শনিবার, ১৮ মে, ২০২৪ ০০:০০ টা
সেই ব্যবসায়ী গ্রেফতার

সাভারে কুকুরের সঙ্গে রিকশাচালককে শিকলে বেঁধে নির্যাতন

সাভার (ঢাকা) প্রতিনিধি

সাভারে কুকুরের সঙ্গে রিকশাচালককে শিকলে বেঁধে নির্যাতন

সাভারে পাওনা টাকার জন্য এক রিকশাচালককে তুলে এনে কুকুরের সঙ্গে একই শিকলে বেঁধে নির্যাতন করা হয়েছে। এ ঘটনায় মামলা করা হলে পুলিশ অভিযুক্ত ভাঙারি ব্যবসায়ী মামুন হোসেনকে গ্রেফতার করেছে। পুলিশ জানায়, গত বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে সাভারের হেমায়েতপুর বাসস্ট্যান্ড থেকে মামুনকে গ্রেফতার করা হয়। মামুন হোসেন ওরফে সুকান্ত দাশের (৩৪) গ্রামের বাড়ি চট্টগ্রামের সাতকানিয়া থানার কালি আইশ এলাকায়। তার বাবা মৃত সুনীল বরুন দাশ। মামুন আগে হিন্দু ধর্মের অনুসারী ছিলেন। বর্তমানে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করে ঢাকার সাভারের তেঁতুলঝোড়া ইউনিয়নের ভরাড়ী এলাকায় স্থানীয় হাফিজ উদ্দিনের বাড়িতে ভাড়া থেকে ভাঙারির ব্যবসা করেন। পুলিশ জানায়, গত ৭ মে পাওনা ৮০০ টাকার জন্য রবিউল নামের এক রিকশাচালককে সাভারের তেঁতুলঝোড়া ইউনিয়নের কাঁঠালতলা থেকে তুলে এনে বেধড়ক মারধর করেন মামুন হোসেন। পরে তাকে কুকুরের সঙ্গে একই শিকল দিয়ে বেঁধে রেখে নির্যাতন চালান। এক পর্যায়ে পুলিশ যাওয়ার কথা শুনে তিনি পালিয়ে যান। ঘটনার পর থেকেই তিনি মোবাইলের সিম পরিবর্তন করে রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় পালিয়ে বেড়াচ্ছিলেন। এ ঘটনায় ভুক্তভোগী মামলা করলে তথ্যপ্রযুক্তির সহায়তায় তাকে গ্রেফতার করা হয়। সাভার মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ শাহ জামান বলেন, কুকুরের সঙ্গে শিকল দিয়ে বেঁধে রিকশাচালককে নির্যাতন করার ঘটনায় ভাঙারি ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করে গতকাল পাঁচ দিনের রিমান্ড  আবেদন করা হয়েছে।

এই বিভাগের আরও খবর

সর্বশেষ খবর