৩ নভেম্বর, ২০২২ ১১:৩৩

সিলেটে চার ইউপির ৩টিতেই নৌকার পরাজয়

সিলেট ব্যুরো


সিলেটে চার ইউপির ৩টিতেই নৌকার পরাজয়

প্রতীকী ছবি

সিলেটের গোয়াইনঘাট উপজেলার ৪টি ইউনিয়ন পরিষদে নির্বাচন হয়েছে। ৪টি ইউনিয়নের মধ্যে তিনটিতে বিদ্রোহীদের কাছে হেরে গেছেন নৌকার প্রার্থীরা। কেবল পূর্ব জাফলং ইউনিয়নে বিজয়ী হয়েছেন নৌকার প্রার্থী। বুধবার (২ নভেম্বর) সকাল ৮ টা থেকে বিকেল ৪ টা পর্যন্ত বিরতিহীনভাবে ভোটগ্রহণ সম্পন্ন হয়। ইভিএম পদ্ধতিতে শান্তিপূর্ণ ভোট গ্রহণ শেষে রাতে ফলাফল ঘোষণা করা হয়।

 গোয়াইনঘাট সদর ইউনিয়ন পরিষদে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী গোলাম রব্বানী সুমন আনারস প্রতীকে ২ হাজার ৮৯০ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী সুভাস চন্দ্র পাল নৌকা প্রতীকে ২ হাজার ৪৫৫ ভোট পেয়েছেন। এ ইউনিয়নে মোট ৯,৬৭৫ ভোটের মধ্যে কাস্ট হয় ৯,৬৫৭টি। বাতিল হয় ১৮টি ভোট। এ ইউনিয়নে মোট ৭৩ দশমিক ৭৩ শতাংশ ভোট কাস্ট হয়।

পশ্চিম জাফলং ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী মামুন পারভেজ আনারস মার্কায় ৪ হাজার ২৩৪ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী মুন্সি আব্দুল মুমিন চশমা প্রতীকে ২ হাজার ৯৬০ ভোট পেয়েছেন। এ ইউনিয়নে মোট ১১,৭৯৭ ভোটের মধ্যে ১১,৭৭২ ভোট কাস্ট হয়। বাতিল হয় ২৫টি ভোট। এ ইউনিয়নে মোট ৬৮ দশমিক ৯২ শতাংশ ভোট কাস্ট হয়।

পূর্ব জাফলং ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের প্রার্থী মো. রফিকুল ইসলাম নৌকা প্রতীকে ৭ হাজার ২৫১ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী মো. হামিদুল হক ভূঁইয়া বাবুল (আনারস) ৪ হাজার ৯৯০ ভোট পেয়েছেন। এ ইউপিতে মোট ১৫৪৫১ ভোটের মধ্যে ১৫৪১৩ ভোট কাস্ট হয়। বাতিল হয় ৩৮টি ভোট। এ ইউনিয়নে মোট ৬৯ দশমিক ৯৮ শতাংশ ভোট কাস্ট হয়।

মধ্য জাফলং ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী মো. লোকমান হোসেন (আনারস) ৩ হাজার ৮৮১ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী মো. শাইদুর রহমান ঘোড়া প্রতীকে ৩ হাজার ৫১৬ ভোট পেয়েছেন। এ ইউনিয়নে মোট ১০,২৭৬ ভোটের মধ্যে ১০,২৪৪ ভোট কাস্ট হয়। বাতিল হয় ৩২টি ভোট। এ ইউনিয়নে মোট ৭৪ দশমিক ৫৮ শতাংশ ভোট পড়ে।  

বিডি-প্রতিদিন/আব্দুল্লাহ

এই রকম আরও টপিক

এই বিভাগের আরও খবর

সর্বশেষ খবর