শিরোনাম
প্রকাশ : ২২ জানুয়ারি, ২০২০ ২১:৫৬

সিলেটে মেয়রকে দেখেই হকারদের ভোঁ দৌড়!

নিজস্ব প্রতিবেদক, সিলেট :

সিলেটে মেয়রকে দেখেই হকারদের ভোঁ দৌড়!

বেলা একটা। নগরভবন থেকে বের হয়ে হাঁটা শুরু করেন সিলেট সিটি করপোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী। তাকে দেখেই সিটি পয়েন্ট থেকে শুরু হয় হকারদের ভোঁ দৌড়। রাস্তা ও ফুটপাতে বসা হকাররা ভ্যানগাড়ি আর খাঁচা নিয়ে শুরু করেন দৌঁড়াদৌড়ি। রাস্তার পাশে অবৈধভাবে পার্কিং করা যানবাহনগুলোও চলতে থাকে দ্রুত। গত কয়েকদিন ধরে নগরীর রাস্তা ও ফুটপাত থেকে হকার উচ্ছেদে এভাবেই চলছে মেয়র-হকারের ইঁদুর-বিড়াল খেলা। 

বুধবার দুপুরে নিয়মিত অভিযানের অংশ হিসেবে রাস্তায় নামেন মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী। সিটি পয়েন্ট থেকে অভিযান শুরুর পরই রাস্তার পাশে অবৈধভাবে পার্কিং করে রাখা যানবাহনগুলো নিয়ে চালকরা দ্রুত পালাতে থাকেন। কয়েকটি যানবাহনের উপর চড়াও হন সিটি করপোরেশনের কর্মচারীরা। কিন্তু শেষমেষ মাফ চেয়ে পার পেয়ে গাড়ি নিয়ে পলায়ন করেন চালকরা। 

জিন্দাবাজারে আসার পর শুরু হয় হকারদের ভোঁ দৌড়। রাস্তার পাশে ভ্যান ও খাঁচায় করে জিনিসপত্র নিয়ে বসা হকাররা যে যার মতো শুরু করে পালাতে। কয়েকজন হকার আশ্রয় নেন জিন্দাবাজার ওয়ানসিটি বঙ্গবাজার মার্কেটের ভেতরে। সেখানে গিয়েও হানা দেন মেয়র। তলব করেন মার্কেটের মালিককে। এরপর হকার আর অবৈধ পার্কিয়ের বিরুদ্ধে অভিযান চালিয়ে তিনি পৌঁছান চৌহাট্টা পর্যন্ত। অভিযানের ফলে স্বল্প সময়ের জন্য হলেও সিটি পয়েন্ট থেকে চৌহাট্টা পর্যন্ত রাস্তা হকারমুক্ত ছিল। 

প্রসঙ্গত, গত কয়েকদিন থেকে সিটি করপোরেশন হকার উচ্ছেদে নিয়মিত অভিযান চালিয়ে আসছে। রাতে অভিযান করে হকারদের ভ্যানগাড়ি ও মালপত্র জব্দ করে নিয়ে আসা হয় নগরভবনে। পরদিন প্রকাশ্য নিলামে তা বিক্রি করা হয়। এই অভিযানের পর থেকে নগরীতে হকারদের অবৈধভাবে রাস্তা ও ফুটপাত দখলের প্রবণতা কিছুটা কমেছে বলে জানিয়েছেন সিটি মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী। 

বিডি-প্রতিদিন/শফিক


আপনার মন্তব্য