Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : ৯ ডিসেম্বর, ২০১৮ ১১:২০
আপডেট : ৯ ডিসেম্বর, ২০১৮ ১১:৩৭

ভয়ঙ্কর রূপ নিচ্ছে ‘ইয়েলো ভেস্ট’ আন্দোলন, বাড়ছে সহিংসতা

অনলাইন ডেস্ক

ভয়ঙ্কর রূপ নিচ্ছে ‘ইয়েলো ভেস্ট’ আন্দোলন, বাড়ছে সহিংসতা

ভয়ঙ্কর রূপ নিচ্ছে ফ্রান্সের ‘ইয়েলো ভেস্ট’ আন্দোলন। দেশটির প্রধানমন্ত্রী এদুয়ার্দ ফিলিপে বুধবার জানুয়ারিতে নতুন কর আরোপের পরিকল্পনা বাতিল ঘোষণার পরও বিক্ষোভ না কমে বরং বাড়ছে। জ্বালানি তেলের মূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে শুরু হওয়া এই আন্দোলনে বিক্ষোভকারীদের লক্ষ্য করে রাবার বুলেট পর্যন্ত ছোড়ার ঘটনা ঘটেছে। 

শনিবার সন্ধ্যায় রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে জাতির উদ্দেশ্যে দেয়া ভাষণে ফিলিপে বলেন, সরকারের ব্যবস্থাপনার পরও ‘অনিষ্টকারীরা’ এখনো সক্রিয় আছে। তিনি দ্বন্দ্ব নিরসনের জন্য সরকার ও আন্দোলনকারীদের মধ্যে যোগাযোগ স্থাপনের আহ্বান জানান।

এ সময় তিনি আরও বলেন, ‘সংলাপ শুরু হয়ে গেছে। এখন জরুরি জাতীয় ঐক্যের পুনর্গঠন।’ অন্যদিকে দেশটির জ্বালানি মন্ত্রীর অভিযোগ, আন্দোলনে উগ্রপন্থীরা রসদ যোগাচ্ছে।

এ ব্যাপারে বিবিসি জানায়, শনিবার দেশটির রাজধানী প্যারিসের সিটি সেন্টারে প্রায় ১০ হাজার বিক্ষোভকারী সরকারবিরোধী আন্দোলনের জন্য অবস্থান নেয়। দেশজুড়ে এই সংখ্যাটি ১ লাখ ২৫ বলে ধারণা করা হচ্ছে।

বিক্ষোভ শুরুর পরপরই আন্দোলনকারীদের দিকে কাঁদানে গ্যাস ছোড়ে দাঙ্গা পুলিশ। তারপরও বিক্ষোভকারীরা পিছু না হটায় আরও তীব্র সংঘর্ষ শুরু হয় তাদের সঙ্গে পুলিশের। সংঘর্ষের এক পর্যায়ে পুলিশ আন্দোলনকারীদের ভিড় লক্ষ্য করে রাবার বুলেট ছোড়ে।

এখন পর্যন্ত হাজার খানেক আন্দোলনকারীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। পুলিশসহ এ পর্যন্ত ১২৬ জন আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।

প্যারিসের পরিস্থিতি ফ্রান্সের অন্য যে কোন জায়গা থেকে অনেক বেশি সহিংস। সেখানে অনেকগুলো গাড়িতে আগুন দেয়া হয়েছে। আন্দোলনের মাঝে একদলকে দোকানপাট ভেঙে লুটপাট করতেও দেখা গেছে।

১৯৬৮ সালের মে মাসে হওয়া দাঙ্গার পর শনিবারই প্যারিসে সবচেয়ে ভয়াবহ দাঙ্গার ঘটনাটি ঘটল।


বিডি প্রতিদিন/ ওয়াসিফ


আপনার মন্তব্য