শিরোনাম
মঙ্গলবার, ২৪ মে, ২০২২ ০০:০০ টা

পাবিপ্রবি শিক্ষার্থীকে পেটাল ছাত্রলীগ

পাবনা প্রতিনিধি

পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (পাবিপ্রবি) এক ছাত্রকে পিটিয়েছে ছাত্রলীগের কয়েক যুবক। আহত ওই শিক্ষার্থীকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় পাবনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। হাসপাতালের নাক কান গলা রোগ বিশেষজ্ঞ সার্জন ডা. মনিরুল ইসলাম বলেন, ওই শিক্ষার্থীর সম্ভবত কানের পর্দা ফেটে গেছে। সুস্থ হতে সময় লাগবে। মাথায় আঘাতের কারণেও এমনটি হতে পারে।

আহত নূরুল আমিন পাবিপ্রবির অর্থনীতি বিভাগের ১১তম ব্যাচ (তৃতীয় বর্ষ প্রথম সেমিস্টার) ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলের আবাসিক শিক্ষার্থী। বিভাগের বড় ভাই ওহিদুল ইসলাম বলেন, ‘আমরা শোনার সঙ্গে সঙ্গেই তাকে হাসপাতালে নিয়ে যাই। তার মাথায় আঘাত করা হয়েছে। সে মাঝেমধ্যেই সংজ্ঞা হারিয়ে ফেলছে। এ ঘটনার আমরা সুষ্ঠু বিচার দাবি করি।’ আহত নূরুল আমিনের সহপাঠীরা জানান, শনিবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে ইতিহাস বিভাগের ১১তম ব্যাচের অনীক পোদ্দার, ইনফরমেশন অ্যান্ড কমিউনিকেশন ইঞ্জিনিয়ারিং (আইসিই) বিভাগের ১১তম ব্যাচের শাহ আলম, জহির রায়হান, ইমনসহ কয়েকজন তাকে রুম থেকে ডেকে হলের ছাদে নিয়ে যান। কিছুক্ষণ পর তারাই তাকে রুমে দিয়ে যান।

 বিষয়টি আমরা জানার পর বিশ্ববিদ্যালয় অ্যাম্বুলেন্সে করে রাত দেড়টার দিকে পাবনা জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করি। আহত নূরুলের সংজ্ঞা ফেরার পর এদের কয়েকজনের নাম বলেছেন।

তারা আরও বলেন, হলের ডাইনিংয়ে খাবার নিয়ে নূরুল সম্প্রতি একটি স্ট্যাটাস দেন। এতে ক্ষুব্ধ হয়েই তাকে মারধর করা হয় বলে তারা জানান।

তবে অনীক পোদ্দার মারধরের বিষয় অস্বীকার করলেও রুম থেকে ডেকে নিয়ে যাওয়ার বিষয়টি স্বীকার করেন। হলের খাবারসংক্রান্ত কোনো বিষয়ে তাকে মারা হয়নি বলেও দাবি করেন। ‘একটি মিটিংয়ের জন্য আমরা কয়েক বন্ধু তাকে রুম থেকে ডেকে ছাদে নিয়ে যাই,’ বলেন তিনি।

পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. হাফিজা খাতুন বলেন, ‘ঘটনা তদন্তে কমিটি করা হবে। যারাই ঘটনার সঙ্গে জড়িত তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

এই বিভাগের আরও খবর

সর্বশেষ খবর