২৮ জানুয়ারি, ২০২২ ১৯:৪৪

দুই বছরে তিন লক্ষাধিক মানুষ যুক্তরাষ্ট্রে রাজনৈতিক আশ্রয় নিয়েছে : কর্নেল অলি

নিজস্ব প্রতিবেদক

দুই বছরে তিন লক্ষাধিক মানুষ যুক্তরাষ্ট্রে রাজনৈতিক আশ্রয় নিয়েছে : কর্নেল অলি

ড. অলি আহমদ বীর বিক্রম

লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টির (এলডিপি) প্রেসিডেন্ট কর্নেল (অব.) ড. অলি আহমদ বীর বিক্রম বলেছেন, গত দুই বছরে বাংলাদেশ থেকে তিন লক্ষাধিক মানুষ যুক্তরাষ্ট্রে রাজনৈতিক আশ্রয় নিয়েছে। এরা অনেকেই বাংলাদেশে থাকা অবস্থায় সরকারের নিপীড়ন-নির্যাতন ও মামলা-হামলার শিকার হয়েছেন। তাদের সকলকে বৈধ করার মাধ্যমে যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিকে পরিণত করতে সকল পদক্ষেপের উদ্যোগ নিয়েছে এলডিপি।

ইতিমধ্যেই যুক্তরাষ্ট্রের বেশ কয়েকজন অ্যাটর্নির সঙ্গে এ বিষয়ে আমাদের কথাবার্তাও হয়েছে। এতে আমি অত্যন্ত আশান্বিত এই জন্যে যে, এর মাধ্যমে বাংলাদেশের তিন লক্ষাধিক পরিবার স্বচ্ছলতার মুখ দেখতে পাবে। তারা সুখে-শান্তিতে বসবাস করতে পারবে। আমি তাদের সকলের মঙ্গল কামনা করি। বিশ্বাস করি যে, যুক্তরাষ্ট্র সরকার আমাদের এই নেতাকর্মীদের তাদের দেশের (ইউএসএ) নাগরিকত্ব প্রদান করবেন। 

শুক্রবার সকালে নিউইয়র্কের মেমোস হোটেলে এবং বিকেলে উড্স-সাইডস এলাকার হলিডে ইন কুইন্স হোটেলে এলডিপির বিভিন্ন অঙ্গ-রাজ্য শাখার নেতাকর্মীদের সঙ্গে দু’টি মতবিনিময় অনুষ্ঠানের বক্তৃতায় তিনি এসব কথা বলেন। অনুষ্ঠান শেষে তিনি নিউইয়র্ক থেকে টেলিফোনে বাংলাদেশ প্রতিদিনকে এই তথ্য জানান। 

মতবিনিময় অনুষ্ঠানে নিইউইয়র্ক শাখার আহ্বায়ক আলহাজ্ব এমএ জাফরের সভাপতিত্বে এলডিপির কেন্দ্রীয় মহাসচিব ড. রেদোয়ান আহমদ, নিইউইয়র্ক শাখার সদস্য সচিব জাকির হোসেন, সেখানকার স্থানীয় নেতা মোহাম্মদ রুবেল প্রমুখ অংশ নেন।  

এলডিপি প্রেসিডেন্ট আরো বলেন, নিউইয়র্কে অনুষ্ঠিত এলডিপির যুক্তরাষ্ট্রের কেন্দ্রীয় সম্মেলনে যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিটি অঙ্গ-রাজ্যে এলডিপি’র শাখা কমিটি গঠনের সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়েছে। অবশ্য তার আগেই বেশ কিছু অঙ্গ-রাজ্যে কমিটি গঠনের কাজ শেষ হয়েছে। সেসব কমিটির নেতৃবৃন্দ বাংলাদেশ থেকে এসে যুক্তরাষ্ট্রে রাজনৈতিক আশ্রয় চাওয়া নেতাকর্মীদের সেদেশে আইনী সহায়তাসহ সম্ভাব্য সব ধরনের সহযোগিতা প্রদানের প্রচেষ্টা চালাচ্ছেন। তিনি বলেন, এলডিপিসহ সংশ্লিষ্ট সকলকে যার যার অবস্থান থেকে এক্ষত্রে আরো জোরালো ভূমিকা রাখতে হবে। তাছাড়া সকল ক্ষেত্রেই এলডিপির নেতাকর্মীদের সততা, নিষ্ঠা ও আন্তরিকতার সাথে কাজ করতে হবে।

বিডি-প্রতিদিন/সালাহ উদ্দীন

এই বিভাগের আরও খবর

সর্বশেষ খবর