শিরোনাম
প্রকাশ : ১৪ জুন, ২০২০ ১৮:১১

ডিএনসিসির চিরুনি অভিযানের নবম দিন

১৬৪ স্থাপনায় এডিসের লার্ভা, ৩ লাখ ৯১ হাজার টাকা জরিমানা

অনলাইন ডেস্ক

১৬৪ স্থাপনায় এডিসের লার্ভা, ৩ লাখ ৯১ হাজার টাকা জরিমানা

এডিস মশা নিয়ন্ত্রণের মাধ্যমে নগরবাসীকে ডেঙ্গু থেকে সুরক্ষা দিতে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের (ডিএনসিসি) বিশেষ পরিচ্ছন্নতা অভিযান (চিরুনি অভিযান) অব্যহত রয়েছে। আজ রবিবার নবম দিনে মোট ১৩ হাজার ২০৫টি বাড়ি, স্থাপনা, নির্মাণাধীন ভবন ইত্যাদি পরিদর্শন করে ১৬৪টিতে এডিস মশার লার্ভা পাওয়া যায়। 

এছাড়া ৮ হাজার ৮৪৭টি বাড়ি/স্থাপনায় এডিস মশা বংশবিস্তার উপযোগী পরিবেশ পাওয়া যায়। এডিস মশার লার্ভা পাওয়ায় মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে আজ রবিবার ২০টি মামলায় মোট ৩ লাখ ৯১ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। অপরিচ্ছন্ন পরিবেশ ও এডিসের লার্ভা পাওয়ায় অন্য বাড়ি ও স্থাপনার মালিককে সতর্ক করা হয়েছে।

গত ৬ জুন থেকে আজ রবিবার পর্যন্ত এই ৯ দিনে ৫৪টি ওয়ার্ডে মোট ১ লাখ ২০ হাজার ৮৩৩টি বাড়ি, স্থাপনা, নির্মাণাধীন ভবন পরিদর্শন করে মোট ১ হাজার ৪৩৩ টিতে এডিস মশার লার্ভা এবং ৮৩ হাজার ১৫৬ টি বাড়ি/স্থাপনায় এডিস মশা বংশবিস্তার উপযোগী পরিবেশ পাওয়া যায়। 

এই ৯ দিনে মোট ১৯ লাখ ৪৮ হাজার ৫০০ টাকা জরিমানা আদায় করা হয়। 

রাজধানীর উত্তরা, মিরপুর-২, মহাখালী, মিরপুর-১০, কারওয়ান বাজার, হরিরামপুর, দক্ষিণখান, উত্তরখান, ভাটারা, সাতারকুলসহ বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালানো হয়। 

এছাড়া এডিস মশার প্রজনন উপযোগী পরিবেশ থাকা স্থানসমূহে পরিচ্ছন্নতা কার্যক্রম পরিচালনাপূর্বক কীটনাশক ছিটানো হয়েছে এবং জনসাধারণকে এবিষয়ে পরবর্তীতে সতর্ক থাকতে বলা হয়েছে।

উল্লেখ্য, চলমান এই অভিযানের পূর্বে ১৬ মে থেকে শুরু করে ঈদুল ফিতরের পূর্ব পর্যন্ত ১, ৬, ১২, ১৮ ও ৩২ নম্বর মোট ৫টি ওয়ার্ডে চিরুনি অভিযান পরিচালনা করা হয়েছিল। সে সময় ৯ হাজার ৪৬৩টি বাড়ি/স্থাপনা পরিদর্শন করে ১৮৭টিতে এডিস মশার লার্ভার সন্ধান পাওয়া যায়।

এডিস মশা নিয়ন্ত্রণে ডিএনসিসির আঞ্চলিক নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটদের নেতৃত্বে ১০ মে ২০২০ থেকে মোবাইল কোর্ট পরিচালিত হচ্ছে। বিভিন্ন বাড়ি, স্থাপনায় এডিস মশার লার্ভা পাওয়ায় মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে এ পর্যন্ত মোট ২৩ লাখ ৬৭ হাজার ৮০০ টাকা জরিমানা আদায় করা হয়েছে। 

লার্ভা পাওয়া স্থানগুলো হচ্ছে- পরিত্যক্ত টায়ার, বালতি, ফুলের টব, বোতল, পানির মিটার, গ্যারেজ, পানির হাউজ, মাটির পাত্র, ভাঙ্গা মগ, বাড়ির মেঝে, পানির ট্যাংক, প্লাস্টিকের পাত্র, ছাদের ড্রেন, দইয়ের পাত্র, পরিত্যক্ত কমোড, ডাবের খোসা, ভাঙ্গা পাতিল, বেইজমেন্ট, দুই বাড়ির মধ্যবর্তী স্থান ইত্যাদি।

অভিযান চলাকালে সকল এলাকাতেই এলাকাবাসীকে এডিস মশার বিস্তার রোধে সচেতন করা হয় এবং জরুরি প্রয়োজনে রাস্তায় বের হলে অবশ্যই মাস্ক পরিধানসহ সকলকে সামাজিক দূরুত্ব বজায় রাখার পরামর্শ প্রদান করা হয়। অভিযান চলাকালে ওয়ার্ড কাউন্সিলরবৃন্দ, ডিএনসিসির বর্জ্য ও স্বাস্থ্য বিভাগের কর্মকর্তা-কর্মচারিগণ, গণমাধ্যমকর্মীগণ উপস্থিত ছিলেন। এডিস মশা নিয়ন্ত্রণের মাধ্যমে নগরবাসীকে ডেঙ্গু থেকে সুরক্ষা দিতে ডিএনসিসির চিরুনি অভিযান সোমবারও অব্যাহত থাকবে।

বিডি প্রতিদিন/এনায়েত করিম


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর