শিরোনাম
প্রকাশ : বুধবার, ৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ২ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ২৩:৩৮

পাখির বাসার ভাড়া দিল সরকার

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজশাহী

পাখির বাসার ভাড়া দিল সরকার

রাজশাহীর বাঘা উপজেলার আড়ানি ইউনিয়নের নিভৃত খোর্দ্দ বাউসা গ্রামে অতিথি পাখিদের বাসা ভাড়া নেওয়া আমবাগানের টাকা পরিশোধ করেছে সরকার। রাজশাহী জেলা প্রশাসকের সুপারিশ অনুযায়ী বন অধিদফতরের অনুন্নয়ন খাত থেকে ক্ষতিপূরণ হিসেবে পাঁচজন মালিককে বছরে ৩ লাখ ১৩ টাকা দেওয়ার অনুমতি দেওয়া হয়েছে।  সরকারের পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয়ের বন-২ শাখার উপসচিব দীপক কুমার চক্রবর্তী স্বাক্ষরিত চিঠিতে ক্ষতিপূরণের ওই টাকা দেওয়ার অনুমতি দেওয়া হয়। তবে যে বছর পাখি বসবে না, সে বছর কোনো ক্ষতিপূরণ দেওয়া যাবে না। জানা গেছে, গাছের সংখ্যা ও আমের মূল্য হিসাবে টাকা পাচ্ছেন খোর্দ্দ বাউসার মুঞ্জুরুল হক (মুকুল), সানার উদ্দীন, সাহাদত হোসেন এবং আড়ানির শফিকুল ইসলাম (মুকুট) ও ফারুক হোসেন। বাগান     

মালিক শফিকুল ইসলাম (মুকুট) বলেন, পাখি সুরক্ষায় এটি সরকারের একটি মহৎ উদ্যোগ। বাগান মালিকদের জন্য সরকারি এমন একটা প্রকল্প আশা করেছিলেন। গত তিন বছর ধরে পাখি বাগানে এসেছে। তারা টাকা পাবেন ২০২০ সাল থেকে। এর আগের দুই বছরের টাকা মালিকরা যদি পান, তাহলে ক্ষতিটা অনেক পুষিয়ে যাবে।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা শফিউল্লাহ সুলতান জানান, ৩৮টি আমগাছে পাখি বাসা বেঁধেছিল। সেই গাছগুলোর আমের সম্ভাব্য দাম ও পরিচর্যার ব্যয় নিরূপণ করা হয়েছে। সম্ভাব্য ক্ষতির পরিমাণ নির্ধারণ করা হয় বছরে ৩ লাখ ১৩ হাজার টাকা। সেই অনুযায়ী কৃষি মন্ত্রণালয়ে প্রতিবেদন পাঠিয়েছিলেন জেলা প্রশাসক। সামাজিক বন বিভাগের রাজশাহীর বিভাগীয় বন কর্মকর্তা আহম্মেদ নিয়ামুর রহমান বলেন, মন্ত্রণালয়ের ওই চিঠির পরিপ্রেক্ষিতে প্রধান বন সংরক্ষণ (সিসিএফ) কর্মকর্তার দফতর থেকে নির্দেশনা আসবে। সেই নির্দেশক্রমে অনুমতি পেলে টাকার চেক হস্তান্তর করবেন। এখনো চেক হস্তান্তরের কোনো নির্দেশনা পাননি। তবে মালিকদের কাছ থেকে বিষয়টি জানতে পেরেছেন।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর