শিরোনাম
প্রকাশ : ৬ জুলাই, ২০২০ ১০:৩৭

করোনায় মৃতদের আত্মার মাগফেরাত কামনায় নিউইয়র্কে বিশেষ মোনাজাত

যুক্তরাষ্ট্র প্রতিনিধি

করোনায় মৃতদের আত্মার মাগফেরাত কামনায় নিউইয়র্কে বিশেষ মোনাজাত

করোনাভাইরাসের মহামারিতে মৃত্যুবরণকারি সকলের আত্মার মাগফেরাত ও শান্তি কামনার পাশাপাশি আক্রান্তদের দ্রুত আরোগ্য কামনায় বিশেষ মোনাজাত অনুষ্ঠিত হলো নিউইয়র্ক সিটির ডাইভার্সিটি প্লাজায়। ৫ জুলাই সন্ধ্যায় করোনায় বিপর্যস্তদের মধ্যে বিনামূল্যে মাস্ক, গ্লাভস ও ফলের রস বিতরণ উপলক্ষে ‘ওয়ার্ল্ড হিউম্যান রাইটস এ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট’ নামক একটি সংস্থা এই কর্মসূচি হাতে নেয়। মোনাজাত পরিচালনা করেন মোহাম্মদী সেন্টারের ইমাম কাজী কাইয়ূম।

ওয়ার্ল্ড হিউম্যান রাইটস এ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট’র প্রেসিডেন্ট শহীদুৃল হক সাঈদের সঞ্চালনায় এ কর্মসূচিতে অতিথি ছিলেন কুইন্স ডিস্ট্রিক্ট ডেমক্র্যাটিক পার্টির লিডার এটর্নী মঈন চৌধুরী, স্থানীয় কমিউনিটি বোর্ড-৩ এর চেয়ারপার্সন রেনেতা ইংলিশ এবং কমিউনিটি বোর্ড মেম্বার মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল মুকিত চৌধুরী ও বাংলাদেশ সোসাইটির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আব্দুর রহিম হাওলাদার। এ সময় সকলকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলাফেলার পরামর্শ দেন অতিথিরা।

এটর্নী মঈন চৌধুরী এ সময় বলেন, স্বাস্থ্যবিধি মেনে চললেই করোনার অভিশাপ থেকে মুক্ত থাকা যাবে। তবে ইতিমধ্যেই প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের হঠকারি নীতির পরিপ্রেক্ষিতে টেক্সাস, ফ্লোরিডা, আরিজোনাসহ বহু স্টেটের মানুষেরা আজ করোনা মহামারির কবলে পড়েছেন। এমন লিডারকে হোয়াইট হাউজ থেকে সরাতে ৩ নভেম্বরের নির্বাচনে ডেমক্র্যাটদের বিপুল বিজয় দিতে হবে।

এদিকে, করোনা পরিস্থিতি মোটামুটি নিয়ন্ত্রণে আসায় সোমবার থেকে নিউইয়র্ক সিটির অর্থনৈতিক কর্মকান্ড পুরোপুৃরি চালুর তৃতীয় ধাপে পদার্পণ করলো। অর্থাৎ এখন থেকে বিউটি পার্লার, নেল কাটার, সেল্যুন খোলা হবে। অফিস চলবে। তবে রেস্টুরেন্ট এবং বারের ভেতরে বসার সুযোগ থাকবে না। রেস্টুরেন্টে সংলগ্ন বাইরে চেয়ার-টেবিল বসানো হয়েছে। সেখানে বসেই খাবার সারতে হবে আরো ১৪দিন। স্টেট ও সিটি প্রশাসনের নির্দেশ অনুযায়ী, সকলকে মাস্ক পরতে হবে। হ্যান্ড সেনিটাইজার ব্যবহার করতে হবে। সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে হবে দোকান, অফিস, রেস্টুরেন্ট-সর্বত্র। আগেই জানানো হয়েছে যে, মাস্ক ছাড়া কোন দোকানে কাউকে প্রবেশ করতেই দেয়া হচ্ছে না।

স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলায় ৮ জুন থেকেই নিউইয়র্ক সিটির সংক্রমণের হার কমেছে। সর্বশেষ রবিবার মাত্র ৮ জনের মৃত্যু হয়েছে নিউইয়র্কে। রবিবার হাসপাতালে ছিলেন মাত্র ৭২৬ জন। উল্লেখ্য, করোনায় সবচেয়ে বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে নিউইয়র্ক স্টেটে, ৩২ হাজার ১৫৭ জন। 

বিডি প্রতিদিন/ফারজানা


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর