শিরোনাম
প্রকাশ : সোমবার, ২৭ মে, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ২৬ মে, ২০১৯ ২৩:৪০

আমি ইফতারে যাচ্ছি, একশ বার যাব : মমতা

আমি ইফতারে যাচ্ছি, একশ বার যাব : মমতা

ভারতের পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী ও তৃণমূল কংগ্রেসের প্রধান মমতা ব্যানার্জি বলেছেন, ‘সত্যিই এবার মানুষের জন্য একটু বেশি কাজ করে ফেলেছি। সবাই দুই টাকা দরে চাল পাচ্ছে। চাষের জল পাচ্ছে। রাজ্যে  লোডশেডিং নেই। চিকিৎসায় টাকা দিতে হয় না। তাই  তো মনে হয়, এবার সরকারি কাজ বেশি করে  ফেলেছি। তাই এখন থেকে দলের জন্য সময় বেশি দেব।’ বলেন, ‘চেয়ার আমার কাছে ইস্যু নয়, আমার চেয়ারকে প্রয়োজন নেই। চেয়ারের আমাকে প্রয়োজন। এবারের লোকসভা নির্বাচনে তৃণমূল কংগ্রেসের ব্যাপক আসন হারানোর পর দলীয় প্রধান মমতা ব্যানার্জি শনিবার তার দক্ষিণ কলকাতার কালীঘাট বাড়ির দফতরে আয়োজন করেছিলেন নির্বাচনোত্তর একটি পর্যালোচনা বৈঠকের। সেই বৈঠকেই এ কথা বলেন। বৈঠকে যোগ দিয়েছিলেন দলীয় নেতাসহ রাজ্যের বিভিন্ন জেলার তৃণমূলের সভাপতি, পর্যবেক্ষক এবং বিজয়ী ও পরাজিত সাংসদ প্রার্থীরা।

বৈঠকে তিনি বলেন, ‘আজ মুখ্যমন্ত্রীর পদ ছাড়তে চেয়েছিলাম। বলেছিলাম শুধু দলের প্রধান হয়ে কাজ করার কথা। কিন্তু দল সে কথা মানেনি দলের নেতারা।’ এই সভায় তৃণমূলের নেতারা পর্যালোচনা করেন, কেন এবার বিজেপির এই উত্থান হলো? তৃণমূলের কেন এই ভরাডুবি হলো? এই অবস্থা থেকে বের হওয়ার নানা প্রস্তাব দেন নেতারা। বৈঠকে মমতা বলেছেন, চেয়ার তার কাছে কোনো ইস্যু নয়। তার চেয়ারের প্রয়োজন নেই, চেয়ারের তাকে প্রয়োজন। তিনি আরও বলেন, ভারতের রেলমন্ত্রিত্ব ছাড়তে তার এক মিনিট সময় লেগেছিল। মমতা ক্ষোভের সঙ্গে আরও বলেন, ‘আমি ইফতারে যাচ্ছি। একশ বার যাব। যে গরু দুধ দেয়, তার লাথি খাওয়া ভালো। বিজেপি এবার ধর্ম নিয়ে প্রচার করেছে। আমরা এই নিয়ে বহুবার অভিযোগ তুলেছি, কিন্তু কাজ হয়নি। ওরাই এবার সাম্প্রদায়িকতার বিষ ছড়িয়েছে।’

মমতা ব্যানার্জি বৈঠকে আরও বলেছেন, ‘তৃণমূলের অনেক কর্মী রয়েছেন যারা বিজেপির থেকে টাকা নিয়ে বিজেপির হয়ে কাজ করেছে, তাদের চিহ্নিত করে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। আজ গণতন্ত্র টাকার কাছে বিকিয়ে গেল!’ তিনি বলেন, এখন আর উন্নয়নের দাম নেই। পুলিশকে টাকা দিয়েছে বিজেপি। টাকা দিয়েছে সিপিএমকে। তৃণমূলের অনেককেও টাকা দিয়েছে বিজেপি।


আপনার মন্তব্য