শিরোনাম
প্রকাশ : ৭ ডিসেম্বর, ২০১৯ ০৩:৫৩
আপডেট : ৭ ডিসেম্বর, ২০১৯ ০৫:১০

'ইউরোপ শেষ পর্যন্ত আমেরিকার কাছে নতি স্বীকার করতে পারে'

অনলাইন ডেস্ক

'ইউরোপ শেষ পর্যন্ত আমেরিকার কাছে নতি স্বীকার করতে পারে'

ইরানের পরমাণু বিষয়ে আন্তর্জাতিক সমঝোতা পুরোপুরি ধসে পড়তে পারে বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছে রাশিয়া। রাশিয়ার উপ পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই রিয়াবকভ গতকাল (বৃহস্পতিবার) বলেছেন, ইরানের পরমাণু বিষয়ে আন্তর্জাতিক সমঝোতার সমস্যাগুলো ক্রমেই বাড়ছে। আর এ অবস্থা চলতে থাকলে ওই সমঝোতাকে রক্ষার বা বাঁচানোর চেষ্টায় অচলাবস্থা দেখা দেবে। 

রুশ উপ-পররাষ্ট্রমন্ত্রী রিয়াবকভ আরও বলেছেন, ইউরোপ শেষ পর্যন্ত পরমাণু সমঝোতা ধ্বংসের ব্যাপারে মার্কিন প্রচেষ্টাগুলোর কাছে নতি স্বীকার করতে পারে। ব্রিটেন, ফ্রান্স ও জার্মানি ইরানের পরমাণু বিষয়ক আন্তর্জাতিক সমঝোতার অন্যতম শরিক বা স্বাক্ষরকারী দেশ।

জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদে অনুমোদিত ইরানের পরমাণু বিষয়ক আন্তর্জাতিক সমঝোতা ভেস্তে গেলে পরমাণু অস্ত্র-বিস্তার রোধ ব্যবস্থায় ব্যাঘাত ঘটা ও দেশগুলোর সার্বভৌমত্ব লঙ্ঘনের মত নানা ধরনের মারাত্মক পরিণতি দেখা দিতে পারে বলে রুশ উপপররাষ্ট্রমন্ত্রী আশঙ্কা ব্যক্ত করেন।

আমেরিকা ২০১৮ সালের ৮ মে ইরানের পরমাণু সমঝোতা থেকে একতরফাভাবে বেরিয়ে গিয়ে তেহরানের ওপর কঠোর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে। সে সময় ওই সমঝোতায় স্বাক্ষরকারী তিন ইউরোপীয় দেশ ও ইইউ ইরানকে পরমাণু সমঝোতায় অটল থাকার আহ্বান জানিয়ে ঘোষণা দেয়, তারা আমেরিকাকে ছাড়াই এ সমঝোতায় ইরানকে যেসব আর্থিক সুবিধা দেয়ার কথা ছিল তা বাস্তবায়ন করবে।

কিন্তু এক বছরেও ইইউ তাদের প্রতিশ্রুতি রক্ষা করতে ব্যর্থ হওয়ার পর ২০১৯ সালের ৮ মে থেকে এ পর্যন্ত ইরান ঘোষণা দিয়ে চার দফা পরমাণু সমঝোতার কিছু ধারার বাস্তবায়ন স্থগিত রেখেছে। তেহরান বলে এসেছে, দেশটির ওপর থেকে নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়া হলে ইরানও পরমাণু সমঝোতা পুরোপুরি মেনে চলবে।

এদিকে তিন ইউরোপীয় দেশ বুধবার জাতিসংঘ মহাসচিব অ্যান্তোনিও গুতেরেসের কাছে একটি চিঠি পাঠিয়ে দাবি করেছে, ইরানের কাছে ‘পরমাণু অস্ত্র বহনে সক্ষম ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র’ রয়েছে যা পরমাণু সমঝোতার লঙ্ঘন। কিন্তু ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোহাম্মাদ জাওয়াদ জারিফ বলেছেন, তার দেশের সঙ্গে স্বাক্ষরিত পরমাণু সমঝোতায় নিজেদের দেয়া প্রতিশ্রুতি পূরণের ব্যর্থতা ঢাকতেই ইউরোপীয়রা এই মিথ্যা প্রচার করছে।  

ইউরোপীয় এই তিন শক্তি আজ আবারও দাবি করেছে যে ইরান পরমাণু সমঝোতা লঙ্ঘন করছে এবং তা বন্ধ না করলে তেহরানের ওপর আবারও নিষেধাজ্ঞা ফিরিয়ে আনা হবে! কিন্তু ইরান পশ্চিমা শক্তিগুলোর বলদর্পি ও মিথ্যা দাবির কাছে নতজানু হবে না বলে জানিয়ে আসছে।

বিডি প্রতিদিন/আরাফাত


আপনার মন্তব্য