শিরোনাম
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ২৩ জানুয়ারি, ২০২০ ০০:০০ টা
আপলোড : ২৩ জানুয়ারি, ২০২০ ০২:১২

চালকের অসতর্কতায় বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রীর মৃত্যু, গ্রেফতার দাবি

নিজস্ব প্রতিবেদক

বাস থেকে নামার সময় চালক দ্রুতগতিতে বাস চালানোয় বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী নাজনীন আক্তার ঋতু নিহত হয়েছে। এ ঘটনায় চালককে গ্রেফতার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করেছেন নিহত শিক্ষার্থীর স্বামী সাইফুল ইসলাম। গতকাল জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে আয়োজিত এক মানববন্ধনে তিনি এ দাবি করেন। মানববন্ধনে সাইফুল ইসলাম বলেন, ঋতু বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব বিজনেস অ্যান্ড টেকনোলজি বিশ্ববিদ্যালয়ের টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং-এর ১৭তম ব্যাচের শেষ সেমিস্টারের শিক্ষার্থী। গত ২৮ ডিসেম্বর রাতে রবরব পরিবহনের একটি গাড়ি থেকে আমি এবং আমার স্ত্রী নাজনীন আক্তার ঋতু নামার সময় বাসটির চালক দ্রুতগতিতে চালালে আমি নামতে সক্ষম হলেও আমার স্ত্রী বাসের দরজা থেকে রাস্তায় ছিটকে পড়ে যায়। পরে আশেপাশের লোকজনের সহায়তায় তাকে ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব নিউরোসায়েন্স হাসপাতালে নেওয়া হয়। লাইফ সাপোর্টে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সে ২ জানুয়ারি মারা যায়।  সাইফুল ইসলামের অভিযোগ- এ ঘটনায় মিরপুর মডেল থানায় ৩১ ডিসেম্বর পরিবহন কোম্পানি ও গাড়ির চালক  হেলপারের বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করলেও আজ পর্যন্ত এ বিষয়ে কোনো অগ্রগতি হয়নি। আমি চাই ঘটনাটি সুষ্ঠু তদন্ত হোক এবং বাসের চালক ও হেলপারকে গ্রেফতার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দেওয়া হোক। মানববন্ধনে শিক্ষার্থীর পরিবারের অন্য সদস্যরাও উপস্থিত ছিলেন।


আপনার মন্তব্য