শিরোনাম
প্রকাশ : ১৫ জুন, ২০২১ ০১:০১
আপডেট : ১৫ জুন, ২০২১ ০১:০৬
প্রিন্ট করুন printer

ক্রাইস্টচার্চ মসজিদ হামলা নিয়ে চলচ্চিত্র, ক্ষোভের মুখে সরে দাঁড়ালেন প্রযোজক

অনলাইন ডেস্ক

ক্রাইস্টচার্চ মসজিদ হামলা নিয়ে চলচ্চিত্র, ক্ষোভের মুখে সরে দাঁড়ালেন প্রযোজক
নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চ মসজিদ (ফাইল ছবি)
Google News

নিউজিল্যান্ডে ক্রাইস্টচার্চ মসজিদের ভয়াবহ সন্ত্রাসী হামলার ওপর ভিত্তি করে নির্মাণাধীন হলিউডের একটি চলচ্চিত্র নিয়ে ক্রমবর্ধমান সমালোচনা ও ক্ষোভের মুখে ছবিটি তৈরির কাজ থেকে নিজেকে সরিয়ে নিয়েছেন প্রযোজক।

চলচ্চিত্রটির মূল ফোকাস ক্রাইস্টচার্চে দু’টি মসজিদে ২০১৯ সালের সন্ত্রাসী হামলার পর নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জেসিন্ডা আরডর্ন কিভাবে পরিস্থিতি মোকাবিলা করেছিলেন তা নিয়ে, যার নাম নাম প্রস্তাব করা হয়েছে ‘দে আর আস' । দেশটির মুসলিম সমাজ যারা ওই হামলার শিকার হয়েছিলেন, তারা ছবিটি নিয়ে সমালোচনা ও ক্ষোভ প্রকাশ করছেন। 

তারা বলেছেন, যে ছবিটিতে হামলার শিকার মুসলমান সম্প্রদায়কে ফোকাসে রাখা হয়নি। এই ছবির প্লটে তারা গৌণ, মুখ্য হলেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী জাসিন্ডা আরডর্ন। এতে তাকে একজন ত্রাতার ভূমিকায় সামনে নিয়ে আসা হয়েছে। তাছাড়া নিউজিল্যান্ডের খোদ প্রধানমন্ত্রী জাসিন্ডাও বিষয়টি জানার পর ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন তার অনুমতি ছাড়াই এমন ছবি নির্মাণের।

এমন প্রেক্ষাপটে চলচ্চিত্রটির প্রযোজক ফিলিপা ক্যাম্পবেল ছবিটিতে তার সংশ্লিষ্টতার জন্য দুঃখপ্রকাশ করে বলেছেন, এই ছবি অনেকের মনোকষ্টের কারণ হতে পারে সেটা তিনি আগে বুঝতে পারেননি। তিনি বলেন, আমি সম্প্রতি এই ছবি নিয়ে প্রকাশ করা উদ্বেগের কথা শুনেছি। মানুষের মতামতের শক্তি উপলব্ধি করতে পেরেছি। মানুষের মনে ১৫ মার্চ ২০১৯-এর ওই মর্মান্তিক ঘটনার ক্ষত এখনো শুকায়নি। এখনই ওই ঘটনা নিয়ে ছবি করার সময় যে আসেনি এ বিষয়ে আমি একমত।

তিনি আরো বলেন, মানুষের মনে আঘাত লাগতে পারে এমন কোনো প্রকল্পের সাথে আমি জড়িত থাকতে চাই না। নিউজিল্যান্ডের ইতিহাসে সবচেয়ে ভয়াবহ ওই সন্ত্রাসী হামলায় প্রাণ হারিয়েছিলেন ৫১ জন মুসলমান। তবে তিনি এই ছবির কাজ থেকে সরে দাঁড়ালেও, অ্যামেরিকান এই হলিউড ছবি তৈরির পুরো প্রকল্পটি যে বাতিল হয়ে যাচ্ছে তা নয়। সূত্র : বিবিসি বাংলা।

বিডি-প্রতিদিন/শফিক

এই বিভাগের আরও খবর