শিরোনাম
প্রকাশ : সোমবার, ৩১ মে, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ৩০ মে, ২০২১ ২২:৫৯

শীর্ষ ৫ চ্যাম্পিয়ন

শীর্ষ ৫ চ্যাম্পিয়ন
Google News

১৩

রিয়াল মাদ্রিদ

স্পেন

উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগ (পূর্ব নাম ইউরোপিয়ান কাপ) জয়ে সবার চেয়ে এগিয়ে আছে স্প্যানিশ জায়ান্ট ক্লাব রিয়াল মাদ্রিদ। লস ব্ল্যাঙ্কোসখ্যাত ক্লাবটি ১৩ বার ইউরোপসেরা হয়েছে। সর্বশেষ তারা ২০১৮ সালে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে লিভারপুলকে হারিয়ে। ১৯৫৬ সালে শুরু হওয়া টুর্নামেন্টে প্রথম পাঁচবার টানা চ্যাম্পিয়ন হয়েছে রিয়াল মাদ্রিদ। ২০১৬-১৮ সালে তারা টানা তিনবার চ্যাম্পিয়ন হয়েছে। ১৩ বার চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পাশাপাশি লস ব্ল্যাঙ্কোসরা ৩ বার রানার্সআপও হয়েছে।

 

এসি মিলান

ইতালি

ইতালিয়ান জায়ান্ট ক্লাব এসি মিলান উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগে শিরোপা জয়ের দিক দিয়ে দুইয়ে অবস্থান করছে। ৭ বার ইউরোপসেরা হয়েছে তারা। ১৯৬৩ সালে এসি মিলান প্রথমবার চ্যাম্পিয়ন হয় পর্তুগিজ ক্লাব বেনফিকাকে হারিয়ে। ১৯৫৮ সালে প্রথমবার চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ফাইনাল খেললেও এসি মিলান সেবার পরাজিত হয় রিয়াল মাদ্রিদের কাছে। সর্বশেষ তারা ২০০৭ সালে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে লিভারপুলকে হারিয়ে। ৭ বার চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পাশাপাশি এসি মিলান ৪ বার রানার্সআপ হয়েছে।

 

বায়ার্ন মিউনিখ

জার্মানি

উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগে শিরোপা জয়ের দিক দিয়ে তিন নম্বরে আছে বায়ার্ন মিউনিখ। তারা ৬ বার ইউরোপসেরার মুকুট জয় করেছে। গার্ড মুলারের যুগে তিনবার চ্যাম্পিয়ন হয়েছে ব্যভারিয়ানরা। ১৯৭৪, ১৯৭৫ ও ১৯৭৬ সালে টানা চ্যাম্পিয়ন হয়েছে বায়ার্ন মিউনিখ। এরপর ২০০১, ২০১৩ ও ২০২০ সালে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে তারা। ২০২০ সালে তারা ফাইনালে হারিয়েছে ফরাসি ক্লাব পিএসজিকে। পাশাপাশি ৫ বার রানার্সআপও হয়েছে জার্মান জায়ান্ট বায়ার্ন মিউনিখ।

 

লিভারপুল

ইংল্যান্ড

উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগে ইংল্যান্ড থেকে সবচেয়ে বেশি আধিপত্য দেখিয়েছে লিভারপুল। অলরেডরা বায়ার্ন মিউনিখের মতোই ছয়বার ইউরোপসেরা হয়েছে। তবে ফাইনাল খেলার হিসেবে কিছুটা পিছিয়ে আছে লিভারপুল। তিনবার রানার্সআপ হয়েছে তারা। ১৯৭৭ সালে প্রথমবার ইউরোপ জয় করে লিভারপুল। এরপর ১৯৭৮, ১৯৮১, ১৯৮৪ এবং ২০০৫ সালে চ্যাম্পিয়ন হয় অলরেডরা। সর্বশেষ তারা ২০১৯ সালে টটেনহ্যামকে হারিয়ে উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জয় করে।

 

বার্সেলোনা

স্পেন

ইউরোপিয়ান ফুটবলে জায়ান্ট ক্লাব হিসেবে পরিচিতি পেলেও চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জিততে দীর্ঘদিন অপেক্ষা করতে হয় বার্সেলোনাকে। কাতালান এ ক্লাবটি প্রথমবার চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জয় করে ১৯৯২ সালে। সেবার তারা ফাইনালে পরাজিত করে ইতালিয়ান ক্লাব স্যাম্পডোরিয়াকে। অবশ্য এ টুর্নামেন্টে ১৯৬১ সালেই ফাইনাল খেলেছিল বার্সেলোনা। ইউরোপাসেরার মুকুট মেসি যুগেই চারবার জয় করে বার্সেলোনা (২০০৬, ২০০৯, ২০১১ ও ২০১৫ সালে)। পাশাপাশি তিনবার রানার্সআপ হয়েছে বার্সা।