শিরোনাম
প্রকাশ : বুধবার, ১১ মার্চ, ২০২০ ০০:০০ টা
আপলোড : ১০ মার্চ, ২০২০ ২৩:৫৪

শেষ ভালোর আশায় টাইগাররা

ক্রীড়া প্রতিবেদক

শেষ ভালোর আশায় টাইগাররা

র‌্যাঙ্কিংয়ের নিচের দলের বিরুদ্ধে খেলা মানেই তো ‘থ্যাঙ্কসলেস জব’! হারলে কঠোর সমালোচনার তীরে বুক এফোঁড়-ওফোঁড়, জিতলে কোনো ধন্যবাদ নেই! ‘এমনটা তো প্রাপ্যই ছিল’- সবার ভাবনাই যেন এমন! তাই র‌্যাঙ্কিংয়ের নিচের সারির দলের বিরুদ্ধে খেলা যেমন সহজ তেমনি অনেক চাপেরও। অনেক বড় একটা পরীক্ষাও। জিম্বাবুয়ের বিরুদ্ধে এই পরীক্ষায় বেশ ভালোভাবেই উত্তীর্ণ হচ্ছে বাংলাদেশ।

এক ম্যাচের টেস্ট সিরিজ কিংবা তিন ম্যাচের ওয়ানডেতে বাংলাদেশ যে ‘এ প্লাস’ পেয়েছে এটা আবার বলার অপেক্ষা রাখে না। টি-২০ সিরিজটাও দুর্দান্তভাবে শুরু হয়েছে। প্রথম ম্যাচেই জিম্বাবুয়েকে ৪৮ রানে হারিয়েছে টাইগাররা। আজ বাংলাদেশ দলের শেষ পরীক্ষা। অর্থাৎ জিম্বাবুয়ের বিরুদ্ধে শেষ টি-২০ ম্যাচ।

আগের প্রতিটি ম্যাচেই বাংলাদেশ দেখিয়ে দিয়েছে দুই দলের সামর্থ্যরে ব্যবধানটা। পাকিস্তানের বিরুদ্ধে টি-২০ সিরিজে হোয়াইটওয়াশ ও টেস্টে হারের পর টাইগাররা মানসিকভাবেই যেন কিছু বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছিল। কিন্তু জিম্বাবুয়ের বিরুদ্ধে চাঙ্গা হয়েছেন ক্রিকেটাররা।

রানে ফিরেছেন দুই ওপেনার তামিম ইকবাল ও লিটন দাস। দুই জনই দুর্দান্ত ব্যাটিং করছেন। জিম্বাবুয়ের বিরুদ্ধে লিটন দাসের ৫টি ইনিংস হচ্ছে ৫৩, ১২৬, ৯, ১৭৬ ও ৫৯। প্রথমটি টেস্টে, পরের তিনটি ওয়ানডে এবং শেষেরটি প্রথম টি-২০তে। তামিম ইকবালও দুর্দান্ত ব্যাটিং করছেন। ওয়ানডেতে শেষ দুই ম্যাচে টানা দুই সেঞ্চুরি। তা ছাড়া জিম্বাবুয়ের বিরুদ্ধে টেস্টে টানা দুই ম্যাচে ডাবল সেঞ্চুরির দারুণ এক কৃতিত্ব গড়েছেন মুশফিকুর রহিম।

টি-২০তে রানে ফিরেছেন সৌম্য সরকারও। আগের ম্যাচে খেলেছেন ৩২ বলে অপরাজিত ৬২ রানের ইনিংস। প্রথমে ব্যাট করে বাংলাদেশ করেছিল ২০০। বাংলাদেশের বোলাররাও ফর্মে ফিরেছেন। আজ শেষ ম্যাচেও একই মানসিকতা নিয়ে খেলতে নামছে টাইগাররা।

খেলা শুরু হবে সন্ধ্যা ছয়টায়। আজ জিতলেই টেস্ট ও ওয়ানডে সিরিজের পর টি-২০ সিরিজ নিশ্চিত হয়ে যাবে বাংলাদেশের। সেই সঙ্গে সফরের সব ম্যাচ জয়ের দারুণ সুখকর এক রেকর্ডও হয়ে যাবে! শেষ ম্যাচে মাঠে নামার আগেও তাই সতর্ক বাংলাদেশ। প্রথম টি-২০তে জয়ের পর অধিনায়ক মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ বলেছিলেন, ‘আমরা অনেক ভালো ক্রিকেট খেলছি। তামিম-লিটন দারুণ ব্যাট করছেন। সবাই বেশ ধারাবাহিক। এটা ধরে রাখতে হবে।’

অন্যদিকে অন্তত শেষ ম্যাচে জয়ের স্মৃতি নিয়ে দেশে ফিরতে চায় জিম্বাবুয়ে। তাই আজ আফ্রিকার দলটি মরিয়া হয়েই মাঠে নামবে।


আপনার মন্তব্য