শিরোনাম
প্রকাশ : সোমবার, ৭ জুন, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ৬ জুন, ২০২১ ২৩:১২

বজ্রপাতে ১৫ জেলায় ২৬ জনের মৃত্যু

প্রতিদিন ডেস্ক

Google News

বজ্রপাতে গতকালও দেশের বিভিন্ন স্থানে হতাহতের ঘটনা ঘটেছে। এ দিন ১৫ জেলায় ২৬ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি জানান, জেলার শাহজাদপুর, উল্লাপাড়া, বেলকুচি ও সলঙ্গায় মাঠে ধান কাটা ও খড় শুকানোর সময় বজ্রপাতে স্কুলছাত্রসহ পাঁচজনের মৃত্যু হয়েছে। গতকাল বিকালে ঝড়বৃষ্টির সময় এ বজ্রপাতের ঘটনা ঘটে। মৃতরা হলেন- উপজেলার কায়েমপুর ইউনিয়নের চরআঙ্গারু গ্রামের আমানত হোসেনের ছেলে জুয়েল রানা (২৬) ও নরিনা ইউনিয়নের বাতিয়া  গ্রামের মৃত ভোলা পন্ডিতের ছেলে আলহাজ পন্ডিত (৫০), উল্লাপাড়ার সলঙ্গা ইউনিয়নের আঙ্গারু বাঘমারা গ্রামের মোহাম্মদ আলীর ছেলে রফিকুল ইসলাম (৪৫), উধুনিয়া ইউনিয়নের আগদিঘর গ্রামের শাহেদ আলীর ছেলে ও উধুনিয়া মানিকজান উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্র ফরিদুল ইসলাম (১৫) ও বেলকুচি উপজেলার চর সমেশপুর গ্রামের গৃহবধূ লাইলী বেগম (৪৫)।

চট্টগ্রাম : চট্টগ্রামের ফটিকছড়ি, মিরসরাই ও বোয়ালখালী উপজেলায় বজ্রপাতে চারজনের মৃত্যু হয়েছে। এদের মধ্যে দুজন নারী, একজন দিনমজুর ও একজন শিক্ষার্থী রয়েছেন। গতকাল মুষলধারে বৃষ্টিপাতের বিভিন্ন সময়ে এই বজ্রপাতের ঘটনা ঘটে। স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, জমিতে কৃষিকাজ করার সময় ফটিকছড়ির কাঞ্চননগর ইউনিয়নের মানিকপুর গ্রামে বজ্রপাতে দুই নারীর মৃত্যু হয়েছে। এ সময় আহত হয়েছেন আরও দুজন। নিহতরা হলেন ভানু রানী দাস (৪০) ও লাকি রানী দাস (৩০)। আহত হন সোভা রানী দে (৪৫) ও মালতি দাস (৫০)। রবিবার সকাল ১০টার দিকে উপজেলার কাঞ্চননগর মানিকপুর গ্রামের ডলু পাড়ায় এ ঘটনা ঘটে।

অন্যদিকে সকাল ১০টার দিকে মিরসরাইয়ের সাহেরখালী ইউনিয়নের ৯ নম্বর পূর্ব ডোমখালী ওয়ার্ড এলাকায় বাবার সঙ্গে মাঠে কাজ করার সময় বজ্রপাতে মৃত্যু হয় শিক্ষার্থী সাজ্জাদ হোসেনের (১৬)। এ সময় আহত হন তার বাবা মো. মোশারফ হোসেন। সাজ্জাদ স্থানীয় একটি বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির ছাত্র।

এদিকে বোয়ালখালীতে বজ্রপাতে মো. জাহাঙ্গীর (৩৯) নামে এক দিনমজুরের মৃত্যু হয়েছে। সকাল সাড়ে ১০টার দিকে উপজেলার জ্যৈষ্ঠপুরা পাহাড়ের গরজংগিয়া এলাকায় লেবু বাগানে কাজ করার সময় এ ঘটনা ঘটে। এ ছাড়া সীতাকুন্ড উপজেলার বারো আউলিয়া এলাকার নুরুল আলমের ছেলে মো. জলিল আহাম্মদ (৪০) বজ্রপাতে মারা গেছেন।

ফেনী : ফেনীর সোনাগাজীতে বজ্রপাতে এক কিশোরী ও এক শিশু নিহত হয়েছে; তারা সম্পর্কে চাচাতো ভাইবোন।

গতকাল সকালে উপজেলার বগাদানা ইউনিয়নের আলমপুর গ্রামের আনু ফরাজী বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলো- আলমপুর গ্রামের আনু ফরাজী বাড়ির মোহাম্মদ সোলেমানের মেয়ে তামান্না আক্তার (১৪) ও একই বাড়ির বাহার উল্লাহর ছেলে আল আমিন (৬)।  পটুয়াখালী : পটুয়াখালীর সদর ও মির্জাগঞ্জ উপজেলায় বজ্রপাতে দুজনের মৃত্যু হয়েছে। মৃতরা হলেন- জেলা সদর উপজেলার মরিচবুনিয়া ইউনিয়নের মরিচবুনিয়া গ্রামের মৃত মোনসের হাওলাদারের ছেলে মজিবার হাওলাদার (৩০) ও মির্জাগঞ্জের জিদবাড়িয়া ইউনিয়নের তারাবুনিয়া গ্রামের সেরজন আলী হাওলাদারের ছেলে আবদুল জলিল।

টাঙ্গাইল : টাঙ্গাইলের নাগরপুরে বজ্রপাতে দুজনের মৃত্যু হয়েছে। বিকালে উপজেলার ভাদ্রা ও বেকড়া ইউনিয়নে পৃথক দুটি স্থানে বজ্রপাতে এ দুজনের মৃত্যু হয়। তারা হলেন- ভাদ্রা ইউনিয়নের গাংবিহালী গ্রামের মো. বক্তার খানের ছেলে আলমাছ খান (৫৫) এবং বেকড়া ইউনিয়নের বেকড়া মধ্যপাড়া গ্রামের মৃত পলান মিয়ার ছেলে সোনা মিয়া (৫৩)।

চুয়াডাঙ্গা : চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গা উপজেলার রুইথনপুর গ্রামের দক্ষিণ মাঠে বজ্রপাতে কোরবান আলী নামে এক কৃষকের মৃত্যু হয়েছে। তিনি চিৎলা ইউনিয়নের রুইথনপুর গ্রামের মৃত ফকির আলীর ছেলে। 

মাদারীপুর : শিবচর উপজেলার চরজানাজাত ইউনিয়নের হাওলাদারকান্দি বালুরটেক এলাকায় বজ্রপাতে আয়শা বেগম (৪৮) নামে এক গৃহবধূর মৃত্যু হয়েছে। তিনি ওই এলাকার ছোরফান হাওলাদারের স্ত্রী।

নাটোর : নাটোরের সিংড়া উপজেলার কলম কাজিপাড়া গ্রামে বজ্রপাতে মো. রাসেল (২২) নামে এক কলেজছাত্রের মৃত্যু হয়েছে। রাসেল একই উপজেলার হাতিয়ান্দহ ইউনিয়নের আলাদী গ্রামের মো. ওসমান আলীর ছেলে। মেহেরপুর : বজ্রপাতে মেহেরপুরের মুজিবনগর উপজেলার দারিয়াপুর ইউনিয়নের পুরুন্দরপুর গ্রামে ফরিদ নওদা (৫০) নামে এক কৃষকের মৃত্যু হয়েছে। ফরিদ ওই গ্রামের মৃত বকস নওদারের ছেলে। নোয়াখালী : হাতিয়ায় বজ্রপাতে আবদুল মান্নান খোকন (৫৫) নামে এক কৃষকের মৃত্যু হয়েছে। মৃত মান্নান ওই উপজেলার ৮ নম্বর সোনাদিয়া ইউনিয়নের ৩ নম্বর ওয়ার্ডের পূর্ব মাইজচরা গ্রামে মোল্লাবাড়ীর মৃত মৌলভী সৈয়দ আহমদের ছেলে।  অন্যদিকে সুবর্ণচর ও সেনবাগ উপজেলায় দুই ঘণ্টার বজ্রপাতে ৫টি গরু মারা যাওয়ার খবর পাওয়া গেছে। বগুড়া : বগুড়ার ধুনট উপজেলায় ঝড়ের মধ্যে আম কুড়াতে গিয়ে বজ্রপাতে আদিল হোসেন (৮) নামে এক শিশু নিহত হয়েছে। এ সময় বজ্রপাতে আরমান হোসেন (৭) নামে এক শিশু আহত হয়। আদিল হোসেন ওই গ্রামের আবদুল মোমিনের ছেলে।  কক্সবাজার : মহেশখালী উপজেলায় বজ্রপাতে এনামুল করিম নামে এক কিশোরের মৃত্যু হয়েছে। এ সময় আহত হয়েছেন আরও একজন। গত শনিবার দিনগত রাতে উপজেলার হোয়ানক ইউনিয়নে এ ঘটনা ঘটে। এনামুল ওই ইউনিয়নের রাজুয়ার ঘোনা গ্রামের আবদুর রহিমের ছেলে। মানিকগঞ্জ : ঘিওরে বজ্রপাতে মো. শাহীন হোসেন (১৮) নামের এক কলেজছাত্রের মৃত্যু হয়েছে। গতকাল বিকাল সাড়ে ৫টার দিকে ঘিওর উপজেলার বৈলটা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত শাহীন হোসেন ঘিওর সদর ইউনিয়নের মুক্তার হোসেনের ছেলে।  মুন্সীগঞ্জ : সিরাজদিখানে বৃষ্টির মধ্যে মাঠে খেলতে গিয়ে বজ্রপাতে অপূর্ব বর্মণ (১৭) নামে কলেজছাত্র নিহত হন। এ ঘটনায় অপু বর্মণ (২১) এবং পরিচয় বর্মণ নামে দুই যুবক আহতও হয়েছেন। নিহত অপূর্ব বর্মণ উপজেলার শেখরনগর ইউনিয়নের শেখরনগর জেলেপাড়া গ্রামের স্বপন বর্মণের ছেলে। বরিশাল : বরিশালের উজিরপুর উপজেলার দক্ষিণ সাতলা গ্রামে বজ্রপাতে নান্টু বালী (২৬) নামে এক দিনমজুর নিহত এবং সুমন খান (২৪) নামে একজন দগ্ধ হয়েছেন। গতকাল বিকাল সাড়ে ৪টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। দগ্ধ সুমনকে গতকাল সন্ধ্যায় বরিশাল শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। নিহত নান্টু ওই এলাকার ইউনুস বালীর ছেলে।