শিরোনাম
প্রকাশ : শনিবার, ১৫ জুন, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৪ জুন, ২০১৯ ২৩:৫১

অন্তঃসত্ত্বাকে গাছে বেঁধে নির্যাতনে এসআই প্রত্যাহার

শেরপুর প্রতিনিধি

অন্তঃসত্ত্বাকে গাছে বেঁধে নির্যাতনে এসআই প্রত্যাহার

নারী উদ্যোক্তা অন্তঃসত্ত্বা ডলিকে গাছে বেঁধে নির্যাতন এবং গর্ভপাতের ঘটনায় নকলা থানার সেকেন্ড অফিসার এসআই ওমর ফারুককে গতকাল প্রত্যাহার করা হয়েছে। এ বিষয়ে গঠিত জেলা পুলিশের তদন্ত কমিটির প্রধান অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শেরপুর সদর সার্কেল মো. আমিনুল ইসলাম প্রত্যাহারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। ইতোমধ্যে তদন্ত কমিটিকে বেঁধে দেওয়া ১২ ঘণ্টা সময়ের মধ্যেই তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেওয়া হয়েছে। ঘটনাটি কদিন ধরেই শেরপুরে টক অফ দ্য টাউনে পরিণত হয়। শেরপুরের নকলায় জমিসংক্রান্ত বিরোধে গত ১০ মে ডলিকে গাছের সঙ্গে বেঁধে চোখে-মুখে মরিচের গুঁড়া ছিটিয়ে নির্যাতন করে তার ভাসুর ও জা (ভাসুরের স্ত্রী) সহ ১০/১২ জন। এতে ওই গৃহবধূর গর্ভের সন্তান নষ্ট হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন নির্যাতিতা। এ ঘটনার পর পুলিশ নির্যাতিতা নারী ডলিকে উদ্ধার এবং ঘটনার সঙ্গে জড়িত দুজনকে আটক করে থানায় নিয়ে আসার পর রহস্যজনক কারণে ছেড়ে দেওয়া হয়। নির্যাতনের ঘটনাটির খি ত ভিডিওচিত্র ফেসবুকে ভাইরাল হয়ে যায়। এ অবস্থায় নির্যাতিত গৃহবধূর অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে গত ১২ জুন ৯ জনের নামে এবং অজ্ঞাতনামা আরও ৩/৪ জনকে আসামি করে মামলা নিয়েছে পুলিশ। ইতোমধ্যে নাছিমা বেগম নামে এক আসামিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। সবশেষ গতকাল দায়িত্ব পালনে অবহেলার অভিযোগে এসআই ওমর ফারুককে প্রত্যাহার করা হয়েছে।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর