শিরোনাম
প্রকাশ : শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৮ এপ্রিল, ২০১৯ ২৩:০১

বোমা মেশিনে বালু উত্তোলন হুমকিতে মহাসড়ক

লালমনিরহাট প্রতিনিধি

বোমা মেশিনে বালু উত্তোলন হুমকিতে মহাসড়ক

লালমনিরহাটের হাতীবান্ধা উপজেলা কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের পাশে বোমা মেশিন দিয়ে আবারও বালু উত্তোলন করা হচ্ছে। প্রায় এক মাস বালু তোলা বন্ধ থাকার পর গত ২ এপ্রিল থেকে আবারও শুরু হয়েছে। এতে বুড়িমারী-ঢাকা মহাসড়ক, ডাক বাংলো, জামে মসজিদ, শহীদ মিনারসহ অসংখ্য প্রতিষ্ঠান ভাঙনের হুমকির মুখে পড়েছে। ইউএনও সামিউল আমিন বলেন, ‘সরকারি কাজের জন্য মেশিন দিয়ে বালু উত্তোলনে উপরের অনুমতি রয়েছে।’ জেলা প্রশাসক শফিউল আরিফ বলেন, ‘বোমা মেশিন দিয়ে বালু বা পাথর উত্তোলন সম্পূর্ণ অবৈধ। বোমা মেশিন দিয়ে বালু উত্তোলনের অনুমতি দেওয়ার প্রশ্নেই উঠে না।’ জানা যায়, হাতীবান্ধা কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের পাশে জেলা পরিষদের পুকুর রয়েছে। পুকুরটির কারণে পাশে বুড়িমারী স্থলবন্দর মহাসড়কে ভাঙন দেখা দিয়েছে। এ অবস্থায় পুুকুর খননের কাজ করছেন জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদফতর। পুকুর খনন ও মাটি ভরাটের জন্য ভেকু মেশিন ব্যবহারের নিয়ম থাকলেও তা মানা হচ্ছে না। উল্টো পুকুর খননের নামে প্রায় দেড় মাস আগে বোমা মেশিন দিয়ে বালু উত্তোলনের মাধ্যমে জমজমাট বালু ব্যবসা শুরু করে একটি চক্র। ৭০-১০০ ফুট নিচে থেকে বালু উত্তোলন করা হয়। ফলে পুকুরে ৫০-১০০ গজের মধ্যে অবস্থিত বুড়িমারী স্থলবন্দর, মহাসড়ক, কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার, নির্মাণাধীন ডাকবাংলো, মসজিদসহ বহু প্রতিষ্ঠান ও বসতবাড়ি হুমকির মুখে পড়েছে। দেড় মাস আগে বোমা মেশিন দিয়ে বালু শুরু হলে বিষয়টি বিভিন্ন গণমাধ্যমে আসে। তখন বালু উত্তোলন বন্ধ করে দেয় হাতীবান্ধার ইউএনও সামিউল আমিন। কিন্তু চলতি মাসের শুরুতে আবারও ওই পুকুর থেকে বোমা মেশিন দিয়ে বালু উত্তোলন শুরু হয়।


আপনার মন্তব্য