শিরোনাম
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ২৬ মার্চ, ২০২০ ০০:০০ টা
আপলোড : ২৫ মার্চ, ২০২০ ২৩:৪৬

বিশ্বের এক-তৃতীয়াংশ মানুষই এখন ঘরবন্দী

বিশ্বের এক-তৃতীয়াংশ মানুষই এখন ঘরবন্দী

মানব ইতিহাসে এমন ঘটনা নজিরবিহীন। গোটা বিশ্ব এখন কার্যত ঘরবন্দী। এক ক্ষুদ্র ভাইরাসের প্রভাবে একটা দুটো নয়, অসংখ্য দেশ এখন ‘লকডাউন’। গোটা বিশ্ব যেন নিজেকে লুকিয়ে রেখেছে। করোনার মতো বৈশ্বিক মহমারীকে প্রতিরোধে এটাই এখন বড় ‘উপায়’ কেননা এর প্রতিষেধক বা ওষুধ কিছুই নেই। গোটা ভারত এখন সম্পূর্ণ ‘লকডাউন’। দেশটির প্রায় ১৩০ কোটি মানুষ আগামী ২১ দিন ঘরবন্দী থাকবেন। জরুরি ও অত্যাবশকীয় প্রয়োজন ছাড়া রাস্তায় বের হওয়া যাবে না। বিশ্বে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা এখন প্রায় সোয়া চার লাখ। এর মধ্যে প্রায় ১৯ হাজার মানুষের মৃত্যু হয়েছে। সুস্থও হয়েছেন ১ লাখ ১০ হাজারের মতো মানুষ। যুক্তরাষ্ট্রের সব অঙ্গরাজ্যে ভাইরাসটি ছড়িয়েছে। অঘোষিত লকডাউনের দিকেই এগোচ্ছে নিউইয়র্ক, ক্যালিফোর্নিয়া ও ফ্লোরিডাসহ অন্যান্য রাজ্যগুলো। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বলছে, ইউরোপের পর করোনার নতুন প্রাদুর্ভাবের কেন্দ্রস্থল হবে আমেরিকা। করোনায় এখন ইউরোপের অবস্থা সবচেয়ে নাজেহাল। মহাদেশটির অন্যতম উন্নত দেশ ইতালি তো বিপর্যস্ত। স্পেনের অবস্থাও বেশ নাজুক। ফ্রান্স আর জার্মানির মতো দেশগুলোতেও পাল্লা দিয়ে মৃতের সংখ্যা বাড়ছে। গোটা বিশ্বে ২০০ কোটিরও বেশি মানুষ এখন গৃহবন্দী। তবে ভাইরাসটির উৎপত্তি হয়েছিল যেখানে, করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে সেই চীনের জয় হয়েছে বলা যায়।  মধ্যপ্রাচ্যের অনেক দেশে নানা ধরনের নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে। মানুষ ঘর থেকে বের হতে পারছে না। সৌদিতেও চলছে জরুরি অবস্থা।


আপনার মন্তব্য