শিরোনাম
রবিবার, ১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ ০০:০০ টা

সীমান্তে আবার সোনা জব্দ

কলকাতা প্রতিনিধি

ভারত-বাংলাদেশ আন্তর্জাতিক সীমান্তে তিনটি পৃথক ঘটনায় ৩.৬২ কিলোগ্রাম ওজনের স্বর্ণের বার উদ্ধার করেছে বিএসএফ। আন্তর্জাতিক বাজারে যার মূল্য ২.২৯ কোটি রুপি। গতকাল পশ্চিমবঙ্গের ২৪ পরগনা জেলার পেট্রাপোল সুসংহত চেকপোস্ট দিয়ে ভারতে প্রবেশের সময় খালি ট্রাকের ভিতর থেকে ২২টি স্বর্ণের বার এবং এক যাত্রীর শরীর থেকে ৩টি স্বর্ণের মণ্ড উদ্ধার করে বিএসএফ জওয়ানরা। এর মোট ওজন ৩ কেজি ৬২৮ গ্রাম যার মূল্য ২ কোটি ২৯ লাখ রুপি। ওই স্বর্ণ বাংলাদেশ থেকে ভারতে পাচার করা হচ্ছিল বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এই ঘটনায় তিনজনকে আটক করা হয়েছে। তারা হলেন- রাজু দাস, রঞ্জিত দাস ও মোহাম্মদ রিবায়েদিন। রাজু দাসের বাড়ি উত্তর ২৪ পরগনা জেলার বনগাঁর দত্ত পাড়া গ্রামে, সঞ্জিত দাসের বাড়ি ওই জেলারই পাইকপাড়া এলাকায়, মোহাম্মদ রিবায়েদিনের বাড়ি তামিলনাড়ুর রামানাথপুরম এলাকায়। বিএসএফ জানায়, শুক্রবার রাত ১২টার দিকে পেট্রাপোল আইসিপি দিয়ে দুটি খালি ট্রাক ভারতে প্রবেশের সময় সন্দেহজনক ভাবে আটক করা হয়। পরে ট্রাক দুটিকে পেট্রাপোল ওয়ারহাউসে নিয়ে তাতে তল্লাশি চালিয়ে ২২টি স্বর্ণের বার উদ্ধার করে জওয়ানরা। ২ কেজি ৫৫১ গ্রাম ওজনের ওই স্বর্ণের মূল্য ১ কোটি ৬২ লাখ ২৪ হাজার ৩২২ রুপি। ট্রাক চালকের কেবিনে ওই স্বর্ণ লুকানো ছিল। আটক করা হয় দুই চালককেই। জিজ্ঞাসাবাদে তারা উভয়ই স্বীকার করেছে তারা ভারতের নাগরিক। দ্বিতীয় ঘটনায় ওই একই দিনে দুপুরে সীমান্তে একজন যাত্রীর শরীরের নিচের অংশে কিছু ধাতব পদার্থের উপস্থিতি টের পায় জওয়ানরা। এরপর তাকে পুঙ্খানুপুঙ্খ চেকআপের জন্য টয়লেটে নেওয়া হলে তার কাছ থেকে নলাকার আকৃতির তিনটি স্বর্ণের পেস্ট/মণ্ড উদ্ধার করা হয়, যা তার মলদ্বারে লুকিয়ে রাখা ছিল। এই স্বর্ণের মূল্য ৬৬ লাখ ৭৫ হাজার ৭২৬ রুপি। সীমান্ত থেকে জব্দ মালামাল ও আটক তিন পাচারকারীকে পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য পেট্রাপোল কাস্টমস কর্তৃপক্ষের কাছে সোপর্দ করা হয়েছে।

 

এই রকম আরও টপিক

সর্বশেষ খবর