২৮ আগস্ট, ২০২২ ১৪:২২

বঙ্গবন্ধু হত্যায় জিয়া জড়িত সন্দেহ নেই : ওবায়দুল কাদের

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজশাহী

বঙ্গবন্ধু হত্যায় জিয়া জড়িত সন্দেহ নেই : ওবায়দুল কাদের

বঙ্গবন্ধু হত্যায় জিয়াউর রহমান জড়িত এতে কোনো সন্দেহ নেই; তিনিই খুনিদের বিদেশ পাঠান ও পুনর্বাসন করেন। রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের আয়োজনে জাতীয় শোকসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে ভিডিও কনফারেন্সে যুক্ত হয়ে দলের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, বিএনপি তার দোসরদের নিয়ে টাকা পয়সা দিয়ে রাজপথ দখলের চেষ্টা করছে; দেশে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির চেষ্টা করছে। বিএনপি জানে নির্বাচন করে শেখ হাসিনাকে ক্ষমতা থেকে সরানো যাবে না। সে জন্য তারা ষড়যন্ত্রের পথ বেছে নিয়েছে। আওয়ামী লীগ সরকারকে উৎখাত করে ক্ষমতায় যাওয়ার সংক্ষিপ্ত শটকাট রাস্তা খুঁজছে।

বিএনপিকে উদ্দেশ্য করে ওবায়দুল কাদের বলেন, এদেশে আর ক্ষমতার পরিবর্তন অলিগলি দিয়ে; পেছনের দরজা দিয়ে ক্ষমতায় যাওয়া যাবে না। নির্বাচন করেই জনগণ যাকে চাইবে তাকেই ক্ষমতায় যেতে হবে। গণতন্ত্রের ডাক দিয়ে ক্ষমতায় যাওয়া যাবে না। কারণ বিএনপির হাতে রক্তের দাগ, পঁচাত্তরের ১৫ আগস্টের রক্তের দাগ, ২১ আগস্টের রক্তের দাগ, শত শত আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীকে হত্যার রক্তের দাগ বিএনপির হাতে।

সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রাজশাহী সিটি মেয়র ও আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন। প্রধান বক্তা ছিলেন দলের সাংগঠনিক সম্পাদক এসএম কামাল হোসেন। সভায় সভাপতিত্ব করেন মহানগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ আলী কামাল। সঞ্চালনা করেন রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ডাবলু সরকার।

খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, নিরপেক্ষ, নির্দলীয় সরকারের কোনো সুযোগ নেই। এই ইস্যুতে কেউ আগুন সন্ত্রাসসহ দেশে অরাজক পরিস্থিতি সৃষ্টি করলে আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ বসে থাকবে না। রাজপথে উচিত জবাব দিবে। তিনি আরও বলেন, বঙ্গবন্ধু হত্যার প্রেক্ষাপট সৃষ্টির পেছনে আরও একটি দল কাজ করেছে। কারাগারে বঙ্গবন্ধুর চার সহযোগী জাতীয় চার নেতাকে হত্যার পেছনে জড়িত এবং যারা এর সুফল ভোগ করেছে তাদেরও চিহ্নিত করতে হবে।

আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এসএম কামাল হোসেন বলেন, একাত্তর, পঁচাত্তর ও ২১ আগস্টের খুনিদের জন্য রাজপথ না। রাজপথ আওয়ামী লীগের জন্য। রাজপথে থেকেই আওয়ামী লীগ সবকিছু অর্জন করেছে। শোক সভায় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য আখতার জাহান, জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি অনিল কুমার সরকার প্রমুখ।

বিডি প্রতিদিন/আবু জাফর

এই বিভাগের আরও খবর

সর্বশেষ খবর