শিরোনাম
প্রকাশ : ১৪ মার্চ, ২০২১ ১৫:০২
আপডেট : ১৪ মার্চ, ২০২১ ১৫:১০
প্রিন্ট করুন printer

চাঁদাবাজির অভিযোগ আটক স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতাকে ১০ ঘণ্টা পর মুক্তি

সাভার প্রতিনিধি:

চাঁদাবাজির অভিযোগ আটক স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতাকে ১০ ঘণ্টা পর মুক্তি
অভিযুক্ত সাইফুল ইসলাম শিকদার

সাভারে এক ময়লা ব্যবসায়ীর নিকট চাঁদা দাবির অভিযোগে বহিস্কৃত এক স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতাকে আটক করেছে পুলিশ। শনিবার বিকেলে আশুলিয়ার ভাদাইল এলাকা থেকে তাকে আটক করে পুলিশ। পরে আটকের ১০ ঘণ্টা পর তাকে ছেড়ে দেয় পুলিশ।

অভিযুক্ত সাইফুল ইসলাম শিকদার আশুলিয়া থানা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক। তিনি ভাদাইল কাঁঠালতলা এলাকার বাসিন্দা। এর আগে মাদক সংশ্লিষ্টতা ও চাঁদাবাজিসহ সংগঠন বিরোধী নানা কর্মকান্ডের কারণে তাকে বহিষ্কার করা হয়। 

ভুক্তভোগী সাবিনা আক্তার বলেন, 'ওয়ার্ড মেম্বার সাদেক ভূইয়াসহ এলাকার মানুষ বইয়া আমারে ব্যবসা দিছে করবার লাইগা। আমি ২-৩ বছর ধইরা ব্যবসা করছি। পরশু দিনকা আইসা আমার গাড়ি আটকাইয়া কয় এই মাল নিবি না। আমি কইছি গাড়ি যাইব না কারণটা কি? মাসে ২৫ হাজার দিতে হইব চাঁদা। কাইলকা লেবারগো আইসা কইতাছে গাড়ি বার করলে বাইরা ফাটায় ফালামু। হ্যারপর আইজকা থানায় গিয়া অভিযোগ করছি। ওরা আছে সাইফুল শিকদার, মাসুদ, মাসুম ঈমান আলী,  চঞ্চল, আলম, পিন্টুসহ আরো ৮-১০জন আছে।'

আশুলিয়া থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) এমদাদুল হক বাংলাদেশ প্রতিদিনকে বলেন, ময়লার ব্যবসাকে কেন্দ্র করে সাইফুল ও তার লোকজনের বিরুদ্ধে চাঁদাবাজির অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত চলছে এখনো। 

আশুলিয়ার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামরুজ্জামান বাংলাদেশ প্রতিদিনকে বলেন প্রাথমিক তদন্তে ও জিজ্ঞাসাবাদে সাইফুল ইসলামের চাঁদাবাজীর সম্পৃক্ততা পাওয়া যায়নি। তাই তাদের কাছ থেকে মুচলেকা নিয়ে তাদের অভিভাবকদের জিম্মায় দেয়া হয়েছে। যদি চাঁদাবাজি ঘটনায় ওই তরুণের সম্পৃক্ততা পাওয়া যায়, তাদের আইনের আওতায় আনা হবে।’


বিডি প্রতিদিন/হিমেল


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর