শিরোনাম
প্রকাশ : শনিবার, ৭ ডিসেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ৬ ডিসেম্বর, ২০১৯ ২৩:৫২

কাল সম্মেলন

বরিশাল আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে কে আসছেন

রাহাত খান, বরিশাল

আগামীকাল ৮ ডিসেম্বর বরিশাল মুক্ত দিবসের দিন হতে যাচ্ছে মহানগর আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন। এ সম্মেলন ঘিরে সাজ সাজ রব পড়েছে। নেতৃত্বে কে আসছেন- তা নিয়েও সবার মধ্যে উৎসুক অবস্থা বিরাজ করছে। সম্মেলন ঘিরে কেন্দ্রীয় নেতাদের স্বাগত জানাতে বিমানবন্দর থেকে সম্মেলনস্থল নগরীর বঙ্গবন্ধু উদ্যান পর্যন্ত শতাধিক দৃষ্টিনন্দন তোরণ নির্মাণ ছাড়াও নানা রংয়ের পতাকা, বিলবোর্ড, ব্যানার, ফেস্টুন দিয়ে নবরূপে সাজানো হয়েছে প্রাচ্যের ভেনিস খ্যাত বরিশাল নগরীকে। নগর ভবন কর্তৃপক্ষও অতিথিদের সামনে পরিচ্ছন্ন নগরী উপহার দিতে দিনরাত চেষ্টা করে যাচ্ছেন। নেতা-কর্মীদের মধ্যে বিরাজ  করছে বাড়তি উৎসাহ-উদ্দীপনা। সবকিছু মিলিয়ে মহানগর আওয়ামী লীগের সম্মেলন ঘিরে বরিশাল এখন উৎসবের নগরী। আওয়ামী লীগের দায়িত্বশীল নেতারা বলছেন, শুধু বাহ্যিক সাজসজ্জাই নয়, সম্মেলনের মাধ্যমে একটি পরিচ্ছন্ন এবং সাংগঠনিকভাবে যোগ্য কমিটি উপহার দেবেন তারা। আওয়ামী লীগ সভাপতির শুদ্ধি অভিযানের প্রতিফলনও মহানগর আওয়ামী লীগের নতুন কমিটিতে থাকবে বলে প্রত্যাশা তাদের। এবারের সম্মেলনকে কেন্দ্র করে সভাপতি কিংবা সাধারণ সম্পাদক পদে কেউ আগাম প্রার্থিতা ঘোষণা করেননি। কিন্তু তারপরও সম্মেলনে নতুন কমিটি গঠনে চমকের আভাস দিয়েছেন দায়িত্বশীল নেতারা। বিদায়ী সভাপতি অ্যাডভোকেট গোলাম আব্বাস চৌধুরী দুলালের পাশাপাশি জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি সদর আসনের এমপি পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী কর্নেল (অব.) জাহিদ ফারুক শামীমের নামও নতুন কমিটির সম্ভাব্য সভাপতি হিসেবে আলোচিত হচ্ছে। সাধারণ সম্পাদক পদে বিদায়ী কমিটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও সিটি মেয়র সাদিক আবদুল্লাহর নাম এককভাবে আলোচিত হচ্ছে। বিদায়ী সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট এ কে এম জাহাঙ্গীরকে নতুন কমিটির সিনিয়র সহ-সভাপতি করা হতে পারে বলে দলের ভিতরে আলোচনা রয়েছে। এ ছাড়া বিদায়ী কমিটির বিতর্কিতদেরও নতুন কমিটিতে না রাখার পক্ষে নেতারা। মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ওয়ার্ড কাউন্সিলর গাজী নঈমুল হোসেন লিটু বলেন, আওয়ামী লীগ সভানেত্রী কেন্দ্র থেকে দলের মধ্যে যে শুদ্ধি অভিযান শুরু করেছেন তার ছাপ নগরীর ৩০টি ওয়ার্ড কমিটিতে পড়েছে। বিতর্কিতদের বাদ দিয়ে নবীন-প্রবীণের সমন্বয়ে ওয়ার্ড কমিটি গঠিত হয়েছে। মহানগর কমিটিতেও নবীন-প্রবীণের সমন্বয়ে সাংগঠনিকভাবে দক্ষ এবং ত্যাগী নেতাদের মূল্যায়ন পাবে বলে তারা আশা করছেন। এ সম্মেলনের মাধ্যমে দল হাইব্রিড ও সুসময়ের কোকিলমুক্ত হবে এবং অভিজ্ঞ, গ্রহণযোগ্য, সৎ, স্বচ্ছ, পরীক্ষিত ও নিবেদিত নেতারা দল পরিচালনার দায়িত্ব পাবেন বলে আশা করেন মহানগর আওয়ামী লীগের বিদায়ী সভাপতি অ্যাডভোকেট দুলাল। মহানগর আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক অ্যাডভোকেট গোলাম সরোয়ার রাজীব জানান, সম্মেলনের প্রধান অতিথিসহ কেন্দ্রীয় নেতারা বিমানযোগে বরিশাল আসবেন। সম্মেলনস্থলে ৪ স্তর বিশিষ্ট ২ হাজার ৭০০ স্কয়ার ফিটের মঞ্চ এবং ১০ হাজার লোকের বসার জন্য চেয়ারের ব্যবস্থা করা হয়েছে। তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক হাসান মাহমুদ বাবু জানান, ৮ ডিসেম্বর বরিশাল মুক্ত দিবসে নগরীর ঐতিহাসিক বঙ্গবন্ধু উদ্যানে সম্মেলনের প্রথম অধিবেশনে প্রধান অতিথি থাকবেন দলের সাধারণ সম্পাদক সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। সম্মেলন উদ্বোধন করবেন দলের উপদেষ্টা ম-লীর সিনিয়র সদস্য সাবেক শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু। প্রধান বক্তা থাকবেন জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি আবুল হাসানাত আবদুল্লাহ এমপি। এ ছাড়া দলের দুই যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আবদুর রহমান ও জাহাঙ্গীর কবির নানক এবং বরিশাল বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাসিম সম্মেলনে বিশেষ অতিথি থাকবেন।


আপনার মন্তব্য