Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : ৭ অক্টোবর, ২০১৯ ২১:৫২

স্যামসাং-এর গ্যালাক্সি এ সিরিজে আসছে বড়সড় ধামাকা

অনলাইন ডেস্ক

স্যামসাং-এর গ্যালাক্সি এ সিরিজে আসছে বড়সড় ধামাকা

নতুন বছর প্রায় শেষ হতে চলছে। স্মার্টফোন নির্মাতা প্রতিষ্ঠানগুলো তাদের নিত্য নতুন স্মার্টফোন দিয়ে প্রযুক্তিপ্রেমীদের চমকে দিতে মরিয়া। বছর জুড়েই আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে ছিল স্যামসাং-এর উদ্ভাবনী স্মার্টফোন। মিড রেঞ্জ থেকে হাই রেঞ্জ সবক্ষেত্রেই স্যামসাং-এর ছিল দাপুটে অবস্থান। এই জয়যাত্রা ধরে রাখতে এবং দাপটের সাথে বছর শেষ করতে স্যামসাং নিয়ে এসেছে গ্যালাক্সি এএস সিরিজের দুটি নতুন মডেলের স্মার্টফোন। ইতিমধ্যেই বৈশ্বিকভাবে অবমুক্ত করা হয়েছে গ্যালাক্সি এ৫০এস এবং এ৩০এস স্মার্টফোন দুটি। এরই ধারাবাহিকতায় বাংলাদেশেও নতুন মডেলের স্মার্টফোন দুটি অবমুক্ত করা হবে। এর ফলে অপেক্ষায় প্রহর শেষ হতে যাচ্ছে দেশি স্মার্টফোনপ্রেমীদের।  

বাংলাদেশের সর্বত্রই এখন উৎসব মুখর পরিবেশ বিরাজ করছে। উৎসবের এ দেশে ইতিমধ্যেই শুরু হয়েছে শারদীয় দুর্গাপূজা। এই উৎসবকে আরও রাঙিয়ে তুলতে প্রযুক্তিপ্রেমীদের সামনে নতুন দুটি স্মার্টফোন নিয়ে হাজির হয়েছে স্যামসাং। চলতি মাস থেকেই বাংলাদেশের বাজারে পাওয়া যাবে নতুন স্মার্টফোন দুটি। 
ফিরে দেখা 
ট্রেন্ডি প্রজন্মের যেসব তরণ নতুন ফোন কেনার কথা ভাবছেন? দেখতেও ভাল হবে আবার দামও হবে কম তাদের জন্যই গ্যালাক্সি জে সিরিজ থেকে বেরিয়ে বাজারে গ্যালাক্সি এ সিরিজ নিয়ে এসেছে দক্ষিণ কোরিয়ার প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান স্যামসাং। শুরুতেই নতুন এই সিরিজের ডিভাইসের জন্য হুমড়ি খেয়ে পড়েছে আগ্রহী ক্রেতারা। এর অন্যতম কারণ ছিল নতুন যুগের নতুন প্রজন্মের চাহিদা পূরণে সফল হয়েছে স্যামসাং। এখন পর্যন্ত গ্যালাক্সি এ সিরিজের এ১০, এ২০, এ৩০, এ৫০, এ৭০, এবং এ৮০ মডেলের ডিভাইস বাজারে এনেছে স্যামসাং। বাজারে আসার অল্প দিনের মধ্যেই  ক্রেতাদের মাঝে অভূতপূর্ব সাড়া ফেলেছে উলি­খিত মডেলগুলো। এরই ধারাবাহিকতায়  বাংলাদেশের ক্রেতাদের  চাহিদা মেটাতে বিশ্বখ্যাত টেক জায়ান্ট স্যামসাং বাজারে নিয়ে আসতে যাচ্ছে এ৫০এস এবং এ৩০এস। 
উল্লেখ্য, বাজার গবেষণার বিভিন্ন সূত্র থেকে দেখা গিয়েছে ২০১৯ সালের সর্বাধিক বিক্রিত ১০টি স্মার্টফোনের মধ্যে গ্যালাক্সি এ১০, গ্যালাক্সি এ২০ ও গ্যালাক্সি এ৫০ জায়গা করে নিয়েছে।   
কেন গ্যালাক্সি 'এ সিরিজ' সেরা?  
রোমা কর মুহূর্তকে ক্যামেরাবন্দি করতে যারা ভালোবাসেন কিংবা সমাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে লাইভে এসে নিজের রোজকার কর্মকান্ড বন্ধুদের সাথে ভাগাভাগি করতে চান তাঁরাই মূলত এ সিরিজের ডিভাইগুলো লুফে নিয়েছেন। ডিভাইসগুলোর কিছু অনন্য বৈশিষ্ট্য রয়েছে, যা তাদের অন্যান্য ডিভাইগুলো থেকে আলাদা করেছে। ডিভাইসগুলোর বিশেষ বৈশিষ্ট্যগুলোর মধ্যে সুপার স্লো-মো, হাইপারল্যাপস ভিডিও ক্যাপচারের বিষয়গুলো  উল্লেখযোগ্য। গ্যালাক্সি এ সিরিজের বিশেষ দিকগুলোর মধ্যে রয়েছে আল্ট্রা-ওয়াইড লেন্সের ক্যামেরা যা দিয়ে প্রশস্ত ছবি ও ভিডিও ক্যাপচার হয় অনায়াসে, সুপারঅ্যামোলেড ইনফিনিটি ডিসপ্লে, ইন-ডিসপ্লে ফিঙ্গারপ্রিন্ট স্ক্যানার এবং দ্রুতগতিতে চার্জ দেয়ার জন্য টাইপ-সি চার্জিং পোর্ট। 
দ্রুতগতি সম্পন্ন, দীর্ঘমেয়াদী, অভিনব ফিচারে ভরপুর স্যামসাংয়ের এ সিরিজের ডিভাইসগুলো। স্যামসাং এ৫০এস ও এ৩০এস ডিভাইসগুলোও এর ব্যতিক্রম নয়। এই ডিভাইসগুলোর রয়েছে বিশেষ কিছু বৈশিষ্ট্য। চলুন এই ডিভাইদ্বয়ের বিশেষ বৈশিষ্ট্যগুলো সম্পর্কে জেনে আসি- 

স্যামসাং গ্যালাক্সি এ৫০এস এর বৈশিষ্ট্য: 
ফোনটিতে আরো উন্নত ফুল এইচডি প্লাস সুপার এমোলেড ডিসপে রয়েছে। এছাড়া নাইট মোডে ফোনটির ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা দিয়ে তোলা যাবে অসাধারন সব ছবি। পাশাপাশি ডিভাইসটির অক্টাকোর প্রসেসর দেবে দুর্দানÍ গেমিং অভিজ্ঞতা। কারণ ডিভাইসটিতে রয়েছে ৬ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজের শক্তিশালী সমন্বয়। দীর্ঘ সময় ব্যবহারের লক্ষ্যে ডিভাইসটিতে রয়েছে ৪ হাজার মিলিঅ্যাম্পিয়ারের ব্যাটারি। দ্রুত গতিতে চার্জের জন্য থাকছে ১৫ ওয়াটের ফাস্ট চার্জিং।

স্যামসাং গ্যালাক্সি এ৩০এস এর বৈশিষ্ট্য:  
অন্যদিকে, ইনফিনিটি-ভি অ্যামোলেড ডিসপ্লের ফোনটিতে আছে ইন-ডিসপ্লে ফিঙ্গারপ্রিন্ট স্ক্যানার। কর্মদক্ষতা নিশ্চিৎ করতে  গ্যালাক্সি এ৩০এস ডিভাইসটিতে রয়েছে অক্টাকোর প্রসেসর। ফোনটিতে ছবি তোলার জন্য রয়েছে ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা। ডিভাইসটিতে রয়েছে ৪ জিবি র‌্যাম এবং ৬৪ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ। ৪ হাজার মিলিঅ্যাম্পিয়ারের ব্যাটারির সাথে দ্রুত গতিতে চার্জের জন্য এতে থাকছে ১৫ ওয়াটের ফাস্ট চার্জিং ফিচার।
সৃবশেষে বলা যায়, বাজারে অবমুক্ত হওয়া গ্যালাক্সি এ সিরিজের ডিভাইগুলো ইতিমধ্যে প্রযুক্তিপ্রেমীদের কাছে ব্যাপক সমাদৃত হয়েছে। এরই ধারাবাহিকতায় আসন্ন দুটি গ্যালাক্সি এ সিরিজের ফোনগুলোও বাজারে আধিপত্য ধরে রাখবে বলে আশা করা যায়। কথায় আছে সব ভালো যার শেষ ভালো তার। প্রবাদটি স্যামসাং-এর বেলায় পুরোপুরি প্রযোজ্য। বছরজুড়ে সব ভালোতেই ভেসেছে স্যামসাং। আশা করা যাচ্ছে শেষটাও ভালো হবে প্রতিষ্ঠানটির।

বিডি-প্রতিদিন/সালাহ উদ্দীন


আপনার মন্তব্য