শিরোনাম
প্রকাশ : মঙ্গলবার, ৮ জুন, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ৭ জুন, ২০২১ ২৩:৪৫

অনলাইনে মেয়ে সেজে ফাঁদ ফেলেন কলেজছাত্র

নিজস্ব প্রতিবেদক

Google News

ছেলে হয়েও সাইবার দুনিয়ায় মেয়ে সেজে যৌনতার মোহে ফেলতেন অনেককে। অনলাইন চ্যাটিংয়ে গোপন ছবি ও ভিডিও সংগ্রহ করে দিতেন ছড়ানোর হুমকি। লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নেওয়া কলেজছাত্র অবশেষে ধরা পড়েছেন ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) জালে। বাস্তবে ছেলে, অনলাইনে মেয়ে। ২১ বছরের এই কলেজ শিক্ষার্থীর নাম এরশাদ মিয়া। ফেসবুক অ্যাকাউন্টে তার নাম মোরশেদা রহমান মিতু কিংবা রিমা। ৪ জুন সুনামগঞ্জের ধর্মপাশা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে তার টার্গেট সচ্ছল বয়স্ক পুরুষ। পর্যালোচনা করে বাছাই ব্যক্তিদের পাঠাতেন ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট। এতে সাড়াও দিতেন প্রায় সবাই। মেসেঞ্জারে স্বাভাবিক আলাপ রূপ নেয় যৌনতায়।

ডার্ক সাইট থেকে রগরগে ছবি-ভিডিও নামিয়ে টার্গেট ব্যক্তিকে পাঠিয়ে অল্প সময়েই গড়ে তোলেন ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক। কৌশলে টার্গেট ব্যক্তির আবেগঘন মুহূর্তের ভিডিও ও ছবি সংগ্রহ করে নিতেন। এরপর সেগুলো ছড়িয়ে দেওয়ার ভয় দেখিয়ে হাতিয়ে নিতেন টাকা। গতকাল ডিবির সাইবার অ্যান্ড স্পেশাল ক্রাইম সূত্র জানান, কেউ কথা বলতে চাইলে মোবাইল ফোনে কণ্ঠ পরিবর্তন করে মেয়ে সেজে আলাপ করতেন এরশাদ। এরশাদের যৌনতার আমন্ত্রণে সাড়া দিয়ে ফেঁসে যাওয়া পুরুষের বেশির ভাগই বিবাহিত এবং সমাজে প্রতিষ্ঠিত। সাইবার দুনিয়ায় প্রতারিত হলে নাগরিকদের নীরব না থেকে অভিযোগ জানানোর আহ্বান জানান সাইবার অ্যান্ড স্পেশাল ক্রাইমের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (এডিসি) মহিদুল ইসলাম। ঢাকা মহানগর পুলিশের যুগ্ম কমিশনার (ডিবি-উত্তর) হারুন অর রশীদ জানান, কোনো মেয়ে ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট পাঠালে বা মেয়ে কণ্ঠে কথা বললেই কেউ যেন তাদের ওপর আসক্ত না হয়। আরও সতর্কভাবে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ব্যবহার করা উচিত। তারা এখন পর্যন্ত এমন অনেক প্রতারক চক্রকে শনাক্ত করেছেন যারা এসব অপরাধে জড়িত।

এই বিভাগের আরও খবর