শিরোনাম
প্রকাশ : শুক্রবার, ২৩ এপ্রিল, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ২২ এপ্রিল, ২০২১ ২৩:৩৬

মঙ্গলে অক্সিজেন তৈরি করল নাসা

 মঙ্গলে অক্সিজেন তৈরি করল নাসা
Google News

নাসার পারসিভিয়ারেন্স রোভারের একটি যন্ত্র মঙ্গল গ্রহের কার্বন ডাই-অক্সাইড থেকে নিঃশ্বাসযোগ্য অক্সিজেন তৈরি করেছে। পারসিভিয়ারেন্স মিশনে এটি নাসার দ্বিতীয় সাফল্যের ঘটনা। রোভারের টোস্টার আকারের একটি ইউনিটে এই অক্সিজেন তৈরি করা হয়েছে। ইউনিটটির নাম মক্সি (মার্স অক্সিজেন ইন-সিটু রিসোর্স ইউটিলাইজেশন)। এতে ৫ গ্রাম অক্সিজেন তৈরি করা হয়েছে। এই পরিমাণ অক্সিজেন দিয়ে একজন নভোচারী মঙ্গলে প্রায় ১০ মিনিট ধরে নিঃশ্বাস নিতে পারবেন। সৌরজগতের লাল গ্রহ মঙ্গলের বায়ুমন্ডলের ৯৫ শতাংশই কার্বন ডাই-অক্সাইড। মাত্র ০.১৩ শতাংশ অক্সিজেন। পৃথিবীতে বাতাসের ২১ শতাংশ হলো অক্সিজেন। নাসার স্পেস টেকনোলজি মিশন ডিরেক্টরেটের টেকনোলজি ডেমোনস্ট্রেশনের পরিচালক ট্রুডি কর্টেস এক বিবৃতিতে বলেন, ‘মক্সি কিন্তু প্রথম যন্ত্র নয়, যা অন্য পৃথিবীতে অক্সিজেন তৈরি করল। তবে ধরনের দিক থেকে যন্ত্রটি অনন্য, যা ভবিষ্যতে ভিনগ্রহে বসবাসে সহায়ক হবে।’

নাসা জানায়, মক্সি উচ্চ তাপে তড়িৎ বিশ্লেষণের মাধ্যমে কার্বন ডাই-অক্সাইডকে ভেঙে অক্সিজেনে পরিণত করে।

নাসার তথ্যমতে, মঙ্গলে চারজন নভোচারী পাঠাতে হলে মহাকাশযানে ১৫ হাজার পাউন্ডের জ্বালানি প্রয়োজন হবে। সব মিলিয়ে প্রয়োজন হবে ৫৫ হাজার পাউন্ড অক্সিজেন। এই বিপুল পরিমাণ অক্সিজেন পৃথিবী থেকে বয়ে নেওয়ার চেয়ে মঙ্গলেই তা উৎপাদন সহজতর বলে মনে করে নাসা।

নাসার সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়েছে, মহাকাশচারীদের মঙ্গলে গিয়ে বসবাস ও কাজের ক্ষেত্রে এক বছরের জন্য কমপক্ষে এক মেট্রিক টন অক্সিজেনের প্রয়োজন হবে। মক্সি প্রতি এক ঘণ্টায় ১০ গ্রাম করে অক্সিজেন তৈরি করতে পারে। কাজেই যন্ত্রটি এ ক্ষেত্রে বেশ সহায়ক হবে।