শিরোনাম
প্রকাশ : শনিবার, ২৮ নভেম্বর, ২০২০ ০০:০০ টা
আপলোড : ২৭ নভেম্বর, ২০২০ ২৩:০৩

হুইল চেয়ারে হাসি ফুটল প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের

শনিবারের সকাল ডেস্ক

হুইল চেয়ারে হাসি ফুটল প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের

প্রাথমিক শিক্ষা উন্নয়ন প্রকল্প-৪ এর আওতায় ওসমানীনগরের বিভিন্ন বিদ্যালয়ে অধ্যয়নরত সাতজন শারীরিক প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীকে হুইল চেয়ার ও একজনকে চশমা প্রদান করা হয়...

 

দরিদ্রতার মাঝেও পড়াশোনার প্রতি তীব্র আকাক্সক্ষা তাদের। সংসারে নুন আনতে যেন পান্তা পুরায়। দরিদ্র মা-বাবার পক্ষে তাদের দুই প্রতিবন্ধী সন্তানকে একটি হুইলচেয়ার কিনে দেওয়া অনেকটাই দঃসাধ্য। বলছি সিলেটের ওসমানীনগরের চাতলপাড় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রী সুমাইয়া বেগম ও তৃতীয় শ্রেণিতে পড়ুয়া জগলু মিয়ার কথা। ভাই-বোন শারীরিক প্রতিবন্ধী হওয়ায় ঠিকমতো হাঁটাচলা করতে পারে না। এমন অবস্থায় বিদ্যালয়ে আসা- যাওয়ার ক্ষেত্রে মারাত্মক সমস্যা পোহাতে হয় মা সুনেছা বেগমকে। গত ১৬ নভেম্বর তারা সরকারিভাবে হুইল চেয়ার পেয়েছে। এখন থেকে তারা হুইল চেয়ারে বসেই স্কুলে আসতে পারবে ভেবে খুবই আনন্দিত। শুধু তারা নয়, তাদের মতো আরও পাঁচজন শিশু শিক্ষার্থীকে হুইল চেয়ার এবং একজনকে চশমা প্রদান করা হয়েছে। এই চেয়ার ও চশমা শিক্ষার্থীদের লেখাপড়া করতে সহায়ক ভূমিকা পালন করবে বলে মনে করছেন অভিভাবক ও শিক্ষকরা। জানা যায়, প্রাথমিক শিক্ষা উন্নয়ন প্রকল্প-৪ এর আওতায় ওসমানীনগরের বিভিন্ন বিদ্যালয়ে অধ্যয়নরত সাতজন শারীরিক প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীকে হুইল চেয়ার ও একজনকে চশমা প্রদান করা হয়। গত ১৬ নভেম্বর  ওসমানীনগর উপজেলা পরিষদে আনুষ্ঠানিকভাবে তাদের কাছে এগুলো তুলে দেওয়া হয়। অভিভাবক সুনেছা বেগম বলেন, গরিব হওয়ায় শিশুদের হুইল চেয়ার কিনে দেওয়ার ক্ষমতা ছিল না। সরকারিভাবে দুটি চেয়ার পেয়ে আমার সন্তানরা খুবই আনন্দিত।


আপনার মন্তব্য