১ জুলাই, ২০২২ ২১:২৩

নির্ভুলভাবে অফসাইড ধরতে কাতার বিশ্বকাপে নতুন প্রযুক্তি

অনলাইন ডেস্ক

নির্ভুলভাবে অফসাইড ধরতে কাতার বিশ্বকাপে নতুন প্রযুক্তি

ভিএআর পর্যালোচনার সময় রেফারি অ্যান্থনি টেলর। ফিফার নতুন ‘সেমি অটোম্যাটিক অফসাইড প্রযুক্তি’র লক্ষ্য হলো সিদ্ধান্ত নেওয়ার সময় কমানো। ছবি: রয়টার্স

অফসাইড এবং পেনাল্টি হলো ফুটবল খেলার এমন দুটি অংশ যা নিয়ে বরাবার তর্ক উঠেছে। ভিএআর আসার পরেও এই তর্কের ইতি ঘটেনি। যেই দলের বিরুদ্ধে অফসাইড বা পেনাল্টি দেওয়া হয় সেই দলই অত্যন্ত অসন্তুষ্ট হয়। আসন্ন কাতার ফিফা বিশ্বকাপ ২০২২-এ এই সমস্যার সমাধানের জন্য নতুন প্রযুক্তি নিয়ে এসেছে ফিফা।

কাতার বিশ্বকাপে অফসাইডেরে সিদ্ধান্ত আরও নিখুঁত করতে ব্যবহার করা হবে ‌‘সেমি অটোম্যাটিক অফসাইড প্রযুক্তি।’ বিষয়টি নিশ্চিত করেছে ফিফা। 

বিশেষজ্ঞদের ধারণা, ‘সেমি-অটোমেটিক’ অফসাইড প্রযুক্তি ব্যবহার করার ফলে অফসাইডের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করার ক্ষেত্রেও দ্রুততা আসবে এবং এই প্রক্রিয়া নির্ভুলও হবে।

কিন্তু কীভাবে কাজ করবে এই প্রক্রিয়া। স্টেডিয়ামের চার পাশে যেমন ক্যামেরা লাগানো থাকে তেমন তো থাকবে, এ ছাড়া অফসাইড ধরার জন্য আরও বেশি ও বিশেষ ক্যামেরা থাকবে স্টেডিয়মের চারদিকে। এ ছাড়া নতুনত্ব আসছে বলে। বলের মধ্যে চিপ লাগানো থাকবে। এর ফলে ভিএআর-এ সিদ্ধান্ত নেওয়াটা অনেকটাই সহজ হয়ে যাবে। 

পিয়েরলুইগি কলিনার, যিনি ফিফার রেফারিদের কমিটির প্রধান, তিনি আশা করেন, এই সেমি অটোমেটিক অফসাইড প্রযুক্তির ব্যবহারের ফলে আরও বেশি নির্ভুল হয়ে উঠবে ভিডিও অ্যাসিস্টেন্ট রেফারি বা ভিএআর-এর কাজ। 

রেফারিদের কমিটির চেয়ারম্যান নিজের বক্তব্যে বলেছেন, ‘আমরা ভিএআর-এর আরও সামঞ্জস্যপূর্ণ ব্যবহার নিয়ে কাজ করছি। হ্যাঁ, কখনো কখনো কোনো ঘটনা পরীক্ষা বা রিভিউ করতে অনেকটা সময় লাগে, বিশেষ করে অফসাইডের ক্ষেত্রে।’ বিশ্বকাপের প্রত্যেকটি ম্যাচে ব্যবহার করা হবে এই টেকনোলজি।

শুধু বিশ্বকাপের জন্য এই প্রযুক্তির আমদানি করা হচ্ছে এমনটা কিন্তু নয়। বিশ্বকাপের মধ্যে দিয়ে বিশ্ব ফুটবলে এই প্রযুক্তির অন্তর্ভুক্তি ঘটছে। এরপর বিভিন্ন টুর্নামেন্টে এই পদ্ধতির ব্যবহার করা হবে। সূত্র : অনইন্ডিয়া, দ্য গার্ডিয়ান

বিডি প্রতিদিন/জুনাইদ আহমেদ 
 

 

এই বিভাগের আরও খবর

সর্বশেষ খবর