শিরোনাম
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৭ এপ্রিল, ২০১৯ ২৩:৩২

বর্ণাঢ্য আয়োজনে মেহেরপুরে মুজিব নগর দিবস পালিত

মেহেরপুর প্রতিনিধি

বর্ণাঢ্য আয়োজনে মেহেরপুরে মুজিব নগর দিবস পালিত

বর্ণাঢ্য আয়োজনে মেহেরপুরে মুজিবনগর দিবস পালিত হয়েছে। মুজিবনগর দিবস উপলক্ষে গতকাল ভোরে সূর্যোদয়ের সঙ্গে সঙ্গে জেলা প্রশাসক আতাউল গনি মুজিবনগর স্মৃতিসৌধে জাতীয় পতাকা উত্তোলনের মাধ্যমে দিনের আনুষ্ঠানিকতা শুরু করেন। এরপর সকাল ৯টায় মুজিবনগর স্মৃতিসৌধে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য আমির হোসেন আমু। এ সময় প্রেসিডিয়াম সদস্য ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন, ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ, মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আবদুর রহমান, জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী অধ্যাপক ফরহাদ হোসেন, কেন্দ্রীয়  নেতা এস এম কামাল হোসেন, রিয়াজুল কবির কাওছার, পারভীন জামান কল্পনা, আমিরুল আলম মিলন, সাবেক ছাত্রনেতা নাসিমুল বারী রুপক,  জয়দেব নন্দি দাসসহ স্থানীয় নেতারা উপস্থিত ছিলেন। সকাল ১০টায় গীতিনাট্য ‘বদলে যাও, বদলে দাও’ অনুষ্ঠিত হয়। সকাল সাড়ে ১০টায় শেখ হাসিনা মঞ্চে শুরু হয় আলোচনা সভা। আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেনের সভাপতিত্বে সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য আমির হোসেন আমু। বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ, মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক, জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন, কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগ নেতা এস এম কামাল, খুলনা বিভাগীয় আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আবু সাইদ আল মাহমুদ স্বপন, সংসদ সদস্য শাহীদুজ্জামান খোকনসহ স্থানীয় নেতারা। আমির হোসেন আমু বলেন, আজ শেখ হাসিনা যদি ক্ষমতায় না আসতেন তাহলে বাংলাদেশ আন্তর্জাতিকভাবে মডেল দেশ হিসেবে রূপ লাভ করত না। বিশ্ব আজ জানতে চায় শেখ হাসিনার নেতৃত্বে কীভাবে বাংলাদেশ এত উন্নতির শিখরে আসতে সক্ষম হলো। তিনি বলেন, বিএনপি দেশ ধ্বংসের রাজনীতি করে। অন্যদিকে শেখ হাসিনার আওয়ামী লীগ দেশ রক্ষার কথা বলে। মানুষকে ভালো রাখার রাজনীতি করে। এই বাংলায় প্রত্যেকটি বিজয়ের পেছনে রয়েছে বঙ্গবন্ধুর অবদান, শেখ হাসিনার আবদান। মাহবুব-উল আলম হানিফ বলেন, জিয়াউর রহমান ভুয়া মুক্তিযোদ্ধাদের তালিকাভুক্ত করে মুক্তিযুদ্ধকে কলঙ্কিত করেছেন। তার স্ত্রী বেগম খালেদা জিয়া ৩০ লাখ শহীদের সংখ্যা নিয়ে বিতর্ক সৃষ্টি করে মুক্তিযুদ্ধকে ইতিহাস থেকে মুছে ফেলার চেষ্টা করেছেন। তিনি যতই চেষ্টা করুন না কেন মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাসকে মুছে ফেলা যাবে না।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর