২১ আগস্ট, ২০২২ ১৫:০১

দেশকে রক্ষা করতে হলে শেখ হাসিনাকে রক্ষা করতে হবে: রাবি উপাচার্য

রাবি প্রতিনিধি

দেশকে রক্ষা করতে হলে শেখ হাসিনাকে রক্ষা করতে হবে: রাবি উপাচার্য

ছবি- বাংলাদেশ প্রতিদিন।

বাংলাদেশকে রক্ষা করতে হলে শেখ হাসিনাকে রক্ষা করতে হবে বলে মন্তব্য করেছেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক গোলাম সাব্বির সাত্তার। আজ রবিবার সকাল সাড়ে দশটায় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্যারিস রোডে এক মানববন্ধনে বক্তৃতা দেওয়ার এ কথা বলেন উপাচার্য। 

তিনি আরও বলেন, ১৯৭৫ সালে যে দেশবিরোধী শক্তি বঙ্গবন্ধুরকে হত্যা করেছিল সেই একই শক্তি আমাদের দেশের চার নেতা হত্যাকাণ্ডে জড়িত ছিল। এখন তাদের উদ্দেশ্য দেশনেত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যা করে দেশের ক্ষমতা দখল করা। আর এসব অশুভ শক্তিকে লালন করে দেশের বর্তমান বিরোধীদলসহ আরো কিছু রাজনৈতিক দলগুলো। 

তিনি আরও বলেন, এসব শক্তি গণতান্ত্রিক উপায়ে ক্ষমতায় আসতে চায় না কারণ তারা জানে দেশের মানুষ তাদের সাথে নেই। তাই তারা অরাজকতা সৃষ্টি করে দেশের মসনদে বসতে চায়। বর্তমান সরকারের উচিত খুবই কঠোর হস্তে এইসব অশুভ শক্তিকে দমন করা যাতে তারা মাথাচাড়া দিয়ে উঠতে না পারে এবং একুশে আগস্টের মতো কালো দিন বাংলাদেশকে আর যেন কলঙ্কিত করতে না পারে। বাংলাদেশ আওয়ামী-লীগ একমাত্র দল যারা গণমানুষের আদর্শ লালন করে। 

সমৃদ্ধ ও অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ গড়ার স্বপ্ন নস্যাৎ করতে চালানো ২০০৪ সালের ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার বিচার ও অপরাধীদের শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন কর্মসূচিটি পালন করে বিশ্ববিদ্যালয়ের মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও মূল্যবোধ বিশ্বাসী প্রগতিশীল শিক্ষক সমাজ।

মানববন্ধনে উপাচার্য একুশে আগস্টের গ্রেনেড হামলায় নিহতদের প্রতি সমবেদনা জানিয়ে বলেন, সেই দেশবিরোধী হামলায় আইভি রহমানসহ ২৪ জনকে হত্যা করা হয়েছিল। এখনও অনেক মানুষ গ্রেনেডের স্প্রিন্ট শরীরে বহন করে বেড়াচ্ছে। ভাগ্যগুণে সেই হামলায় দেশনেত্রী শেখ হাসিনা বেঁচে গিয়েছিলেন। কিন্তু তাকে মেরে ফেলার পায়তারা এখনও অব্যাহত রয়েছে। 

এসময় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. সুলতান উল ইসলাম বলেন, ২১ আগষ্ট সে সময়ের সরকার তাদের বিরোধীদের উপর যে নারকীয় হত্যাযজ্ঞ চালায় তার নিন্দা দেশের প্রতিটি মানুষ জানায়। বাংলাদেশ দীর্ঘ নয় মাস যুদ্ধ করে তিরিশ লক্ষ মানুষ জীবন উৎসর্গ করে স্বাধীনতা অর্জন করেছে। কিন্তু সেই স্বাধীনতা বিরোধীরা এখন পায়তারা চালিয়ে যাচ্ছে কিভাবে দেশে আরও অরাজকতা সৃষ্টি করে দেশের মানুষকে বিপদে ফেলা যায়। তারা এখনও বিভিন্ন কর্মকাণ্ড দিয়ে দেশকে পাকিস্তান বানাতে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। যার উৎকৃষ্ট উদাহরণ ২১ আগষ্ট এর গ্রেনেড হামলা। আমাদের সকলকেই দেশবিরোধী এই শক্তির বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানো উচিত। আমরাই বঙ্গবন্ধুর এই স্বপ্নের দেশকে সোনার বাংলাদেশ হিসেবে গড়ে তুলতে পারি।

মানববন্ধটি সঞ্চালনা করেন মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও মূল্যবোধ বিশ্বাসী প্রগতিশীল শিক্ষক সমাজের সদস্য সচিব প্রফেসর মিজানুর রহমান।


বিডি-প্রতিদিন/আব্দুল্লাহ

এই বিভাগের আরও খবর

সর্বশেষ খবর