শিরোনাম
প্রকাশ : সোমবার, ৩ মে, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ২ মে, ২০২১ ২৩:৪৭

আলেমদের চুক্তিতে ওয়াজে অংশ নেওয়া গর্হিত কাজ

মাওলানা ইসমাইল হোসাইন

নিজস্ব প্রতিবেদক

আলেম-ওলামাদের চুক্তিতে ওয়াজ-মাহফিলে অংশ নেওয়া নীতি গর্হিত কাজ বলে মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশ ইউনাইটেড ইসলামী পার্টির চেয়ারম্যান মাওলানা মো. ইসমাইল হোসাইন। তিনি বলেন, আমরা বছর শেষে অপেক্ষা করি বাংলাদেশের ভালো একজন ইসলামী বক্তা এলাকায় অথবা মাদরাসায় নিয়ে তার ওয়াজ এলাকাবাসীকে শোনাব। কিন্তু অতি দুঃখের বিষয় হলো ওয়েজিনদের দাওয়াত করতে গেলে তারা যে টাকা আবদার করে তাতে তাকে মহল্লায় আনা সম্ভব হয় না। গতকাল রাজধানীর উত্তরায় অনুষ্ঠিত এক জরুরি সভায় সভাপতির বক্তব্যে এ কথা বলেন তিনি।

মাওলানা মো. ইসমাইল হোসাইন বলেন, সরকারের কাছে দাবি জানাব  ধর্ম মন্ত্রণালয় একটি নীতিমালা তৈরি করে তা যেন দেশের সব প্রশাসনের কাছে পাঠিয়ে দেয়-যাতে কোনো ওয়েজিন চুক্তির মাধ্যমে ওয়াজ করতে না পারে। তিনি বলেন, বহু মাদরাসায় অতীতে দেখা গেছে ছোট ছোট কোমল ছেলেরা অল্প কিছু টাকার জন্য মানুষের দুয়ারে দুয়ারে হাত পাতে। এটা আমার মনে হয় একটি অমানবিক ও ছাত্রদের ওপর জুলুম করা। এটা ইসলামে সম্পূর্ণরূপে হারাম। অনেক ছোট ছোট মাদরাসার ছাত্র এই ওয়াজ মাহফিলের কালেকশন করতে গিয়ে মারাও গেছে। তিনি বলেন, শিক্ষকরা সব সময় ওয়েজিনের টাকা জোগাড় করার জন্য পেরেশানি অবস্থায় সময় কাটায়। তাদের ঘুম হারাম হয়ে যায়। 

সভায় উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের মহাসচিব আল্লামা হযরত মাওলানা শাহাদাত হোসাইন, যুগ্ম মহাসচিব কাজী মাওলানা শাহ্ ওমর ফারুক, মাওলানা মোস্তফা চৌধুরী, বীর মুক্তিযোদ্ধা জয়নুল আবেদীন, মাওলানা আবদুর রাজ্জাক, মাওলানা কাজী আবদুল কাইয়ুম, কারী মো. আলী হায়দার, মাওলানা মো. শহীদুর রহমান, হাফেজ মাওলানা আবদুল আজিজ প্রমুখ।