১৭ আগস্ট, ২০২২ ১৯:২৫
আবাসন সমস্যার সমাধান দাবি

বরিশাল মেডিকেল কলেজের শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ স্থগিত

নিজস্ব প্রতিবেদক, বরিশাল

বরিশাল মেডিকেল কলেজের শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ স্থগিত

বরিশাল মেডিকেল কলেজের শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ

আবাসন সমস্যার সমাধানের দাবিতে বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষের কার্যালয় তালাবদ্ধ করে ক্যাম্পাসে দিনভর বিক্ষোভ করেছে শিক্ষার্থীরা। বুধবার সকাল ৯টার দিকে শিক্ষার্থীরা মেডিকেল কলেজ চত্বরে সমবেত হয়ে বিক্ষোভ শুরু করেন। দিনভর বিক্ষোভ করেন তারা। পরে বিকেল ৪টার দিকে কর্তৃপক্ষের আশ্বাসে সাতদিনের জন্য বিক্ষোভ কর্মসূচি স্থগিত করেন শিক্ষার্থীরা। বিক্ষোভ কর্মসূচি থেকে অবিলম্বে নতুন বহুতল হোস্টেল নির্মাণের দাবি জানানো হয়।

শিক্ষার্থীরা জানান, মেডিকেল কলেজে প্রতিটি ব্যাচে এমবিবিএস ২৩০ জন এবং বিডিএস ৫২ জন করে শিক্ষার্থী রয়েছে। সে হিসেবে ১ হাজার ৪০০ মেডিকেল শিক্ষার্থী রয়েছে শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজে। ছাত্রদের জন্য ৩টি এবং ছাত্রীদের জন্য হোস্টেল রয়েছে ৩টি। এছাড়া ইন্টার্ন হোস্টেল রয়েছে একটি। সবগুলো হোস্টেল অর্ধশত বছরের পুরনো এবং জরাজীর্ণ। সম্প্রতি বিভিন্ন হোস্টেল সংস্কার করে কর্তৃপক্ষ। সংস্কারের পরও গত সোমবার ২ নম্বর হোস্টেলের সিলিংয়ের পলেস্তারা খসে পড়ে। এতে ভাগ্যক্রমে বেঁচে যায় ওই কক্ষে থাকা আবাসিক শিক্ষার্থীরা।

আন্দোলনরত মেডিকেল কলেজের ৪৮তম ব্যাচের শিক্ষার্থী মো. ইশতিয়াক বলেন, সবগুলো হোস্টেলের ভগ্নদশা। বিভিন্ন সময় সিলিংয়ের পলেস্তারা খসে পড়ে শিক্ষার্থীরা আহত হয়। ডাক্তারি পড়তে এসে তারা মরতে চান না। এজন্য এক দফা এক দাবি অবিলম্বে বহুতল হোস্টেল নির্মাণের দাবি তুলেছেন তারা। দ্রুত দাবি পূরণ না হলে আরও কঠোর আন্দোলন করবেন তারা।

শিক্ষার্থীরা জানান, প্রতিটি হোস্টেলে ধারণ ক্ষমতার অধিক সংখ্যক আবাসিক শিক্ষার্থী রয়েছে। এতে হোস্টেলে লেখাপড়ার সুষ্ঠু পরিবেশ বিঘ্নিত হচ্ছে। দীর্ঘদিন ধরে তারা নতুন হোস্টেল নির্মাণের দাবি করে আসছেন। কর্তৃপক্ষ বিষয়টি গুরুত্ব না দেওয়ায় এবার আন্দোলনে নেমেছেন তারা।

এদিকে দিনভর বিক্ষোভ পালনের একপর্যায়ে বিকেল ৪টার দিকে কর্তৃপক্ষের আশ্বাসে ৭ দিনের জন্য কর্মসূচি স্থগিত করে ক্যাম্পাস ত্যাগ করেন শিক্ষার্থীরা।

শিক্ষার্থীদের আবাসন সমস্যার কথা স্বীকার করেছেন মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. মো. মনিরুজ্জামান শাহিন। তিনি বলেন, প্রতিটি হোস্টেলে ধারণ ক্ষমতার অধিক শিক্ষার্থী বসবাসের পরও অন্তত ৪০০ থেকে ৫০০ শিক্ষার্থীর জন্য আবাসনের ব্যবস্থা করতে পারেনি কর্তৃপক্ষ। শিক্ষার্থীদের আবাসন সংকট সমাধানের জন্য মেডিকেল কলেজ ক্যাম্পাসে ছাত্রীদের জন্য একটি এবং ছাত্রদের জন্য একটি করে ১০তলা হোস্টেল ভবন নির্মাণের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। প্রকল্পটি একনেকে পাশের অপেক্ষায় রয়েছে। প্রকল্প পাশ হলে শিক্ষার্থীদের আবাসন সংকট নিরসন হবে। হোস্টেল নির্মাণ প্রক্রিয়া ত্বরান্বিত করার দাবিতে আন্দোলন করছে শিক্ষার্থীরা। প্রকল্প পাশের বিষয়টি শিক্ষার্থীদের বুঝিয়ে বলার পর বিকেল ৪টার দিকে তারা কর্মসূচি স্থগিত করে ক্যাম্পাস ছেড়েছে।

বিডি প্রতিদিন/এমআই

এই বিভাগের আরও খবর

সর্বশেষ খবর