ত্বকে নানারকম সমস্যা দেখা দিতে পারে। তাই লিপস্টিক ব্যবহারের আগে একটু সতর্কতা অবলম্বন জরুরি। আর নিতে হবে ঠোঁটের নিয়মিত যত্ন। 

 

লিপস্টিকে ক্ষতিকর উপাদান

বাজারে সচারচার যেসব ননব্র্যান্ডের লিপস্টিক রয়েছে তাতে সিসা ও অন্যান্য ক্ষতিকর কেমিকেলের উপস্থিতি পাওয়া যায়। যদিও কোনো লিপস্টিকের ম্যানুফ্যাকচারিং এজেন্ট হিসেবে সিসার উল্লেখ থাকে না। তবে কয়েকটি গবেষণায় লিপস্টিকে সিসা থাকার ইঙ্গিত পাওয়া গেছে। শুধু সিসাই যে আপনার লিপস্টিকের খলনায়ক, তা নয়। এতে একাধিক ধাতুর উপস্থিতি লক্ষ্য করা যায়। বারবার জিভ দিয়ে চাটলে বা খাবারের সঙ্গে শরীরে ঢুকে গেলে একই সঙ্গে বেশ খানিকটা ধাতুও ঢুকে যায় শরীরে। কিছু ব্র্যান্ডের লিপস্টিকে কোবাল্ট, ক্যাডমিয়াম, টাইটেনিয়ামের মতো ধাতুও পাওয়া যায়। দিনভর এ ধরনের লিপস্টিক লাগিয়ে রাখলে শরীরে সমস্যা হওয়াটা বাঞ্চনীয়। তাই বাড়ি ফিরে প্রথমেই লিপস্টিক তুলে ফেলতে হবে। বিশেষ করে টকটকে লাল বা গাঢ় রঙের শেডে সবচেয়ে বেশি পরিমাণ ধাতব উপাদান থাকে। তাই গাঢ় রঙের লিপস্টিক ব্যবহারের আগে ব্র্যান্ডের নিশ্চয়তায় গুরুত্ব দিন। পার্টি বা বিয়ে বাড়িতে গেলে আজকাল বেশিরভাগ মেয়ে বেছে নেন লং লাস্টিং শেড। এমনকি রোজকার অফিসে যাওয়ার আগেও অনেকেই লং লাস্টিং শেড লাগিয়ে বের হন। এতে বারবার টাচ-আপের ঝামেলা থাকে না। কিন্তু লং লাস্টিং লিপস্টিকে কৃত্রিম স্টেবিলাইজার ব্যবহার করা হয় যা থেকে ক্যান্সার হওয়ার আশঙ্কা থাকে। গ্লিটারযুক্ত লিপ গ্লসেও থাকতে পারে অভ্র। এ ছাড়া লিপস্টিক ঠোঁটের স্বাভাবিক আর্দ্রতা শুষে নেয়।

যতই ক্ষতিকারক দিক থাকুক তবু রমণীরা লিপস্টিকের ওপর নির্ভরতা কমাতে পারে না। আর তাই ঠোঁটের সুস্থতা ধরে রাখতে দরকার সঠিক নিয়মের পরিচর্যা।

 

►  প্রথম করণীয় হিসেবে বেছে নিতে হবে নির্ভরযোগ্য ব্র্যান্ডের লিপস্টিক; যাতে ঠোঁটের ক্ষতি না হয়।

► ঘুমাতে যাওয়ার আগে ঠোঁটে খাঁটি গাওয়া ঘি লাগাতে পারেন। এতে ঠোঁটের ত্বক মসৃণ হবে, ক্ষতিকর প্রভাব থেকে রক্ষা করবে।

► ত্বকের মতো ঠোঁটের সুরক্ষায় গ্লিসারিন ও গোলাপজল চমৎকার উপকরণ। সমপরিমাণ গ্লিসারিন ও গোলাপজল একসঙ্গে মিশিয়ে প্রতিদিন ঠোঁটে লাগান।                                                                            

                                           

                                              পরামর্শক
                                  শারমিন সেলিম তুলি
                        রূপ বিশেষজ্ঞ, বিয়ার বিজবিডি

আপনার মন্তব্য

close