শিরোনাম
প্রকাশ : ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ১০:৫৬
আপডেট : ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ১১:১০

নির্বাচনী প্রচারাভিযানে নামার আগেই ‘করোনা রিলিফ প্যাকেজ’ বিল পাশের তাগিদ

যুক্তরাষ্ট্র প্রতিনিধি

নির্বাচনী প্রচারাভিযানে নামার আগেই ‘করোনা রিলিফ প্যাকেজ’ বিল পাশের তাগিদ

নির্বাচনী প্রচারাভিযানে অংশগ্রহণের জন্যে কংগ্রেসম্যানদের ক্যাপিটল হিল ত্যাগের আগে ‘করোনা রিলিফ প্যাকেজ’ বিল পাশের তাগিদ দিলেন ডেমক্র্যাট ও রিপাবলিকান পার্টির ৩৪ কংগ্রেসম্যান। কংগ্রেসের নিম্নকক্ষ প্রতিনিধি পরিষদের স্পিকারসহ শীর্ষ নেতাদের কাছে ২৩ সেপ্টেম্বর তারা একটি স্মারকলিপি দিয়েছেন।

স্পিকার ন্যান্সি পেলোসি, সংখ্যালঘু দল রিপাবলিকান পার্টির লিডার কেভিন ম্যাককার্থিকে তারা বলেছেন, ভোট-ময়দানে গেলেই করোনায় বিপর্যস্ত ভোটারের প্রশ্নবানে জর্জরিত হতে হবে। তাই ২ অক্টোবর অধিবেশন মূলতবি ঘোষণার আগেই যেন করোনা রিলিফ প্যাকেজ সম্পর্কে একটি সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

উল্লেখ্য, করোনা রিলিফ নিয়ে দুই পার্টি বিপরীত অবস্থানে থাকায় বেকার ভাতা, এককালিন ১২০০ ডলার করে চেক, নার্সিং হোম, হাসপাতাল, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসহ জরুরি প্রতিষ্ঠানসমূহের জন্যে অতিরিক্ত বরাদ্দ, ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদের জন্যে ভর্তুুকির বিষয়গুলো ঝুলে রয়েছে। রিপাবলিকানরা সপ্তাহে ৩০০ ডলার এবং ডেমোক্র্যাটরা ৬০০ ডলার করে ভাতা প্রদানের পক্ষে। এ নিয়ে দেন-দরবার হলেও সমঝোতায় পৌঁছতে পারেননি নির্বাচিত প্রতিনিধিরা।

এই স্মারকলিপিতে উল্লেখ করা হয়েছে, জনগণ আমাদেরকে নির্বাচিত করেছেন এদেশের মানুষের সার্বিক কল্যাণে কাজ করার জন্য। এই সংকটে সকলেই নাজুক অবস্থায় দিনাতিপাত করছেন। অনেকে পুষ্টিকর আহার পাচ্ছে না। না খেয়ে ঘুমুতে যাচ্ছে অসংখ্য শিশু। অর্থ সহায়তার বিকল্প নেই এমন মানুষদের জন্যে।
 
স্মারকলিপিতে উল্লেখ করা হয়েছে, করোনা রিলিফ নিয়ে সমঝোতা না হওয়া পর্যন্ত অধিবেশন চালু রাখতে হবে। গত ১৫ সেপ্টেম্বর এমন উক্তি করেছেন স্পিকার ন্যান্সি পেলসি। তাই করোনা রিলিফ বিল পাশের ব্যাপারটি শুধু অগ্রাধিকার নয়, এটি হচ্ছে এক নম্বর ইস্যু। 

বিডি প্রতিদিন/ফারজানা


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর