Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : শুক্রবার, ১৯ জুলাই, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৮ জুলাই, ২০১৯ ২৩:৪৫

এরশাদের আসনে প্রার্থী কে?

জাপায় প্রস্তুতি, ছাড় দিতে নারাজ আওয়ামী লীগ

শাহজাদা মিয়া আজাদ ও রেজাউল করিম মানিক, রংপুর

এরশাদের আসনে প্রার্থী কে?

এইচ এম এরশাদের মৃত্যুতে রংপুর সদর আসনে (রংপুর-৩) জাতীয় পার্টির প্রার্থী কে হচ্ছেন তা নিয়ে আলোচনা শুরু হয়েছে। প্রার্থী চূড়ান্ত না হলেও তিনজনের কথাবার্তা শোনা যাচ্ছে। তারা হলেন- এরশাদের ভাই হুসেইন মুহাম্মদ মোর্শেদ, ছেলে রাহগীর আলমাদি সা’দ এরশাদ এবং ভাতিজা সাবেক সংসদ সদস্য এইচ এম শাহরিয়ার আসিফ। আবার জেলা আওয়ামী লীগের একাধিক নেতা বাংলাদেশ প্রতিদিনকে জানিয়েছেন, এবার আওয়ামী লীগ ছাড় দেবে না জাপাকে। তাদের পক্ষ থেকেও প্রার্থী দেওয়া হবে। জাতীয় পার্টির বিভিন্ন সূত্রে জানা গেছে, আপাতত এরশাদ পরিবারের বাইরে কাউকে প্রার্থী করে আসন হারানোর ঝুঁকি নিতে চায় না দলটি। এরশাদ পরিবারের বাইরে কাউকে মনোনয়ন দেওয়া হলে সে তালিকায় প্রথমে রয়েছে রংপুর জেলা জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক এস এম ফখর-উজ-জামান জাহাঙ্গীর। তিনি গত নির্বাচনে রংপুর-৫ (মিঠাপুকুর) আসন থেকে লাঙ্গল প্রতীকে নির্বাচন করে আওয়ামী লীগ প্রার্থী এইচ এন  আশিকুর রহমানের কাছে পরাজিত হন। তবে দলের চেয়ারম্যানের মৃত্যুর শোক কাটিয়ে ওঠার আগে এ নিয়ে এখনই আনুষ্ঠানিকভাবে কথা বলতে নারাজ ওই আসনের প্রার্থিতা প্রত্যাশী ও দলের নীতিনির্ধারণী পর্যায়ের নেতারা।

জোটগত নির্বাচনের কারণে গত তিনটি নির্বাচনে এই আসনে আওয়ামী লীগ কোনো প্রার্থী দেয়নি। ফলে এরশাদই বিপুল ভোটে বিজয়ী হয়েছেন। স্থানীয় আওয়ামী লীগ মনে করছে, এরশাদের অবর্তমানে সদর আসন আর জাতীয় পার্টিকে ছাড়                দেওয়া হবে না। দীর্ঘদিন থেকে রংপুর সদর আসনটি এরশাদ দখল করে রেখেছিলেন। তিনি এলাকায় না থাকার কারণে এখানকার উন্নয়ন বাধাগ্রস্ত হয়েছে। কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের উপদেষ্টামন্ডলীর সদস্য চৌধুরী খালেকুজ্জামান বলেন, ‘উপনির্বাচন হলে আমি বলব রংপুর সদর আসনে আওয়ামী লীগের একজন যোগ্য প্রার্থী দেওয়া হোক।’ জাতীয় পার্টির মহাসচিব মসিউর রহমান রাঙ্গা বলেন, আগামী সাত দিনের মধ্যেই প্রেসিডিয়াম বৈঠকে রংপুর-৩ আসনের নির্বাচনের বিষয়ে আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর