২১ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ ০৬:৩৮

হলান্ডের গোলে লিগ টেবিলে দ্বিতীয় স্থানে ম্যানচেস্টার সিটি

অনলাইন ডেস্ক

হলান্ডের গোলে লিগ টেবিলে দ্বিতীয় স্থানে ম্যানচেস্টার সিটি

সংগৃহীত ছবি

দারুণ সব আক্রমণ করেও প্রতিপক্ষের দেয়াল ভাঙতে পারছিল না ম্যানচেস্টার সিটি। প্রতিকূল পরিস্থিতিতে দারুণ নৈপুণ্যে ব্যবধান গড়ে দিলেন আর্লিং হলান্ড। ব্রেন্টফোর্ডকে হারিয়ে লিগ টেবিলে দ্বিতীয় স্থানে উঠল টানা তিনবারের চ্যাম্পিয়নরা।

ইতিহাদ স্টেডিয়ামে মঙ্গলবার (২০ ফেব্রুয়ারি) রাতে প্রিমিয়ার লিগের ম্যাচে ১-০ গোলে জিতেছে পেপ গুয়ার্দিওলার দল। সিটির এই জয়ে শিরোপা লড়াইয়ে যোগ হলো নতুন মাত্রা। শীর্ষে থাকা লিভারপুলের সঙ্গে তাদের এখন ব্যবধান মাত্র ১ পয়েন্টের।

ম্যাচের শুর থেকেই প্রতিপক্ষের ওপর চাপ তৈরি করে সিটি। বল দখলে রেখে শাণাতে থাকে আক্রমণ। তবে তেমন কোনো উল্লেখযোগ সুযোগ তৈরি করতে পারছিল না তারা। প্রথম ১৫ মিনিটে আর্লিং হলান্ডের একটি শটই কেবল লক্ষ্যে ছিল, যদিও তা অনায়াসে ঠেকিয়ে দেন গোলরক্ষক।

ষোড়শ মিনিটে বিপদে পড়তে পারত শিরোপাধারারী। দারুণ এক পাল্টা আক্রমণে প্রতিপক্ষের ডিফেন্ডারদের পেছনে ফেলে ডি-বক্সে ঢুকে পড়েন ফ্র্যাঙ্ক ওনেয়াকা। তবে, শেষ মুহূর্তে গোলরক্ষক বরাবর দুর্বল শটে হতাশ করেন তিনি। তিন মিনিট পর আইভান টনির দূর থেকে নেওয়া শট ক্রসবার ঘেঁষে বেরিয়ে গেলে ফের বেঁচে যায় সিটি।

৩৩তম মিনিটে এগিয়ে যাওয়ার সুবর্ণ সুযোগ নষ্ট হয় সিটির। কাইল ওয়াকারের হেড কাটব্যাক দারুণ পজিশনে পেয়েও লক্ষ্যভ্রষ্ট হেড করেন বের্নার্দো সিলভা। পরের কয়েক মিনিটে ব্রেন্টফোর্ডের ওপর দিয়ে যেন ঝড় বইয়ে যায়। তবে অসাধারণ দুটি সেভ করে জাল অক্ষত রাখেন গোলরক্ষক মার্ক ফ্লেকেন। মানুয়েল আকনজির দূরপাল্লার শটে কোনোমতে এক হাত দিয়ে বল ক্রসবারের ওপর দিয়ে পাঠান তিনি, পরের মিনিট রুবেন দিয়াসের হেডও দারুণ ক্ষিপ্রতায় রুথে দেন ফ্লেকেন। পরক্ষণেই অস্কার ববের শট গোললাইন থেকে ফেরান ডিফেন্ডার বেন মি।

বিরতির পর সিটির খেলায় গতি কিছুটা কমে। টানা আক্রমণ করলেও তেমন ভীতি ছড়াতে পারছিল না তারা। অবশেষে ৭১তম মিনিটে কাঙ্ক্ষিত গোল পেয়ে যায় দলটি। দারুণ এক প্রতি-আক্রমণে মাঝমাঠ থেকে বল পায়ে দ্রুত এগিয়ে ডি-বক্সের বাইরে থেকে নিচু শটে গোলরক্ষককে পরাস্ত করেন হলান্ড।

প্রিমিয়ার লিগের ইতিহাসে দ্বিতীয় খেলোয়াড় হিসেবে একাধিক দলের বিপক্ষে মাঠে নেমে সব প্রতিপক্ষের জালে বল পাঠানোর কীর্তি গড়লেন নরওয়ের এই তারকা (২১/২১)। প্রথম জন হ্যারি কেইন; ৩২ দলের বিপক্ষে খেলে সবার বিপক্ষেই গোল করেছেন বর্তমানে বায়ার্ন মিউনিখের খেলা এই ইংলিশ স্ট্রাইকার।

গত আসরের সর্বোচ্চ গোলদাতা হলান্ড এবারও তালিকায় শীর্ষে আছেন, তার গোল হলো ১৭টি। সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে মৌসুমে ২২টি। খানিক পর ওয়াকারের হেড পাস ধরে আবারও জালে বল জড়ান হলান্ড। তবে ওয়াকার অফসাইডে থাকায় ব্যবধান বাড়েনি।

যোগ করা সময়ের প্রথম মিনিটে গোল পেতে পারতেন ফিল ফোডেন। এ মাসের শুরুতে প্রথম দেখায় ব্রেন্টফোর্ডের জালে হ্যাটট্রিক করা ইংলিশ মিডফিল্ডারের এবারের প্রচেষ্টা ঝাঁপিয়ে কর্নারের বিনিময়ে ঠেকান গোলরক্ষক।

বাকিটা সময়ে ব্যবধান ধরে রেখে আসরে ১৭তম জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে সিটি। ২৫ ম্যাচে তাদের পয়েন্ট হলো ৫৬। শীর্ষে লিভারপুলের পয়েন্ট ৫৭। এক ধাপ পিছিয়ে ৫৫ পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় স্থানে আর্সেনাল। শীর্ষ চারের অন্য দল অ্যাস্টন ভিলার পয়েন্ট ৪৯। ২৫ পয়েন্ট নিয়ে ১৪ নম্বরে আছে ব্রেন্টফোর্ড।

 

বিডি-প্রতিদিন/আব্দুল্লাহ

সর্বশেষ খবর